তিন গুণ বেশি দামে চারা কিনতে হচ্ছে কৃষকদের

0
87
Print Friendly, PDF & Email

কৃষি ডেস্ক(০৬ ফেব্রুয়ারী): কিশোরগঞ্জের তাড়াইলে চলতি বোরো মওসুমে ধানের চারার সঙ্কট দেখা দিয়েছেঘন কুয়াশা ও ঠাণ্ডার কারণে অনেক বীজতলা ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় এ সঙ্কট সৃষ্টি হয়েছে ফলে তিন গুণ বেশি দামে চারা কিনতে হচ্ছে এখানকার কৃষকদের

 

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্র জানিয়েছে, চলতি বোরো মওসুমে উপজেলায় ৯ হাজার ৭২২ হেক্টর জমিতে বোরো চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছেএ জন্য ৬৪৫ হেক্টর জমিতে বীজ বপন করা হয়নির্ধারিত লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ২৪০ হেক্টর জমিতে বীজতলা বেশি করা হয়েছে, তারপরও চারার সঙ্কট দেখা দিয়েছে

 

জানা গেছে, গত বছর ১০০ টাকা দিয়ে চারা কিনে ১০ শতক জমি রোপণ করা গেলেও এবার সমপরিমাণ জমির জন্য ৩৫০-৪০০ টাকা দিয়ে চারা কিনতে হচ্ছেএলাকায় চারা সঙ্কট থাকায় কৃষকেরা পাশের ইটনা ও খালিয়াজুড়ী উপজেলার আত্মীয়স্বজনের দারস্থ হচ্ছেন চারার জন্য

 

উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে কৃষকদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, বোরোধানের চারা নিয়ে তারা হতাশার মধ্যে রয়েছেনআড়াইউড়া গ্রামের বাসিন্দা শরীফ আহম্মেদ আলেক বলেন, ‘৫০ কেজি ধান বীজতলায় ফেলেছিলামঠাণ্ডার কারণে চারা গজিয়েছে অর্ধেকের মতোএখন কিভাবে সবটুকু জমিতে চারা রোপণ করব সেই চিন্তায় রাতে ঘুম আসে না

 

ভাটগাঁও গ্রামের বাসিন্দা ওসমান মিয়া বলেন, ‘এক মণ ধানের বীজ ফেলেছিলামকিন্তু যে পরিমাণ চারা হয়েছে তাতে আমার অর্ধেক জমিতে চারা রোপণ করতে পারবঠাণ্ডার কারণে এ ক্ষতি হয়েছে

 

 

 

নিউজরুম

 

শেয়ার করুন