কিছু অপ্রিয় কথা

0
93
Print Friendly, PDF & Email

যখন বিভিন্ন পত্রপত্রিকা, বিশেষ করে প্রথম আলো পড়েবাংলাদেশের অপার সম্ভাবনার খবর জানতে পারি, তখন খুবই ভালো লাগেদেশকে নিয়েআশাবাদী হই এবং নিজেও অনেকটা বড় স্বপ্নচারী হয়ে যাইকিন্তু বর্তমানেবিরাজমান রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতায় ওই আশাবাদ ও স্বপ্ন ভেঙে চুরমার হয়ে গেছেএই ভয়ানক পরিস্থিতির পাশাপাশি আরও উদ্বেগের বিষয় হলো, যে দেশের পাবলিকপরীক্ষা, বিশেষ করে এসএসসি, এইচএসসি ও বিভিন্ন চাকরির নিয়োগ পরীক্ষারপ্রশ্নপত্র ফাঁস হয়ে যায়, সেই দেশের আইনের শাসন খুব স্বাভাবিক কারণেইপ্রশ্নসাপেক্ষ
যে দেশে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসহয়ে যায়, যেখানে শিক্ষক-শিক্ষিকা একটি শিশুকে মনস্তাত্ত্বিকভাবে শিক্ষাদেবেন, সেই দেশে কীভাবে অপার সম্ভাবনাগুলো টিকে থাকবেকেননা, আজকের শিশুআগামীকাল জাতিকে নেতৃত্ব দেবেসরকারের কাছে আবেদন জানাচ্ছি, অচিরেই যেন সবনিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস হওয়ার ব্যাপারে কঠোর পদক্ষেপ নিয়ে দেশকেঅবশ্যম্ভাবী ধ্বংস থেকে রক্ষা করা হয়
কিছুদিন আগে প্রথম আলোর সম্পাদকীয়কলামে প্রশ্ন তোলা হয়েছে, আমাদের গোয়েন্দা সংস্থাগুলো কেন কোনো অপ্রীতিকরঘটনার আগাম কোনো সংবাদ দিতে পারে না? আমি এর সঙ্গে একটু যোগ দিয়ে বলতে চাই, আমাদের দেশের প্রতিটি গুরুত্বপূর্ণ পদে নিয়োগের ব্যাপারে দলীয়করণ, স্বজনপ্রীতি ও কোটার ওপর জোর দেওয়া হচ্ছে; তাতে আমলাতান্ত্রিক গোষ্ঠী, আইনপ্রণেতা ও আইনের শাসকেরা মেধাশূন্য হয়ে যাচ্ছে, যাদের কাছ থেকে ভালোকিছু আশা করা যায় না
হাবীব, শিক্ষার্থী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

কলঙ্কমুক্ত হোক দেশ
একাত্তরেস্বাধীনতার জন্য যুদ্ধ হয়েছিল বলেই আজ আমরা নিজেদের স্বাধীন বাংলাদেশেরনাগরিক হিসেবে পরিচয় দিতে পারিযাঁদের আত্মত্যাগের বিনিময়ে আমরা আমাদেরদেশ-মাকে পেয়েছি, সেই বীর শহীদ ও বীরাঙ্গনাদের ঋণ কখনোই শোধ হওয়ার নয়আমরাচিরঋণী তাঁদের কাছেতবে যেসব মানুষ বাংলাদেশের স্বাধীনতা চায়নি এবংএকাত্তরে গণহত্যা, ধর্ষণ, লুণ্ঠন ও অগ্নিসংযোগের মতো নিকৃষ্ট মানবতাবিরোধীপাপাচারে লিপ্ত হয়েছিল, তাদের প্রাপ্য সাজাটুকু নিশ্চিত করার মাধ্যমে হয়তোকিছুটা হলেও দেশের প্রতি দায় শোধ করা হবে
আমরা হতে পারি ভিন্ন ভিন্নরাজনৈতিক দলের সমর্থক কিংবা একেক মতাদর্শে বিশ্বাসী; কিন্তু যে বিষয়গুলোরসঙ্গে দেশের স্বার্থ জড়িত, সেখানে আমাদের সবার কি একবিন্দুতে মিলিত হওয়াউচিত নয়? মানবতাবিরোধী অপরাধী সে যে-ই হোক কিংবা যে দলেরই হোক, তার বিচারচাই
কিন্তু খুবই অবাক হই, যখন দেখি, মানবতাবিরোধী অপরাধের বিচারেরশাস্তির রায় শুনে তাদের পক্ষে এ প্রজন্মের কিছু মানুষ পুরো দেশে ধ্বংসযজ্ঞচালিয়ে দেশকে পেছনের দিকে ঠেলতে চায়! আমরা কি তবে দেশকে কলঙ্কমুক্ত করতেচাই না? আমাদের ভুলে যাওয়া উচিত নয়, জন্মসূত্রেই আমরা দেশের কাছে ঋণী ওদায়বদ্ধতাই মানবতাবিরোধী অপরাধীদের বিচার না করতে পারলে হয়তো কখনোই বীরশহীদদের, তথা এ দেশের কাছে আমরা ক্ষমা পাব না
সাকিবুল হাসান
মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

