‘খালেদার বিরুদ্ধে দায়ের করা সকালের মামলা বিকেলে খারিজ’

0
59
Print Friendly, PDF & Email

 

ঢাকা,(৭ফেব্রুয়ারী) : বিএনপি চেয়ারপারসন ও বিরোধী দলীয় নেতা খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দায়ের করা ‘রাষ্ট্রদ্রোহ’ মামলা খারিজ করে দিয়েছেন আদালত।
বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকার সিএমএম আদালতে দণ্ডবিধির ১২৩এ /১২৪এ ধারায় নালিশি মামলাটি করেন বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি অ্যাডভোকেট আব্দুল মালেক ওরফে মশিউর মালেক। রাষ্ট্রের যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমোদন সাপেক্ষে মামলাটি গ্রহণ করার জন্য আদালতে আবেদন জানান তিনি। বেলা ৩টা নাগাদ বাদীর বক্তব্য শুনে মহানগর ম্যাজিস্ট্রেট মো. সাইফুর রহমান মামলাটি খারিজ করে দেন।তিনি বলেন, “রাষ্ট্রদ্রোহিতার মামলার জন্য আবেদনকারী যথাযথ ব্যক্তি নন।

 

গত ৩০ জানুয়ারি ওয়াশিংটন টাইমস পত্রিকায় লিখিত নিবন্ধে খালেদা জিয়া বিদেশি শক্তিকে এদেশে হস্তক্ষেপের আহ্বান জানিয়ে দেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব লঙ্ঘন করেছেন- এ অভিযোগে মামলাটি করা হয়।

 

খালেদা জিয়াকে বাংলাদেশের স্বাধীনতা বিরোধী ও মানবতা বিরোধী অপরাধী জামায়াত-শিবির রাজাকারদের সমর্থনকারী, প্রশ্রয়দাতা ও মদতদাতা উল্লেখ করে মামলার আরজিতে বলা হয়, তিনি আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের কার্যক্রম ব্যহত করতে বিভিন্ন কর্মসূচি ও বিভ্রান্তিকর বক্তব্য-বিবৃতি দিয়ে আসছেন।

 

তারই ধারাবাহিকতায় গত ৩০ জানুয়ারি আমেরিকা থেকে প্রকাশিত ওয়াশিংটন টাইমস পত্রিকায় ‘The Thankless Role in Saving Democracy in Bangladesh.’ শিরোনামে একটি নিবন্ধ লেখেন।

মামলায় বলা হয়, ওই নিবন্ধে তিনি বাংলাদেশের গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার ও সংবিধান বিরোধী তত্ত্বাবধায়ক সরকার পুনর্বহালে আমেরিকা ও বৃটেনসহ তাদের বন্ধুদের প্রতি বাংলাদেশে হস্তক্ষেপ করার আহবান জানিয়েছেন।
এছাড়াও সরকারের সঙ্গে সংশ্লিষ্টদের বিদেশ ভ্রমণেও অবরোধ আরোপের আহবান জনিয়েছেন তিনি।
আসামির এহেন বক্তব্য বাংলাদেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্বের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র ও রাষ্ট্রদ্রোহিতার অপরাধ।

নিউজরুম

শেয়ার করুন