রাজশাহী সিটি করপোরেশন নির্বাচন, ১০৪ ভোটকেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ, থাকবে চার স্তরের নিরাপত্তা

0
100
Print Friendly, PDF & Email

জিয়াউল গনি সেলিম, রাজশাহী থেকে: আসন্ন রাজশাহী সিটি করপোরেশন নির্বাচনে নির্ধারিত ১৩৭টি ভোটকেন্দ্রের মধ্যে ১০৪টিকে ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। এর মধ্যে বোয়ালিয়া থানার ৬১টি, রাজপাড়া থানার ২৫টি, মতিহার থানার ১০টি এবং শাহ মখদুম থানায় ৮টি ঝুঁকিপূর্ণ ভোটকেন্দ্র রয়েছে। এদিকে, শান্তিপূর্ণভাবে নির্বাচন করতে নগরীতে চারস্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছে নির্বাচন কমিশন।
মহাননগর পুলিশ কমিশনার এসএম মনির-উজ-জামান জানান, রাসিক নির্বাচনে ভোটগ্রহণের দিন ভোটারদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ভোট কেন্দ্রগুলোকে দুই ভাগে ভাগ করা হয়েছে। নির্ধারিত ১৩৭টি ভোটকেন্দ্রের মধ্যে ১০৪টি গুরুত্বপূর্ণ এবং ৩৩টি সাধারণ ভোটকেন্দ্র হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। যার মধ্যে বোয়ালিয়া থানার ৬১টি ভোটকেন্দ্র গুরুত্বপূর্ণ ও ১০টি সাধারণ, রাজপাড়া থানার ২৫টি গুরুত্বপূর্ণ ও ১৮টি সাধারণ, মতিহার থানার ১০টি গুরুত্বপূর্ণ ও পাঁচটি সাধারণ এবং শাহ মখদুম থানার ৮টি ভোটকেন্দ্রকেই গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে নির্ধারণ করা হয়েছে। নগরীতে এবার মোট ভোটারের সংখ্যা ২ লাখ ৮৬ হাজার ৯১৭।
এদিকে, শান্তিপূর্ণ পরিবেশে নির্বাচন সম্পন্ন করতে প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে মহানগর পুলিশ। নির্বাচনের আগে থেকে শুরু করে নির্বাচনের পর পর্যন্ত যে কোন ধরনের বিশৃঙ্খলা এড়াতে বিশেষ পরিকল্পনাও গ্রহণ করা হয়েছে।
পুলিশ কমিশনার জানান, গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে বিবেচিত ভোটকেন্দ্রগুলোতে একজন ওসি, একজন এসআইও এএসআইয়ের সঙ্গে থাকবেন ১০ জন করে কনস্টেবল। অপরদিকে, সাধারণ ভোটকেন্দ্রগুলোতে এসআই ও এএসআইয়ের সঙ্গে থাকবেন ৮জন করে কনস্টেবল থাকবে। ভোটগ্রহণের দিন নগরীতে মোতায়েন থাকবে ৩০টি মোবাইল টিম। ১১ সদস্যবিশিষ্ট মোবাইল টিমগুলো পুরো নগরীতে টহল দেবে। ৩০টি মোবাইল টিমের সঙ্গে থাকবেন ২০ জন ম্যাজিস্ট্রেট। তবে ম্যাজিস্ট্রেটের সংখ্যা আরও বাড়ানো হতে পারে।
তিনি আরও জানান, ভোটগ্রহণের দিন নগরীতে যে কোন বিশৃঙ্খলা এড়াতে নগরীর ৪টি থানায় থাকবে ৮টি স্ট্রাইকিং রিজার্ভ। এর সদস্যসংখ্যা হবে ২০ জন করে। এছাড়া নগরীর তালাইমারী, লক্ষ্মীপুর, রেলগেট, সিটি বাইপাস, আমচত্বর, কাশিয়াডাঙ্গা মোড়সহ গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টগুলোতে বসানো হবে ৯টি চেকপোস্ট। যার প্রতিটিতে থাকবেন ১১ জন করে সদস্য। নির্বাচনে শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখার জন্য নগর পুলিশের একটি সেলও গঠন করা হয়েছে।
অপরদিকে, পুলিশের পাশাপাশি ভোটকেন্দ্রের নিরাপত্তার জন্য আনসার ভিডিপি সদস্যরাও দায়িত্ব পালন করবেন। আনসার ভিডিপি’র রাজশাহী জেলা কমান্ড্যান্ট সৈয়দ মোস্তাক হাসান জানান, নগরীর ১৩৭টি কেন্দ্রে আনসার ভিডিপি’র প্রায় ২ হাজার ২০০ জন সদস্য মোতায়েনের পরিকল্পনা রয়েছে।

শেয়ার করুন