ব্রাজিল, ইংল্যান্ড এবং রোনালদিনহো

0
35
Print Friendly, PDF & Email

স্পোর্টস ডেস্ক(০৭ ফেব্রুয়ারী): ব্রাজিল, ইংল্যান্ড এবং রোনালদিনহোনাম তিনটি একসঙ্গে উচ্চারিত হলেই চোখের সামনে ভেসে উঠে সেই গোলটার ছবি২০০২ বিশ্বকাপে ফ্রি-কিক থেকে করা রোনালদিনহোর জাদুকরি যে গোল কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে ছিটকে দিয়েছিল ইংল্যান্ডকেসে ম্যাচে লাল কার্ডও পেয়েছিলেন রোনালদিনহোকিন্তু মানুষ বেশি মনে রেখেছে ওই গোলটার কথাই
গোলপোস্টের বাঁ পাশে প্রায় ৪০ গজ দূর থেকে নেওয়া রোনালদিনহোর বাঁক খাওয়ানো ফ্রি-কিকটি গোললাইন ছেড়ে এগিয়ে থাকা ডেভিড সিম্যানের মাথার ওপর দিয়ে দূরের পোস্টের কোনায় ঢুকে যায়পরে সেটিই হয়ে যায় ম্যাচের জয়সূচক গোল
তাঁর ওই গোলটি নিয়ে অনেক রকম আলোচনাই হয়েছেআসলেই তিনি গোলে শট নিয়েছিলেন, নাকি স্রেফ ক্রস করতে গিয়ে শটটি কাকতালীয়ভাবে ঢুকে গেছে জালেএ নিয়ে তর্কও হয়েছেহঠা করে ১১ বছরের পুরোনো সেই স্মৃতি নিয়ে ঘাঁটাঘাঁটির কারণটাও অনুমেয়ইগতকাল রাতেই একটা প্রীতি ম্যাচে ইংল্যান্ডের মুখোমুখি হয়েছিল ব্রাজিলরোনালদিনহো আবার ফিরেছেন ব্রাজিল দলেকাকতালীয়ভাবে ব্রাজিলের কোচও ২০০২ বিশ্বকাপের সেই স্কলারিইওয়েম্বলির ম্যাচে রোনালদিনহো মাঠে নেমেছিলেন কি না বা নামলে কী করেছেন, এই প্রতিবেদন লেখার সময় সেটা বলার উপায় ছিল নাতবে ম্যাচ-পূর্ব সংবাদ সম্মেলনে সেই রোনালদিনহোকে পেয়ে ইংলিশ সাংবাদিকেরা সেই গোল নিয়ে প্রশ্ন করার সুযোগটা হাতছাড়া করেনিউত্তরে রোনালদিনহোও জানিয়ে দিয়েছেন, গোলটা ফ্লুক ছিল না, ‘ইংল্যান্ডের বিপক্ষে আমার চমকার স্মৃতি আছেওই ম্যাচটা আমার জীবনের ট্রেডমার্ক হয়ে আছেসব সময়ই কেউ না-কেউ আমাকে প্রশ্নটা করে, আমি শটটা আসলেই গোলে নিয়েছিলাম কি নাকোনো সন্দেহই নেই, আমার লক্ষ্য ছিল গোল করা
সংবাদ সম্মেলনে উঠে এসেছিল রোনালদিনহোর জাতীয় দলে প্রত্যাবর্তনের বিষয়টিও৩২ বছর বয়সী মিডফিল্ডার জাতীয় দলের হয়ে সর্বশেষ ম্যাচটি খেলেছেন গত বছরের ফেব্রুয়ারিতেপরে তো মানো মেনেজেস বাতিলের খাতায়ই ফেলে দিয়েছিলেন তাঁকেমেনেজেসের বদলে দ্বিতীয় মেয়াদে দায়িত্ব নিয়ে স্কলারি তাঁর প্রথম দলেই ডেকেছেন সাবেকশিষ্যকে
দলে ফেরালেও স্কলারি স্পষ্টই জানিয়ে দিয়েছেন, রোনালদিনহোকে সামর্থ্যের প্রমাণ দিয়েই থাকতে হবে দলেরোনালদিনহোও তা জানেন, চ্যালেঞ্জটা নিতেও তিনি প্রস্তুতনেইমার, লুকাস, ফ্রেডদলে তরুণদেরই আধিক্যরোনালদিনহোর প্রধান কাজটা হবে নিজের অভিজ্ঞতা দিয়ে তরুণদের সাহায্য করাদুবারের ফিফা বর্ষসেরা ফুটবলারও জানেন এই বাড়তি দায়িত্বের কথা, ‘উত্তরাধিকার সূত্রে আমাদের দলটা বিরাট এক ঐতিহ্যের অধিকারীআমি মনে করি, বিশ্বকাপ জয়ের সব সম্ভাবনাই আমাদের আছেদলে তরুণ আর অভিজ্ঞ খেলোয়াড়ের সমন্বয় আছেআমিই দলে সবচেয়ে অভিজ্ঞ খেলোয়াড়বিশ্বকাপ জয়ের লক্ষ্যে দলকে সাহায্য করতে আমি সম্ভাব্য সবকিছুই করবএএফপি, রয়টার্স

 

নিউজরুম

 

শেয়ার করুন