কুয়াশার মুশায়েরা

0
129
Print Friendly, PDF & Email

যখন দেখা হয় শহরে তোমার সাথে, দূরে চলে যাও নিসর্গ ভালোবেসে

গ্রামনিসর্গের মধ্যে দেখা হয়, তুমি মুখ ফিরিয়ে উল্টো পথে হাঁটা দাও

হাতে হাত রেখে আমি জুড়ে দিই ভালোবাসার আলাপ
তুমি কোলাহল ছেড়ে পা বাড়াও তোমার নির্জন হুজরাখানার দিকে

আমি জ্বালাই অযুত মোমবাতি, তুমি দুপা মুড়ে বসো তোমার কান্নার ভেতর

মেষপালকের বিনয় দুচোখে নিয়ে বলি তোমাকে, আমাকে বাঁচাও
তুমি দীর্ঘ করাঙুলে খুঁটতে থাকো তোমার গা-ঘষা বিড়ালের পিঠ

তোমাকে নিই আমার বাহুর ভেতরে,
সূর্য পেখম মেলে আমার পেছনে ময়ূরীর মতো

আমি হাঁটু মুড়ে বসি ফুলবাগানের ভেতর,
তুমি তখন তারাদের জ্যামিতি নিয়ে মুখর

আমি পাগলের মতো আঁচড়াতে থাকি মাটি, তুমি গোলাপকুঞ্জে মুখ লুকাও

মোমের আলোতে বসে ঠিক করি পরবর্তী কৌশল,
তুমি কাঁপতে থাকো মানিপ্ল্যান্টের মতো

ওয়েটারের আপাতনিস্পৃহ চোখের নিচে তুমি সুড়ুত করে মুছে যাও
টেবিল থেকে

তোমাকে পাকড়াও করি রামপুরায়, টিভি সেন্টারের সামনে
তুমি খবরের কাগজ বোঝাই লরিতে উঠে তবলিগে চলে যাও

তোমার মতো দীর্ঘাঙ্গিনী কাউকে দেখলেই আমি বাস থেকে নেমে পড়ি
তুমি বারান্দার রেলিংয়ে হেলান দিয়ে আমার পাগলামিকে তুলাধোনা করো

স্টক এক্সচেঞ্জের সামনে দাঁড়িয়ে আমি চিকার করি সেল’ ‘সেল
তুমি তোমার গাড়ির জানালা খুলে ভিখিরির সাথে জুড়ে দাও গল্প

আমি পাতার ঠোঙায় ঝরা ফুল নিয়ে তোমার পেছনে দৌড়াই
তুমি ততক্ষণে পেরিয়ে গিয়েছ নক্ষত্রবীথিকা

আমি জঙ্গলে বসি কাঁদিতুমি ঘুরে দাঁড়াও বাঘিনীর মতো নির্বিকার

আমি বসি মোরাকাবায়তুমি আরশিতে লাগাও আলকাতরার পোঁচ

আমি তোমার ডিজিটাল ছবি তুলে ছড়িয়ে দিই আয়োনোস্ফিয়ারে
তোমার ভাবান্তর নেই

হুডখোলা রেসিংকারে তোমার বাড়ির চাদ্দিকে চক্কর লাগাই
তুমি ফেরিওয়ালার সাথে আপেলের দরদাম নিয়ে ব্যস্ত

মেলার হট্টগোলের মধ্যে আমি বসে বাজাই আমার এসরাজ
তোমার কানেই পৌঁছায় না

সার্কাসে একসাথে দুই ঘোড়ায় পা রেখে ঘুরে আসি চক্ররেখা
তোমার ঠোঁটের কোনায় হাসির আভাস

আমার মাথা ঘিরে জ্যোতিশ্চক্র এবং তিন শ বৃশ্চিকের দাঁড়া সমুদ্যত
তুমি আঙুল দিয়ে স্পর্শ করো আমার উদ্গত জিহ্বাকে

আমি আগুন খেয়ে অঙ্গারের ঢেকুর তুলি তুমি সিঁড়ি বেয়ে
পাতালে নেমে যাও

আমি দগ্ধ বাহু দিয়ে আগলাই তোমার যাওয়ার পথ
তুমি পুলিশে খবর দাও

মৃতেরা সব দলবেঁধে আসে যখন আমার ফুসফুস ঘিরে জমছে কুয়াশা

শেষ মুহূর্তে চকিতের জন্য দেখি ঝুঁকে আছে তোমার মুখ

আমার হূপিণ্ডে চলে কুয়াশার মুশায়েরাতোমার নামের জিকির

আমি ততক্ষণে পিষ্ট ঝরা ফুলতোমার অশ্রুতে ভেজে আমার কাফন

২০ মার্চ/২০১৩/নিউজরুম.

শেয়ার করুন