কাল খেললেন স্বাধীনতা দিবস টুর্নামেন্টে

0
104
Print Friendly, PDF & Email

লেখাপড়া করছেন ফ্যাশন ডিজাইনেতবে বক্সিং রিংটা টানে তামান্না হককেহাতের চুড়ি খুলে তাই বক্সিং গ্লাভস পরে কাল খেললেন স্বাধীনতা দিবস টুর্নামেন্টেপ্রথমবার রিংয়ে নেমেই ৫০ কেজি ওজন শ্রেণীতে হয়েছেন রানারআপসামনে আরও খেলতে চান বক্সিংজানালেন নিজের পরিকল্পনা
 প্রথমবারের মতো বক্সিং রিংয়ে নেমেই রানারআপতা কী মনে করে বক্সিংয়ে এলেন?l
তামান্না হক: বক্সার হওয়াটা স্বপ্ন দেখি আমিসুযোগ ছিল না বলে এত দিন আসতে পারিনিএখন সুযোগ হয়েছেতবে আজ প্রথম নেমে এতটা ভালো করব, ভাবিনিপ্রথমে একটু ভয় লাগছিলরিংয়ে নামার পর ভয় কেটে গেছে
 কত দিন অনুশীলন করেছেন?l
তামান্না: গত ডিসেম্বর থেকে অনুশীলন করছিধানমন্ডি থেকে পল্টনে আসতে একটু কষ্ট হয়আবার মাঝে কিছুদিন পরীক্ষা ছিলকিছুদিন আগে জ্বর হয়েছিলএখনো আমার শরীর দুর্বলতার পরও এই শরীর নিয়ে খেললাম
 মেয়েদের বক্সিং টুর্নামেন্ট হয় না বললেই চলেফেডারেশনের কাছে আপনার চাওয়া কী?l
তামান্না: নিয়মিত মেয়েদের বক্সিং টুর্নামেন্ট হোক, এটাই চাওয়াটুর্নামেন্ট বেশি বেশি হলে আমরা খেলতে পারবফেডারেশনের নতুন সাধারণ সম্পাদক বলেছেন, আমাদের খেলার ব্যাপারে অনেক সাহায্য করবেন
 ফুটবল-ক্রিকেটে অনেক মেয়ে খেলছেকিন্তু বক্সিংয়ে মেয়েরা আসে নাআপনাকে দেখে অন্যরা কিছু বলে না?l
তামান্না: হয়তো অন্য মেয়েরা ভয় পায় বক্সিংয়ে আসতেবক্সিং করলে নাক-টাক না ফেটে যায়! চেহারা নষ্ট হয়ে যায়! কিন্তু রিংয়ে ঢুকলে বোঝা যায়, ব্যাপারটা অত সিরিয়াস নয়এটা শুধু একটা খেলাইরেসলিংয়ের মতো এখানে ভয়ের কিছু নেইতাই বলব, মেয়েদের এই খেলায় আসা উচিতযদি এভাবে টুর্নামেন্ট হয়, প্রচার আসে এবং ফেডারেশন আরও উদ্যোগ নেয়, তাহলে অবশ্যই মেয়েরা বক্সিংয়ে অনেক ভালো করবে
 পরিবারের লোকজন আপনার বক্সিংয়ে আসাটা কীভাবে নিয়েছেন?l
তামান্না: শুরুতে কেউ সমর্থন করেনিসবাই বলত, মেয়েরা বক্সিং খেলে নাতুমি একা কী করছ না-করছ? তবু আমার একটা আত্মবিশ্বাস ছিল, কিছু একটা করতে পারবএখন আমার পরিবারের সবাই খুশি
 অনুশীলন করেন ছেলেদের সঙ্গেকোনো অস্বস্তি লাগে না?l
তামান্না: যেহেতু কোনো মেয়ে বক্সার নেই, তাই এখন ছেলেদের সঙ্গেই অনুশীলন করতে হবেমেয়ে বলে লজ্জা পাব, অনুশীলন করব না, সেটা ঠিক নয়লজ্জা পেলে কখনো কিছু শিখতে পারব নাআমি সব সময়ই নিজেকে বক্সার ভাবিএখানে কে ছেলে, কে মেয়ে, মাথায় রাখি না
 নিজেকে ভবিষ্যতে কোথায় দেখতে চান?l
তামান্না: নিজেকে এমন জায়গায় নিয়ে যেতে চাই, যেন দেশে বা দেশের বাইরের মানুষ বলে, এ দেশের মেয়েরা বক্সিংও পারেআমরাও যে পারি, সেটা দেখিয়ে দিতে চাই

 

(২৭ মার্চ/২০১৩) নিউজরুম।

 

শেয়ার করুন