দিনটি ছিল হাফিজের

0
105
Print Friendly, PDF & Email

 

স্পোর্টস ডেস্ক( ফেব্রুয়ারী): উপলক্ষটা স্মরণীয় করে রাখতে তিনি ভালোই জানেনশততম টেস্টে সেঞ্চুরি করাইতিহাসের মাত্র সপ্তম ব্যাটসম্যান তিনিকালকের দিনটাও ছিল তাঁর জন্যমাইলফলক ছোঁয়ারঅনন্য এক সেঞ্চুরিপূরণ করারইতিহাসের প্রথম অধিনায়কহিসেবে শততম টেস্টতার ওপরে জন্মদিন! এখনো দ্বিতীয় ইনিংস বাকি আছেসেখানেকী করবেন কে জানেতবে প্রথম ইনিংসে পারেননি গ্রায়েম স্মিথসতর্ক-সাবধানীশুরু করেও উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়েছেন উমর গুলের বলেসিকি সেঞ্চুরিকরতে পারেননি, আউট হয়েছে ২৪ রান করে
স্মিথের বিদায়ের ঠিক আগের ওভারেআলভিরো পিটারসেনকে ফিরিয়ে দিয়েছিলেন জুনাইদ খানগুল-জুনাইদ শুরুতে যেধাক্কা দিয়েছিলেন, তার চেয়েও জোরালো ধাক্কা শেষ সেশনে দিয়েছেন মোহাম্মদহাফিজ১৯৯ থেকে ২৫৩এই ৫৪ রানের মধ্যে শেষ ৬ উইকেট হারিয়ে অলআউট দক্ষিণআফ্রিকাএর চারটাই হাফিজেরজোহানেসবার্গ টেস্টের প্রথম দিনটা তাই স্মিথবা দক্ষিণ আফ্রিকার নয়; হাফিজের এবং পাকিস্তানের
পাকিস্তানের বোলিংনিয়ে কখনোই কোনো প্রশ্ন ওঠেনিব্যাটিংয়েও অনেক তারকা এসেছেনকিন্তু দলেরচিরায়ত দুর্বল দিক তাদের ফিল্ডিংসেই পাকিস্তান কাল দুর্দান্ত দুটি ক্যাচনিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার মেরুদণ্ডে আঘাত হেনেছেশেষ সেশনে ভূমিকম্পের মধ্যেপড়া দক্ষিণ আফ্রিকার লেজটাকে ছাঁটতে ত্বরিত ভূমিকা রেখেছে একটা রানআউট৪৬রানে দুই ওপেনারকে হারানোর পর ক্যালিস-আমলা মিলে দারুণভাবে এগিয়ে নিচ্ছিলেনদলকেদুজনের ৭৯ রানের জুটিটা ভেঙেছে আসাদ শফিকের দারুণ এক ক্যাচে ক্যালিসফিরে গেলেগালিতে আরও দুর্দান্ত এক ক্যাচ নিয়ে খানিক পর আমলাকে ফিরিয়েছেনআজহারএই ক্যাচের সৌজন্যে অষ্টম টেস্ট উইকেটটি পেয়েছেন ইউনুস খানচা-বিরতি পর্যন্ত আর কোনো বিপদ বাড়েনি দক্ষিণ আফ্রিকারবরং ৭৮ ওভারে শেষে ৫উইকেটে ২৩২ মনে করাচ্ছিল, দিনটা বুঝি থাকবে সমানে সমানকিন্তু সেই ধারণাভুল প্রমাণ করে দিয়েছেন হাফিজ
৭১তম ওভারে প্রথম আক্রমণে আসেনএতদেরিতে কেন অধিনায়ক বল দিলেন সেই রাগ মেটাতেই হয়তো প্রথম বলেই ডিভিলিয়ার্সকে ফেরালেনতবে হাফিজের ভয়ংকর হয়ে ওঠা তাঁর ষষ্ঠ ওভারের শেষ বলথেকেনয় বলের মধ্যে তুলে নেন ৩ উইকেটওয়েবসাইট, টেন ক্রিকেট

 

নিউজরুম

 

 

 

শেয়ার করুন