৩০০ বছর আগে

0
85
Print Friendly, PDF & Email

২ মার্চ, ২০১৩, কৃষ্ণদাসকবিরাজের শ্রীশ্রী চৈতন্যচরিতামৃত, রাজা মহেন্দ্রলালের গোবিন্দ-গীতিকা বারসিকমোহন চট্যোপাধ্যায়ের ফলিত জ্যোতিষ কিংবা কৃষ্ণদ্বৈপায়নের কূর্ম্মপুরাণম্ ও অগ্নি পুরাণম্
এগুলো প্রকাশিত হয়েছিল আজ থেকে প্রায় ৩০০ বছরআগেএসব পুরোনো ও প্রায় বিলুপ্ত বইয়ের দেখা মিলবে জাতীয় জাদুঘরেবিশেষসংরক্ষণ ব্যবস্থায় এ ধরনের মোট ৬০৫টি দুর্লভ বই ১০ মার্চ পর্যন্ত দেখতেপারবেন আগ্রহীরা
গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় জাতীয় জাদুঘরের নলিনীকান্তভট্টশালী প্রদর্শনী কক্ষে এ প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আবুলকালাম আজাদ
উদ্বোধনের আগে আলোচনা অনুষ্ঠানে জাতীয় জাদুঘরের মহাপরিচালকপ্রকাশ চন্দ্র দাস জানান, প্রদর্শনীতে কমপক্ষে ৫০ বছরের পুরোনো ও দুর্লভ বইথেকে শুরু করে প্রায় ৩০০ বছরের বেশি পুরোনো বইও রয়েছেজাদুঘরের সংগ্রহেরবিপুলসংখ্যক দুর্লভ বই ও সাময়িকী থেকে নির্বাচিত কিছু বই প্রদর্শনেরব্যবস্থা করা হয়েছে

জাতীয় জাদুঘরের সুফিয়া কামাল মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত ওইআলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সংস্কৃতিমন্ত্রী আবুল কালাম আজাদবলেন, ‘জ্ঞান-বিজ্ঞান ও সভ্যতা-সংস্কৃতির আকর এসব দুর্লভ বই ও সাময়িকীরপ্রদর্শনী গবেষক, পাঠক ও দর্শকদের মনের খোরাক জোগাবেবাংলাদেশের অনেকেইহয়তো জানেন না এত সব পুরোনো ও গুরুত্বপূর্ণ বই দেশের জাদুঘরে রয়েছে
বাংলাদেশজাতীয় জাদুঘরের শততম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদ্যাপন উপলক্ষে দুই বছরব্যাপীঅনুষ্ঠানমালার অংশ হিসেবে দুর্লভ বই ও সাময়িকীর ১০ দিনব্যাপী এ প্রদর্শনীরআয়োজন করা হয়
বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর বোর্ড অব ট্রাস্টিজের সভাপতি এমআজিজুর রহমানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য দেন বিশেষ অতিথি ঢাকাবিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক এবং এশিয়াটিক সোসাইটিরসভাপতি নজরুল ইসলাম
প্রদর্শনীতে বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর গ্রন্থাগারের৪৩৪টি বই, আহসান মঞ্জিল জাদুঘরের ৫০টি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় গ্রন্থাগারের৫০টি, আর্কাইভস ও গ্রন্থাগার অধিদপ্তরের ৫১টি এবং এশিয়াটিক সোসাইটির ২০টিবই প্রদর্শন করা হচ্ছেপ্রদর্শনী সকাল ১০টা থেকে সন্ধ্যা সাতটা পর্যন্তখোলা থাকবে

 

 

 

শেয়ার করুন