নারীর পদচারণায় মুখর গণজাগরণ চত্বর

0
64
Print Friendly, PDF & Email

গণজাগরণ চত্বর : গণজাগরণ মঞ্চের পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী নারী জাগরণ সমাবেশে মিছিল নিয়ে শত শত নারী দল বেঁধে এসে যোগ দেওয়া শুরু করেছেন।

এদিকে, অন্যান্য সাধারণ নারীর মতোই পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডা. দীপু মনিও এসেছেন গণজাগরণ চত্বরে নারী জাগরণ সমাবেশে অংশ নিতে।

এসময় তিনি আন্দোলনে অংশ নিতে আসা অন্যান্য নারীদের সঙ্গে স্লোগান তুলে মুখরিত করে তোলেন গণজাগরণ চত্বর।

গত ২১ ফেব্রুয়ারি শাহবাগ গণজাগরণ চত্বরের সমাবেশ থেকে ৮ মার্চ ‘নারী জাগরণ সমাবেশ’-এর ঘোষণা দেওয়া হয়।

শুক্রবার বিকেল ৩টায় সমাবেশ শুরু হওয়া কথা থাকলেও শুক্রবার দুপুর ২টার পর থেকেই নারী জাগরণ মঞ্চে অবস্থান নিতে শুরু করেন বিভিন্ন শ্রেণি ও পেশার নারীরা।

এখন জাগরণ মঞ্চে চলছে গান, আবৃত্তি ও প্রতিবাদী স্লোগান।

মিডিয়া সেলের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, সাড়ে ৩টার পর‌ আনুষ্ঠানিকভাবে সমাবেশ শুরু হবে।

সমাবেশে শুধু মাত্র নারীরাই বক্তব্য দেবেন এদিন। কেবল কোনো ঘোষণা থাকলেই গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ডা. ইমরান এইচ সরকার তা জানাবেন।

উল্লেখ্য, জামায়াত নেতা কাদের মোল্লাসহ সব যুদ্ধাপরাধীর ফাঁসির দাবিতে শাহবাগের গণজাগরণ চত্বরের গণআন্দোলনের ৩২তম দিন শুক্রবার।

এ আন্দোলনের ঢেউ দেশের সীমানা ছাড়িয়ে পৌঁছে গেছে প্রবাসেও। নানা শ্রেণি-পেশার মানুষ এ দাবির সঙ্গে একাত্মতা ঘোষণা করছেন। প্রতিদিনই যেন বাড়ছে এ গণজোয়ারে আসা মানুষের সংখ্যা।

কাদের মোল্লার যাবজ্জীবন সাজার রায় প্রত্যাখ্যান করে গত ৫ ফেব্রুয়ারি বিকেলে শাহবাগ মোড়ে এ বিক্ষোভের সূচনা করে ব্লগার ও অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট নেটওয়ার্ক (বোয়ান)।

এরপর বিভিন্ন সংগঠনের নেতাকর্মীসহ সর্বস্তরের জনতা এ গণআন্দোলনে যোগ দেন। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত এ লড়াই চলবে বলেও ঘোষণা দিয়েছেন আন্দোলনকারীরা।

মার্চ ০৮, ২০১৩

শেয়ার করুন