ঝড় বইছে মেসির ছোঁয়ায় বার্সা পার

0
112
Print Friendly, PDF & Email

অনুভূতিটা তাঁর কাছে ছিল একটু অচেনাবেঞ্চে বসে বারবার দাঁতে নখ কাটছিলেন, মুখে রাজ্যের বিষণ্নতাবোঝাই যাচ্ছিল, মনের মধ্যে ঝড় বইছেদলকে এভাবে খাবি খেতে দেখার অভিজ্ঞতাও তো লিওনেল মেসির জন্য বিরলকিন্তু মাঠে নামার মতো শারীরিক সক্ষমতা প্রশ্নবিদ্ধ ছিল বলেই তিনি অতিরিক্ত তালিকায়! বার্সেলোনা গোল খাওয়ার পর আর তর সইল না, জুতার ফিতা বাঁধতে শুরু করলেনগোটা ন্যু ক্যাম্পে শব্দ প্রপাত ঘটিয়ে নামলেন ৬৩ মিনিটে এবং হঠা জাদুমন্ত্রে বদলে গেল গোটা দলগোল পাননি, কিন্তু বার্সেলোনার রক্ষাকবচ গোলটার মূল কারিগর তিনিইবলতেই হচ্ছে, অর্ধেক ফিট মেসির জন্যই বার্সেলোনা এখন চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ চারেতা-ও আবার ইতিহাসের প্রথম ক্লাব হিসেবে টানা ছয়বারের মতো
বার্সেলোনাকে ভয়ই ধরিয়ে দিয়েছিল প্যারিস সেন্ট জার্মেই (পিএসজি)নিজেদের মাঠে আগের লেগটা ২-২ গোলে ড্র করার পর ন্যু ক্যাম্পে অসাধারণ কিছুই করতে হতো ফ্রেঞ্চ ক্লাবটিকেসেই পথে অনেক দূর গিয়েছিলও, ৫০ মিনিটে হাভিয়ের পাস্তোরের গোলে এগিয়ে গিয়েছিল পিএসজিইএর পরই মেসি নামলেন, আর পেদ্রো সমতা ফেরালেন বার্সার হয়েশেষমেশ ১-১ গোলে ড্র করার পর দুই লেগ মিলে স্কোর দাঁড়াল ৩-৩পিএসজির মাঠে দুই গোল করার সুবাদে বার্সেলোনার ভাগ্যেই শিকে ছিঁড়ল
মেসি কি নামছেন?’—ম্যাচের আগে আকাশে-বাতাসে ধ্বনিত প্রশ্ন ছিল এটাইআগের লেগেই হ্যামস্ট্রিংয়ে চোট পেয়ে মাঠ ছেড়েছিলেনলা লিগায় মায়োর্কার সঙ্গে ম্যাচটায় তাই নামেননিপুরো ফিট ছিলেন না বলে তাঁকে ছাড়াই প্রথম একাদশ সাজাতে বাধ্য হন কোচ টিটো ভিলানোভাকিন্তু তাঁর অনুপস্থিতি ভীষণভাবেই টের পাওয়া যাচ্ছিল শুরু থেকেইমেসির জায়গায় নেমে ফ্যাব্রিগাস শুরু থেকেই ছিলেন ম্রিয়মাণসব সময়ের নির্ভরযোগ্য বুসকেটসও মাঝমাঠে বলের দখল হারাচ্ছিলেনচোট-জর্জর রক্ষণটাও ছিল নড়বড়েআগের শনিবার মেসিবিহীন এই দলটাই না মায়োর্কাকে ৫-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে? বিস্মিত ন্যু ক্যাম্পের এক লাখ দর্শক, তাঁরা বসে ছিলেন নিঃশ্বাস চেপে!
উল্টো দিকে পিএসজি শুরু থেকেই পাল্টা আক্রমণে ছিল দারুণ ক্ষুরধারভালদেজ বাধা হয়ে না দাঁড়ালে এগিয়ে যেতে পারত প্রথমার্ধেইতাদের কাঙ্ক্ষিত মুহূর্তটা এল বিরতির পাঁচ মিনিট পরপাল্টা আক্রমণ থেকেইইব্রাহিমোভিচের দুর্দান্ত থ্রু বলে বাঁ পায়ে লক্ষ্যভেদ করলেন আর্জেন্টাইন মিডফিল্ডার পাস্তোরেন্যু ক্যাম্প তখন নিথরএরপর মেসি নামলেন ৬২ মিনিটেবোঝাই যাচ্ছিল, পুরো ফিট ননকিন্তু তাতে কী, ছন্নছাড়া বার্সা জিয়নকাঠির ছোঁয়া পেল তাতেই! নিচে থেকে বল ধরে দিলেন একটা দৌড়, নিখুঁত পাস দিলেন ভিয়াকেভিয়া সেটা পেছনে ঠেললেন পেদ্রোকেতৈরিই ছিলেন পেদ্রোবাঁ পায়ের গোলার মতো শট পিএসজি পোস্টের ডান কোনা দিয়ে ঢুকল জালেমজার ব্যাপার, মেসি নামার আগে একটাও গোলমুখী শট নিতে পারেনি বার্সা!
বড় খেলোয়াড়েরা দলকে কীভাবে অনুপ্রাণিত করেন, সেটাই দেখালেন মেসিফল-টল বাদ দিয়ে মেসি-বন্দনায় যে সবাই মাতবে, সেটা আর বিচিত্র কী! জেরার্ড পিকে যেমন বলে দিলেন আসল কথাটাই, ‘আমরা বিশ্বের সেরা খেলোয়াড় নিয়ে কথা বলছিসে একটু চোটগ্রস্ত থাকলেও সবকিছু বদলে দিতে পারেওর উপস্থিতিই আমাদের জন্য অনেক
সহকারী কোচ জর্ডি রৌরার কণ্ঠেও একই সুর, ‘ব্যাপারটা এমন ছিল, যদি সবকিছু ঠিকঠাক না যায়, তাকে (মেসিকে) আমরা নামিয়ে দেবসে আবার দেখাল দলের জন্য তার আত্মনিবেদন কতটুকুওর জন্য আমাদের টুপি খুলতেই হচ্ছে
ম্যাচটা জিততে না পারলেও পিএসজি মাঠ ছেড়েছে মাথা উঁচু করেইকোচ কার্লো আনচেলত্তি দলকে নিয়ে গর্ব করতেই পারেন, ‘জয়ের জন্য যা দরকার ছিল, তার সবই আমরা করেছিআমরা দারুণ খেলেছিখুব কাছাকাছিও চলে গিয়েছিলামএএফপি, ওয়েবসাইট

 

( ১২ এপ্রিল/২০১৩) নিউজরুম।

 

শেয়ার করুন