পুলিশের নিরাপত্তা
আমরাযারা পুলিশ বিভাগে চাকরি করি, আমাদের নিয়ে কেউ ভাবে নাভাবার চেষ্টাও করেনাআমরাও যে মানুষ, এ কথা কেউ ভাবে নাগত ১৬ এপ্রিল প্রথম আলোয় পুলিশেরনিরাপত্তা দেবে কেশিরোনামে তুহিন ওয়াদুদের একটি লেখা ছাপা হয়লেখাটিপড়ে মনে শান্তি পেলাম যে আমাদের নিয়ে একজন ব্যক্তি হলেও চিন্তা করেনআমার এলেখাটির উদ্দেশ্য হলো, তুহিন ওয়াদুদের প্রতি আমার ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতাপ্রকাশ করা
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক
একজন পুলিশ কনস্টেবল

বোনাস বৃদ্ধি
সরকারপেনশন, মাসিক চিকিসা ভাতাসহ সমর্পিত অর্থের ভিত্তিতে দুই ঈদে দুটি বোনাসদিয়ে আসছেওই বোনাসের অঙ্ক ১০-১৫ বছর আগে যা ছিল, এখনো একই অবস্থায় আছেযদিও ইতিমধ্যে দ্রব্যমূল্য কয়েক গুণ বৃদ্ধি পেয়েছেযার ফলে এ টাকারক্রয়ক্ষমতা নগণ্য পর্যায়ে চলে এসেছেবলা বাহুল্য, অপেনশনধারীদের অধিকাংশইপীড়িত ও অসহায় অবস্থায় মানবেতর জীবনযাপন করতে বাধ্য হচ্ছেনঅপরদিকেপেনশনভোগীদের মাসিক পেনশন ও বোনাসের পরিমাণ প্রতি পে-স্কেলে বাড়ানো হয়েছে, যা যুক্তিযুক্ত
এ অবস্থায় সরকারের কাছে আকুল আবেদন, প্রজাতন্ত্রের এসবঅসহায় পেনশন সমর্পণকারীদের বোনাসের পরিমাণ দ্বিগুণ বৃদ্ধি করে অন্তত একটুস্বস্তিতে ঈদ উদ্যাপন করার সুযোগ করে দেবেন
মোজাম্মেল হক
অবসরপ্রাপ্ত ব্যাংকার, খিলগাঁও, ঢাকা

জবির ক্যাফেটেরিয়া
জগন্নাথবিশ্ববিদ্যালয়ের অবকাশ ভবনের নিচতলায় অবস্থিত ক্যাফেটেরিয়ায় প্রতিদিনহাজার হাজার শিক্ষার্থী খাওয়া-দাওয়া করেনসম্প্রতি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনক্যাফেটেরিয়ার দায়িত্বভার গ্রহণ করে এটি পরিচালনা করছেফলে খাবারের দামকমায় শিক্ষার্থীরা বেশ আনন্দিতকিন্তু ক্যাফেটেরিয়ায় শিক্ষার্থীদের বসারপর্যাপ্ত চেয়ার নেই; ফলে অনেক সময় দাঁড়িয়ে খাবার খেতে হয়
তা ছাড়া পানিপান করার জন্য পর্যাপ্ত জগ ও গ্লাস নেই; এতে অধিকাংশ সময়ই পানি পান করতেগিয়ে দীর্ঘক্ষণ দাঁড়িয়ে থাকতে হয়তাই শিক্ষার্থীদের সুযোগ-সুবিধার কথাবিবেচনা করে ক্যাফেটেরিয়ায় বসার জন্য পর্যাপ্ত চেয়ার এবং পানি পান করারজন্য জগ ও গ্লাস সরবরাহ করতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের প্রতি বিনীত অনুরোধজানাচ্ছি
মো. মাহফুজুর রহমান
জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা

 

শেয়ার করুন