জামায়াত-শিবির ‘হাত-পায়ের রগ কেটে ধর্ম প্রতিষ্ঠা করতে চায়?’

0
89
Print Friendly, PDF & Email

গণজাগরণ চত্বর থেকে: জামায়াত-শিবির হাত-পায়ের রগ কেটে, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে কোন ধরনের ধর্ম প্রতিষ্ঠা করতে চায়- প্রশ্ন তুলে তা নিয়ে সবাইকে সচেতন থাকার আহ্বান জানিয়েছেন সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের সভাপতি সাইফুজ্জামান।

বৃহস্পতিবার বিকালে শাহবাগের গণজাগরণ চত্বরে মহাসমাবেশে তিনি এ আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, ‘‘৪২ বছর ধরে বাংলাদেশ উল্টোপথে পরিচালিত হয়েছে। জামায়াত বলে ‘ভোট দিলে পাল্লায়, খুশি হবে আল্লাহ’। এভাবে ধর্মকে ব্যবহার করে তারা ফায়দা লুটছে।’’

এদের সম্পর্কে জনগণকে সচেতন থাকার আহ্বানও জানান তিনি।

তিনি আরো বলেন, ‘‘তরুণদের সম্পর্কে ভুল ধারণা যে, তরুণরা স্বার্থপর হয়ে গেছেন। আসলে তরুণরা স্বার্থপর হননি, তাদের বিভ্রান্ত করা হয়েছে। তাদের সামনে যদি আদর্শ থাকে, তারা ভিন্ন চরিত্র নিয়ে দাঁড়াতে পারেন।’’

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, কাদের মোল্লারা জন্ম থেকে রাজাকার হননি। যে চেতনা নিয়ে তারা বড় হয়েছেন, তা তাদেরকে রাজাকারে পরিণত করেছে।

ভাষা আন্দোলনের সূচনালগ্নের কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, ‘‘১৯৫২ সালে মোহাম্মাদ আলী জিন্নাহ যখন বলেছিলেন উর্দু হবে পাকিস্তানের রাষ্ট্রভাষা, তখন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররা ‘না’ ‘না’ বলে যে আন্দোলন শুরু করেছিলেন, তা সারা দেশে ছড়িয়ে পড়েছিল।

আজ যুদ্ধাপরাধীদের ফাঁসির দাবিতে শাহবাগে তরুণরা যে আন্দোলন শুরু করেছেন, তা সারা দেশে থেকে বিশ্বে ছড়িয়ে গেছে।’’

 ফেব্রুয়ারি ২১, ২০১৩

শেয়ার করুন