‘শামীম ওসমানরাই ত্বকীকে হত্যা করেছেন’: অভিযোগ পিতার

0
155
Print Friendly, PDF & Email

নারায়ণগঞ্জ: ‘‘শামীম ওসমান ও তার পরিবারই ত্বকী হত্যার সঙ্গে সম্পৃক্ত। নারায়ণগঞ্জে সন্ত্রাস নির্মূলে গঠিত ‘সন্ত্রাস নির্মূল ত্বকী মঞ্চ’ শহরে টর্চার সেলের ব্যাপারটি জনসম্মুখে জানাবে।’’

সোমবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলন করে এ মঞ্চের আহবায়ক রফিউর রাব্বি এ অভিযোগ করে বলেন, ‘‘ত্বকীকে হত্যার মূল কারণ আমি। বিভিন্ন সামাজিক প্রতিবাদমূলক কাজ করায় আমার ওপর প্রতিশোধ নিতেই ত্বকীকে হত্যা করা হয়েছে। যুদ্ধাপরাধীদের বিরুদ্ধে আন্দোলন করছি। এ আন্দোলন একটি গোষ্ঠী ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। শামীম ওসমান ও তার পরিবারই ত্বকী হত্যার সঙ্গে সম্পৃক্ত।’’

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে রাব্বি বলেন, ‘‘ত্বকীর মতো আমরা আর কোনো সন্তানের লাশ আমরা দেখতে চাই না। খুনিদের হাত থেকে আমাদের সন্তানদের রক্ষা করা আমাদের দায়িত্ব। তাই নারায়ণগঞ্জ থেকে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড ও হত্যা চিরতরে নির্মূল করতেই সন্ত্রাস নির্মূল ত্বকী মঞ্চের জন্ম। এ সংগঠনের কাজ অব্যাহত থাকবে।’’

‘সন্ত্রাস নির্মূল ত্বকী মঞ্চ’ ত্বকী হত্যার ঘটনায় বিভিন্ন ধরনের কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। এর অংশ হিসেবেই সোমবার সকালে নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনটি অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়া বিকেলে সারাদেশের মতো চাষাঢ়ায় উদীচীর উদ্যোগে প্রতিবাদী সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে।

অন্য কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে ২০ মার্চ বুধবার সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) নারায়ণগঞ্জ শাখার উদ্যোগে নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন, ২১ মার্চ বৃহস্পতিবার প্রেসক্লাবের সামনে খেলাঘর আসরের শিশু অবস্থান, ২২ মার্চ শুক্রবার সিপিবি ও বাসদের সমাবেশ ইত্যাদি।

সংবাদ সম্মেলনে রাব্বি আরও বলেন, ‘‘স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পুলিশের এক কর্মকর্তাকে ডেকে নিয়ে চাপ দেওয়া হয়েছে। উপরের মহলের চাপ থাকলে পুলিশ সততা নিয়ে কাজ করতে পারবে কিনা তা নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে। পুলিশ প্রভাবমুক্ত ও শঙ্কামুক্ত থাকলে দ্রুত কাজ করতে পারবে।’’

স্বররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে যোগাযোগের কথা অস্বীকার করে রফিউর রাব্বি বলেন, ‘‘কোনো কোনো দিক থেকে যোগাযোগ হতে পারে। আমার পক্ষ থেকে কোনো যোগাযোগ করা হয়নি। তবে স্বররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আগে যে অবস্থানে ছিল, এখন সে অবস্থানে নেই বলেই আমি জানি।’’

নারায়ণগঞ্জের টর্চার সেল সম্পর্কে প্রশ্নের জবাবে রাব্বি বলেন, ‘‘নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার সাংবাদিকদের কাছে বক্তব্য দিয়েছেন যে, তিনি নারায়ণগঞ্জে টর্চার সেল সম্পর্কে কিছু জানেন না। তাই নারায়ণগঞ্জের কোথায় কোথায় টর্চার সেল রয়েছে, তা ত্বকী মঞ্চের সভা থেকে জানিয়ে দেওয়া হবে।’’

ত্বকীর বাবা বলেন, সারাদেশ নয়, ‘‘শুধুমাত্র নারায়ণগঞ্জে যে কোনো সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে ত্বকী মঞ্চ আন্দোলন গড়ে তুলবে।’’

আরেক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘‘বেনাপোল দিয়ে খুনিরা যে পালিয়ে গেছেন, তারা কারা বা তাদের নাম কি এই মুহূর্তে বলা যাবে না। এতে তদন্ত কাজে বাধাগ্রস্ত হবে।’’

আইনজীবীদের সঙ্গে আলোচনা করে শিগগিরই ত্বকী হত্যা মামলায় আসামিদের নাম উল্লেখ করে সম্পূরক এজাহার দায়ের করা হবে বলেও রাব্বি সাংবাদিকদের জানান।

ত্বকী হত্যা নিয়ে নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য এমপি নাসিম ওসমানের এক মন্তব্যের উদ্ধৃতি দিয়ে ত্বকীর বাবা রফিউর রাব্বি বলেন, ‘‘হত্যাকাণ্ডটি নিয়ে নারীঘটিত সহ বিভিন্ন কারণ ও বা গুজব ছড়ানো হবে। তবে প্রশাসনসহ জেলার সাধারণ মানুষ এসব কথা বিশ্বাস করবে না বলে আমি মনে করি।’’

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন, নারায়ণগঞ্জ নাগরিক কমিটির সভাপতি অ্যাডভোকেট এবি সিদ্দিক, সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান, নারায়ণগঞ্জ সাংস্কৃতিক জোটের সাবেক সভাপতি ভবানী শংকর রায়, খেলাঘর নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি রথিন চক্রবর্তী, জেলা সিপিবির সভাপতি হাফিজুল ইসলাম, জেলা বাসদের সভাপতি নিখিল দাস, ন্যাপ নেতা অ্যাডভোকেট আওলাদ হোসেন, সিপিবির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য শফিউদ্দিন আহম্মেদ, গণ সংহতি আন্দোলন জেলা শাখার সমন্বয়ক তরিকুল সুজন প্রমখ।

সন্ত্রাস নির্মূল ত্বকী মঞ্চ নামের সংগঠনটি ২০১ সদস্য বিশিষ্ট। এর আহবায়ক কমিটি নারায়ণগঞ্জের স্বাধীনতাকমী সকল রাজনৈতিক, সামাজিক, শ্রমিক, নারী, আইনজীবী, ছাত্র, সংস্কৃতিক সংগঠনের নেতা এবং সাংবাদিকদের নিয়ে গঠন করা হয়েছে।

 মার্চ ১৮, ২০১৩

শেয়ার করুন