তুলাচাষ লাভজনক

0
115
Print Friendly, PDF & Email

মাগুরায় আর্থিক লাভজনক হওয়ায় গত বছরের তুলনায় এ বছর ল্যমাত্রার তুলনায় বেশি জমিতে তুলাচাষ করেছেন জেলার কৃষকেরাজেলা তুলা উন্নয়ন অফিস সূত্রে জানা গেছে, চলতি মওসুমে জেলায় ৫০০ হেক্টর জমিতে তুলাচাষ হয়েছেআবহাওয়া তুলাচাষের জন্য উপযোগী হওয়ায় জেলায় এ বছর তুলার ফলন ভালো পাওয়া যাবে বলে জানিয়েছে জেলা তুলা উন্নয়ন বোর্ডচলতি মওসুমে জেলায় ৮০০ টন তুলা উপাদন হবে বলে আশা করছেন তারাগত বছর জেলায় ৪০০ হেক্টর জমিতে তুলাচাষ হয়েছিলএ বছর ১০০ হেক্টর বেশি জমিতে তুলাচাষ হয়েছেজানা গেছে, গত বছর তুলাচাষ করে আর্থিকভাবে লাভবান হওয়ায় এ বছর তারা অধিক জমিতে তুলাচাষ করেছেনশ্রীপুর উপজেলা টুপিপাড়া গ্রামের কৃষক মিটুল হোসেন বলেন, গত বছর তিনি এক একর জমিতে তুলাচাষ করে ২৫ মণ তুলা পেয়েছিলেন, যা থেকে তার আয় হয়েছিল প্রায় ৫৭ হাজার টাকাআর্থিক লাভবান হওয়ায় তিনি এ বছর তুলা উন্নয়ন বোর্ডের সহযোগিতায় দেড় একর জমিতে তুলাচাষ করেছেন, যা থেকে তিনি সাড়ে ৩৭ মণ তুলা পাবেন বলে আশা করছেন

 

একই গ্রামের কৃষক আবদুল হান্নান মিয়া এ বছর এক একর জমিতে তুলাচাষ করেছেন, যা থেকে তিনি ভালো ফলন পাওয়ার পাশাপাশি তুলা বিক্রি করে আর্থিক লাভবান হওয়ার আশা করছেন

 

কৃষকেরা আরো বলেন, তুলাচাষ সফল করার জন্য তাদের সহযোগিতা করছে জেলা তুলা উন্নয়ন বোর্ডবীজ থেকে শুরু করে মাঠ থেকে কৃষকের ঘরে তোলা পর্যন্ত এ সহযোগিতা করছেন জেলা তুলা উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তারাপ্রতি মণ তুলা কৃষকের কাছ থেকে দুই  হাজার ৩০০ টাকা দরে কিনবে তুলা উন্নয়ন অফিস

 

জেলা তুলা উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন মৃধা জানান, তুলা উপাদনের জন্য কৃষকের জমি তৈরি, বীজ রোপণ থেকে শুরু করে সব ধরনের সহযোগিতা অব্যাহত আছেআবহাওয়া অনুকূল থাকলে মাগুরা থেকে তুলার ভালো ফলন পাওয়া যাবে বলে আশা করা যায়।।

১৭ মার্চ, ২০১৩

শেয়ার করুন