সিলেট : বিএনপির সমর্থন পেলেন আরিফ তৃণমূল নেতাকর্মীদের মধ্যে ক্ষোভ

0
70
Print Friendly, PDF & Email

সিলেট সিটি করপোরেশন (সিসিক) নির্বাচনে অবশেষে দলীয় প্রার্থী মনোনয়নে সব জল্পনা কল্পনার অবসান গুলশানে। তৃণমূল থেকে অনেকটা প্রত্যাখাত ও হলফনামায় নিজেকে ‘স্বশিক্ষিত’ দাবিদার আরিফুল হক নাটকীয়ভাবে মেয়র পদে দলীয় সমর্থন পেলেন। দলের পদত্যাগী নেতা ও মহানগর কমিটির সাবেক সভাপতি আরিফুল হক চৌধুরীকেই বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে বিএনপির প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা দেন দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। তবে মেয়র পদে আরিফুল হক বিএনপির সমর্থন পাওয়ায় সিলেটে বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। অন্যদিকে দলীয় সমর্থন পাওয়া আরিফ সমর্থিতরা গতকাল বাদ জুমা নগরীর মসজিদে মসজিদে মিষ্টি বিতরণ করেছেন।

গত বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে খালেদা জিয়ার সঙ্গে দলের চার মেয়র প্রার্থী সাক্ষাৎ করলে দলীয় প্রধান এ সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে দেন। যদিও সিলেট জেলা ও মহানগর বিএনপি শুরু থেকেই আরিফুলকে সমর্থন না দিতে কেন্দ্রের প্রতি আহ্বান জানিয়ে আসছিল। তৃণমূল নেতাকর্মীদের দাবি অনেকটা উপেক্ষা করে দলীয় সমর্থন গেল আরিফুল হকের পক্ষে। তবে আরিফুল হককে সমর্থন দেয়া নিয়ে ইলিয়াসবিহীন সিলেট বিএনপির মধ্যে আরেকবার ক্ষোভ দানা বাঁধল। আরিফুল হককে দলীয় সমর্থন দেয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছে বিএনপি সিলেটের অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা। তৃণমূলের সব পর্যায়ের নেতাকর্মী আরিফকে প্রত্যাখ্যান করার পরও দলের সমর্থন দেয়ায় তারা বিস্ময় প্রকাশ করেছেন।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে সিলেট বিএনপির কয়েকজন নেতা বলেন, আরিফের কর্মকা-ে সিলেট বিএনপি ও সাঈফুর রহমানের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয়েছিল। তার অন্যায় অপকর্ম দুর্নীতি ও ক্ষমতার দাপটের কারণে সর্বশেষ সংসদ নির্বাচনে সিলেটে ভরাডুবি হয়েছিল বিএনপির। আরিফের দুর্নীতি ও ক্ষমতার অপব্যবহার এবং স্বেচ্ছাচারিতার জন্য সাইফুর রহমানের মতো প্রার্থীকেও নির্বাচনে হারতে হয়েছিল। বর্তমান সরকারবিরোধী আন্দোলনেও আরিফ ছিলেন নিষ্ক্রিয়। বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও সিলেট জেলা সভাপতি এম. ইলিয়াস আলী নিখোঁজ হওয়ার পর তাকে ফিরে পাওয়ার দাবিতে চলমান আন্দোলনেও আরিফ রহস্যজনক ভূমিকা পালন করেন। এরকম একজন বিতর্কিত ব্যক্তিকে প্রার্থী মনোনীত করায় অনেক নিবেদিতপ্রাণ নেতাকর্মীই সিটি নির্বাচনে নিষ্ক্রিয় হয়ে পড়বেন। এতে ভোটের ফলাফলে বিরূপ প্রভাব পড়তে পারে।

