রংপুরে ধর্ষণের শিকার আফরোজা মারা গেছে

0
107
Print Friendly, PDF & Email

রংপুর (২ফেব্রুয়ারী) : রংপুরে ধর্ষণের শিকার আফরোজা মারা গেছে। অপমান সহ্য করতে না পেয়ে গায়ে কেরোসিন ঢেলে আত্মহত্যা চেষ্টার ১১ দিন পর শুক্রবার সকালে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যায় আফরোজা।
হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক গোলাম মোস্তফা মেয়েটির মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন।এ ঘটনায় পুলিশ এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করেনি।
জানা গেছে, গত ২১ জানুয়ারি রাত ১০টার দিকে পীরগাছা উপজেলার পশ্চিম পারুল গ্রামের ছবিজল মিয়ার ছেলে লেবু একই এলাকার আকাব্বর মিয়ার মেয়ে আফরোজাকে বাথরুমে ধর্ষণ করে। ২২ জানুয়ারি সকালে মেয়েটি নিজের গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের ১৬ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। ১১ দিন মৃত্যু যন্ত্রণায় ভুগে শুক্রবার সকালে মারা যায়।

ধর্ষিতার পিতা আকাব্বর হোসেন বলেন, “লম্পট লেবু বিবাহিত। সে আমার মেয়ের সর্বনাশ করেছে। লজ্জায় আমার মেয়ে গায়ে আগুন দেয়। এতে তার পুরো শরীর পুড়ে যায়। টাকার অভাবে উন্নত চিকিৎসা দিতে পারিনি। শেষ পর্যস্ত সে আমাদের ছেড়ে চলে গেছে।” তিনি আরও বলেন, “এ ঘটনায় লেবুকে আসামি করে পীরগাছা থানায় মামলা হলেও পুলিশ এখন পর্যন্ত আসামিকে গ্রেফতার করেনি। আসামি ও তার পরিবার মামলা তুলে নেওয়ার হুমকি দিচ্ছে।”

তিনি লেবুকে গ্রেফতার ও ফাঁসি দাবি করেন। না হলে তিনিও আত্মহত্যা করার হুমকি দেন। মৃতের পরিবারের অভিযোগ, আসামি প্রভাবশালী ও বিত্তবান হওয়ায় পুলিশের সঙ্গে যোগসাজশ থাকায় তাকে গ্রেফতার করা হচ্ছে না।
পীরগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বজলুর আবদুর রশিদ বলেন, “ঘটনাটি জানার পরই মামলা নেওয়া হয়েছে। আসামি লেবুকে গ্রেফতারে সাঁড়াশি অভিযান চলছে।” তিনি আসামিদের সঙ্গে যোগসাজশের বিষয়টি অস্বীকার করেন।

নিউজরুম

শেয়ার করুন