সিরিয়ায় ৭০ শতাংশ ওষুধ উৎপাদন কারখানা বন্ধ

0
58
Print Friendly, PDF & Email

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক(১১ ফেব্রুয়ারী): সিরিয়ায় প্রায় দুই বছর ধরে সহিংসতা চলছেদেশটির সব ক্ষেত্রেই এই সহিংসতার নেতিবাচক প্রভাব পড়েছেবাদ যায়নি ওষুধ শিল্পওএরই মধ্যে সিরিয়ার প্রায় ৭০ শতাংশ ওষুধ উপাদন কারখানা বন্ধ হয়ে গেছেদেখা দিয়েছে ওষুধ সংকট
সিরিয়ার ওষুধ শিল্পের অন্যতম ব্যবসায়ী নাজিব আলী-আদিব২০ বছর আগে যুক্তরাষ্ট্র থেকে সিরিয়ায় ফেরেন তিনিআশা ছিল, আধুনিক সিরিয়া গড়ে তোলার কাজে অবিচ্ছেদ্য অংশ হবেনপ্রত্যাশা মতো ওষুধশিল্প গড়ে তুলে অনেক দূর এগিয়েও গিয়েছিলেনকিন্তু এখন সেসব কারখানা বন্ধ হয়ে যাওয়ার হুমকিতে রয়েছে
সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কের অদূরেই কয়েকটি ওষুধ কারখানা রয়েছে আলী আদিবেরওই এলাকায় প্রায় প্রতিদিনই সহিংসতা ঘটছেআলী আদিব বলেন, মৃত্যু বা অপহরণের ঝুঁকি মাথায় নিয়ে কর্মীদের কারাখানা যেতে হয়সিরিয়ায় এখন ৭০ শতাংশ কারখানাই বন্ধ হয়ে গেছেযেগুলো উপাদন চালিয়ে যাচ্ছে, তারা সামর্থ্যের তুলনায় মাত্র ২৫ শতাংশ উপাদন চালিয়ে যাচ্ছে
এত বেশি সংখ্যায় কারখানা বন্ধ হওয়ার মূল কারণ হলো, কারখানাগুলো দামেস্ক ও আলেপ্পোসহ এর আশপাশের এলকাগুলোতে অবস্থিতআর প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদ বিরোধী আন্দোলনের শুরু থেকেই এসব এলাকায় সহিংসতার মূল কেন্দ্র হয়ে রয়েছে
আলী আদিব বলেন, ‘আসলে এভাবে টিকে থাকা অসম্ভববর্তমান পরিস্থিতি ওষুধশিল্পের ওপর ভয়াবহ প্রভাব ফেলেছে
সিরিয়ার প্রয়োজনীয় প্রায় ৯০ শতাংশ ওষুধই দেশটি নিজেই উপাদন করেসরকারও এই খাতে বড় ধরনের ভর্তুকি দেয়এ কারণে কম দামে উন্নতমানের ওষুধ উপাদন করে আসছিল দেশটিআরব বিশ্বের কয়েকটি দেশে ওষুধ রপ্তানিও করছিল সিরিয়াসহিংসতার কারণে ওষুধ উপাদন কমে যাওয়ায় এখন সংকট দেখা দিয়েছেতবে সরকারি হাসপাতালগুলোতে এখনো ওষুধ পাওয়া যাচ্ছেকিন্তু তা প্রয়োজনের তুলনায় কমদামেস্কের রেড ক্রিসেন্ট হাসপাতালের চিকিসক আনোয়ার জানান, তাঁর হাসপাতালে ২০ প্রকার ওষুধের ঘাটতি রয়েছে
দামেস্কের বাইরের হাসপাতালগুলো ওষুধ সরবরাহের অবস্থা আরও ভয়াবহবিষয়টি বাশার সরকার স্বীকারও করেছেসরকারের পক্ষ থেকে ওষুধের জন্য বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) সঙ্গে কথা বলা হয়েছেডব্লিউএইচওর শীর্ষ পর্যায়ের কর্মকর্তা এলিজাবেথ হফ বলেন, ‘আমরা জরুরি ভিত্তিতে সিরিয়ায় প্রয়োজনীয় ওষুধ পাঠানোর বিষয়ে আলোচনা করেছিকীভাবে ওষুধ পাঠানো যায়, তা-ও ভাবা হচ্ছেবিবিসি

 

নিউজরুম

 

শেয়ার করুন