এদিকে, দলের মনোনয়ন পাওয়ার পর আরিফুল বলয় আর জামায়াত-শিবিরের দীর্ঘসূত্রতা অনেকটা স্পষ্ট হয়ে উঠেছে বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্ট সূত্র। একাধিক সূত্রে জানা গেছে, জামায়াত-শিবিরের শীর্ষনেতাদের কঠোর দাবির প্রেক্ষিতেই আরিফুলকে দলের শীর্ষ নেতৃত্ব সমর্থন দিয়েছে। এ কারণে জামায়াতের মেয়র প্রার্থী কারান্তরীণ দলের মহানগর আমির অ্যাডভোকেট এহসানুল মাহবুব জুবায়েরের পক্ষে আগামীকাল তার মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে বলেও জানা গেছে। যদিও এর আগে জামায়াত তাদের সমর্থন নিয়ে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী ও এ ঘরানার ব্যবসায়ী নেতাদের সঙ্গে আপসরফার চেষ্টার গুঞ্জন ছিল। তাছাড়া বিএনপিতে বিভাজন সৃষ্টিতে জামায়াত অনেকটাই দায়ী বলে মনে করছেন দলের নেতাকর্মীরা। যে কারণে নেপথ্যে কলকাটি নেড়েছে জামায়াত। পাশাপাশি মেয়র পদে আরিফকে দল সমর্থন জানালে জামায়াত-শিবির পাশে থাকবে বলেও জানানো হয়।

এদিকে, গতকাল রাতে খালেদার সঙ্গে সাক্ষাতের আগে রাত ৮টা থেকে সিলেটের চার মেয়র প্রার্থীকে নিয়ে প্রথম দফায় প্রায় দু’ঘণ্টা বৈঠক করেন দলের স্থায়ী কমিটির অন্যতম সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন। ওই বৈঠকে দলের ভাইস চেয়ারম্যান শমসের মুবিন চৌধুরী ও সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. সাখাওয়াত হোসেন জীবন উপস্থিত ছিলেন। এ বৈঠকে আরিফুল ছাড়াও দলের অপর তিন প্রার্থী মহানগর বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি নাসিম হোসাইন, সাধারণ সম্পাদক আবদুল কাইয়ুম জালালী পংকি ও স্বেচ্ছাসেবক দলের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট সামসুজ্জামান তাদের বক্তব্য উপস্থাপন করেন।

উল্লেখ্য, গত সোমবার দলের ভাইস চেয়ারম্যান শমসের মুবিন চৌধুরী সিলেটে এসে সব প্রার্থীর সঙ্গে আলাদা কথা বললেও ঐকমত্যে পৌঁছাতে ব্যর্থ হন। এ অবস্থায় মেয়র পদে মনোনয়ন জমা দেয়া দলের চার নেতাকে ডেকে পাঠান বিএনপি প্রধান খালেদা জিয়া। মঙ্গলবার খালেদা জিয়ার পক্ষে তার উপদেষ্টা শামসুজ্জামান দুদু দলের চার প্রার্থীকে ঢাকায় তলব করেন। তবে আরিফুল কেন্দ্রের সম্ভাব্য সমর্থন পাওয়ার খবরে গত কদিন ধরে সিলেট জেলা ও মহানগর বিএনপিতে তোলপাড় সৃষ্টি হয়। ‘তৃণমূল বিএনপি’র ব্যানারে সংবাদ সম্মেলন করে আরিফুলকে বাদ দিয়ে অন্য তিন প্রার্থীর মধ্যে একজনকে সমর্থন দিতে কেন্দ্রের প্রতি আহ্বান জানানো হয়। এছাড়া তৃণমূল বিএনপির নামে নগরীতে আরিফুলের বিরুদ্ধে লিফলেটও বিলি করা হয়। মহানগর বিএনপি জরুরি সভা করে আরিফুলকে বাদ দিয়ে নাসিম, কাইয়ুম ও জামানের মধ্য থেকে একজনকে সমর্থন দেয়ার আহ্বান জানিয়েছিল।

শেয়ার করুন