এরশাদ আবারো জানালেন, জাতীয় পার্টি একাই নির্বাচনে যাবে

0
145
Print Friendly, PDF & Email

নিউইয়র্ক: জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ বলেছেন, গণতন্ত্রের অগ্রযাত্রা ও সংবিধান সুরক্ষার জন্য নির্বাচনের কোনো বিকল্প নেই। সংকট থেকে উত্তরণের একটাই পথ—জাতীয় নির্বাচন। আর জাতীয় পার্টি আগামী নির্বাচনে একাই যাবে জনপ্রিয়তা প্রমাণ করার জন্য।
গতকাল রোববার যুক্তরাষ্ট্র সফররত সাবেক প্রেসিডেন্ট এরশাদকে নিউইয়র্কে সংবর্ধনা দেওয়া হয়। সেখানে তিনি এসব কথা বলেন।
আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে সংশয় প্রকাশ করে এরশাদ বলেন, ‘দেশের রাজনৈতিক অবস্থা এখন চরম অনিশ্চয়তায়। বিএনপি বলছে, তত্ত্বাবধায়ক সরকার ছাড়া তারা নির্বাচনে যাবে না। আর আওয়ামী লীগ বলছে, তত্ত্বাবধায়ক সরকারব্যবস্থায় ফিরে যাবে না। সংবিধান সংশোধন করে তত্ত্বাবধায়ক ব্যবস্থা বাতিল করা হয়েছে। এ অবস্থায় আগামী নির্বাচন নিয়ে কী হবে—তা কেউ বলতে পারছেন না, আমিও না।’
পদ্ধতিগত পরিবর্তন আনলে নির্বাচনে জয়ী হওয়ার আশা প্রকাশ করে এরশাদ বলেন, ‘সরকার পদ্ধতি পরিবর্তন করে নির্বাচন দেওয়া হলে আমিই আবার ক্ষমতায় আসব। আগামী নির্বাচনে প্রমাণ হবে আমি ও আমার দল কতটা জনপ্রিয়।’
বিএনপি আগামী নির্বাচনে না গেলে কী হবে—এ বিষয়ে এরশাদ বলেন, নির্বাচন তো হতে হবে। বিএনপি তাঁকে অতীতে নানা প্রলোভন দিলেও আওয়ামী লীগের সঙ্গে তিনি প্রতিশ্রুতি রক্ষা করেছেন বলেও মন্তব্য করেন। গবেষণা জরিপের তথ্য তুলে ধরে তিনি বলেন, দেশের ২৯ শতাংশ তরুণ প্রজন্ম যাদের সমর্থন জানাবে, তারাই আগামী দিনে রাষ্ট্র ক্ষমতায় যাবে।
একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধের বিচার ও শাহবাগে তরুণ প্রজন্মের গণজাগরণ সম্পর্কে এরশাদ বলেন, ট্রাইব্যুনাল রায় দিয়ে দিয়েছেন। ওই রায় সম্পর্কে সরকারের তেমন কিছু করার নেই বলে তিনি উল্লেখ করেন। সংসদে নতুন করে আইন প্রণয়ন করলে সেটা সারা বিশ্ব কীভাবে দেখবে, তা নিয়ে ভাবার অবকাশ আছে বলেও তিনি মন্তব্য করেন।
এরশাদ বলেন, যুক্তরাষ্ট্র সফরকালে মার্কিন সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী রবার্ট ব্লেকের সঙ্গে তিনি সাক্ষাত্ করেছেন। গুরুত্বপূর্ণ কিছু মার্কিন আইনপ্রণেতার সঙ্গে তাঁর বৈঠক হচ্ছে। এসব বৈঠকে বাংলাদেশের বিভিন্ন স্বার্থ নিয়ে তিনি যুক্তরাষ্ট্র সরকার ও আইনপ্রণেতাদের সঙ্গে কথা বলেছেন বলে জানান।

আপলোড, ১১ফেব্রুয়ারী ২০১৩

শেয়ার করুন