৯০% মানুষ তত্ত্বাবধায়ক সরকার চায়

0
59
Print Friendly, PDF & Email

নির্বাচনকালীন সরকার, দেশের বর্তমান পরিস্থিতি এবং এই প্রেক্ষাপটে সরকারের গৃহিত পদক্ষেপের ভিত্তিতে সারাদেশে পরিচালিত এক জরিপে দেখা গেছে, নব্বই ভাগ মানুষই আগামী নির্বাচন নির্ধলীয় তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সম্পন্ন করার পক্ষে মত দিয়েছে। প্রথমআলো-কোয়েস্ট রিসার্স পরিচালিত জরিপে বেশিরভাগ উত্তরদাতাই দেশের বর্তমান পরিস্থিতিকে হতাশাব্যঞ্জক বলেছেন। জরিপে অংশ নেয়া অর্ধেক মানুষ বলেছে, দেশ অত্যন্ত খারাপ অবস্থার মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। বাকি অর্ধেকের মধ্যেও ৩৫ শতাংশ মানুষের ধারণা, দেশ খারাপ অবস্থা পার করছে। এতে দেখা যায়, মোট ৮৫ শতাংশ মানুষ দেশের অবস্থা খারাপ বলে মনে করছে। বিদ্যমান পরিস্থিতিতে সরকার কোন কার্যকর পদক্ষেপ নিতে পারেনি, এও তাদের হতাশার অন্যতম কারণ জরিপে উল্লেখ করা হয়েছে। প্রকাশিত জরিপে দেখা গেছে, অধিকাংশ মানুষ এ কথা মনে করছেন যে, যুদ্ধাপরাধের বিচারের দ্বিতীয় ও তৃতীয় রায় ঘোষণার পর পর উদ্ভূত পরিস্থিতি সরকার নিয়ন্ত্রণ করতে পারেনি। জামায়াতে ইসলামীর রাজনীতি নিষিদ্ধ করার বিপক্ষেও সংখ্যাগরিষ্ঠ মত পাওয়া গেছে। জরিপে দেখা যায়, ৬৪.৮% ভাগ মানুষ জামায়াত নিষিদ্ধের পক্ষে নন। জরিপটি পরিচালিত হয় দেশের ৩০টি জেলা শহর ও গ্রামের তিন হাজার প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের ওপর। আন্তর্জাতিক অপরাধ টাইব্যুনালের বিচারে কাদের মোল্লা ও দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর রায়  ঘোষণার পর সারা দেশে যে তীব্র হিংসাত্মক ঘটনা ঘটে, ৭৯ শতাংশ মানুষ মনে করে, সরকার তা সামলাতে পারেনি। জনমত জরিপে শাহবাগের গণজাগরণ মঞ্চের পক্ষে সমর্থন জানিয়েছে প্রায় এক-চতুর্থাংশ উত্তরদাতা। পক্ষান্তরে এর বিপক্ষে মত দিয়েছে অর্ধেকের সামান্য কিছু বেশি মানুষ। জরিপে দেখা গেছে, উল্লেখযোগ্য পরিমাণে প্রায় প্রতি পাঁচজনের একজন মানুষ গণজাগরণ মঞ্চের আন্দোলন সম্পর্কে জানে না। জরিপে আরও দেখা যায়, দেশের বেশির ভাগ মানুষ বিতর্কিত দলের সঙ্গে প্রধান রাজনৈতিক দলগুলোর সংস্রব ও সম্পর্ক অপছন্দ করে। অর্ধেকেরও বেশি উত্তরদাতা আওয়ামী লীগের সঙ্গে জাতীয় পার্টির এবং বিএনপির সঙ্গে জামায়াতে ইসলামীর জোটবদ্ধ থাকার বিপক্ষে। ৫৯ শতাংশ মানুষ মনে করেন, জাতীয় পার্টির সঙ্গে এবং ৫১ শতাংশ মানুষ বিএনপির সঙ্গে জামায়াতের সঙ্গে সম্পর্ক রাখা উচিত নয় বলে জরিপে মত দিয়েছেন। বিদ্যমান পরিস্থিতিতে সামরিক বাহিনী হস্তক্ষেপ করতে পারে কি না, এমন প্রশ্নের জবাবে পক্ষে-বিপক্ষে মানুষের মতামত প্রায় কাছাকাছি। এতে দেখা যায়, ৪১.৩% মানুষ বর্তমান পরিস্থিতিতে সামরিক হস্তক্ষেপের আশঙ্কা করেছে। তবে এর মধ্যেও কিছু বেশি সংখ্যক মানুষ মনে করে তেমন কোন আশঙ্কা নেই।

শেয়ার করুন