জয়পুরহাটে হাসিনার উদ্যেশে খালেদা বলেছেন,যেখানেই পালান খুঁজে এনে বিচার করা হবে

0
102
Print Friendly, PDF & Email

পাচবিবি (জয়পুরহাট) থেকে: দেশের প্রতিটি খুনের খতিয়ান বিএনপির কাছে রাখা আছে বলে মন্তব্য করে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিচারের ঘোষণা দিয়েছেন বিরোধী দলীয় নেতা ও বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া।

তিনি বলেছেন, “প্রতিটি খুনের হিসাব নেওয়া হবে। বাংলার মাটিতে আপনার বিচার হবে। পালিয়ে যাবেন? কোথায় যাবেন? পৃথিবীর যে প্রান্তেই থাকুন না কেন খুঁজে এনে বিচার করা হবে।”

রোববার জয়পুরহাটের পাঁচবিবির শালাইপুর স্কুল মাঠে নির্মিত শোকসমাবেশ মঞ্চে দেওয়া  বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন।

এ মঞ্চ থেকেই হরতালের সহিংসতায় নিহতদের ৬ পরিবারকে এক লক্ষ করে টাকা আর্থিক সহায়তা দেন বিএনপি চেয়ারপারসন।

তিনি বলেন,  “আর যদি জনগণের উপর অত্যাচার করা হয়, গুলি করা হয়। তবে তার পরিণতি হবে ভয়াবহ।”

পুলিশকে উদ্দেশ্য করে তিন বলেন, “জনগণের উপর আপনারা আর গুলি করবেন না।”

জনগণকে উদ্দেশ্য করে খালেদা জিয়া বলেন, “আপনারা রক্ত দিয়েছেন আমরা জানি। ভয় পাবেন না। এ সরকার আর কিছুই করার ক্ষমতা রাখে না।”

তিনি বলেন, “আমরা আগে ঢাকায় কর্মসূচি দিয়েছিলাম। কিন্তু রাস্তাঘাট, হোটেল সব কিছু বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। আমরা আবারো কর্মসূচি দেবো। আপনারা এবার সরকারের পতন ঘটিয়ে ঘরে ফিরবেন।”

এ সরকারের কাছে মুসলমান, হিন্দু, খ্রিস্টান, বৌদ্ধ কোন ধর্মের মানুষ নিরাপদ নয় অভিযোগ করে খালেদা জিয়া বলেন, “তারা রামু, উখিয়া, মুন্সীগঞ্জে মন্দিরে হামলা চালিয়েছে। এ সরকার দাড়ি-টুপি দেখলে নির্যাতন করে। কুকুরের মাথায় টুপি পরিয়ে এ সরকারই দাড়ি-টুপিকে অপমান করেছিল।”

এখানকার সমাবেশ শেষ করে বগুড়া সার্কিট হাউসের পথে রওয়ানা হন খালেদা জিয়া। সেখানে দুপুরের বিরতি ও বিশ্রাম শেষে প্রথমে গাবতলী ও পরে শাহজাহানপুরে শোকসভায় বক্তৃতা করবেন খালেদা। উভয় স্থানেই হরতালে নিহতদের আর্থিক সহায়তা দেবেন তিনি। এরপর ঢাকার ফিরতি পথ ধরবেন বিএনপি চেয়ারপারসন। গত শনিবার রাতে তিনি ঢাকা থেকে এসে সার্কিট হাউসে অবস্থান নেন। রোববার বেলা ১১টার পর শুরু করেন দিনব্যাপী কর্মসূচি।

 মার্চ ২৪, ২০১৩

শেয়ার করুন