ইট বা পাথর নয়,নওগাঁয় মাটি দিয়ে তৈরী ১০৮ কক্ষের বিশাল বাড়ি

0
115
Print Friendly, PDF & Email

নওগাঁ (১ ফেব্রুয়ারী): ইট বা পাথর নয়, মাটি দিয়ে ১০৮ কক্ষের বিশাল একটি বাড়ি তৈরি করে এলাকায় আলোচিত হয়েছেন নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলার চান্দা আলিপুর গ্রামের দুই ভাই তাহের ও সমশের আলী। ২০০ বিঘা জমির উপর নির্মিত বিশাল এ বাড়িকে ঘিরে যেমন জল্পনা-কল্পনার শেষ নেই, তেমনি রচিত হয়েছে নানা কল্পকাহিনী।

কারও মতে, জিনের দেওয়া টাকায় দুই ভাই বাড়িটি তৈরি করেছেন। কেউ মনে করেন, জিনরাই বাড়িটি তৈরি করেছে। তবে বাড়ির মালিক তাহের উদ্দিন জানান, প্রায় ২৮ বছর আগে কোনো প্রয়োজন ছাড়াই দুই ভাই মিলে শখের বসে বাড়িটি তৈরি শুরু করেন। গ্রামের দক্ষিণ পাশে অবস্থিত দুর্গ আকৃতির সারি সারি ১০৮টি ঘর নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকা বিশাল বাড়ি দেখতে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে প্রতিদিন উৎসুক জনতা ভিড় করে। যেন রূপ কথার গল্প। বাড়ির সামনে বিশাল পুকুর। পুকুরের পরে বাড়ির সদর দরজা। প্রবেশের আরও ১০টি দরজা রয়েছে। তাহের জানান, প্রতিদিন অন্তত ১০০ শ্রমিক প্রায় আট মাস কাজ করে বাড়িটি নির্মাণ করেন। নির্মাণে নিয়োজিত শ্রমিকদের শুধু খাবার বাবদ প্রতিদিন তিন মণ চাল রান্না করা হতো। বাড়িটি তৈরিতে মাটির প্রয়োজনে সামনের পুকুরটি খনন করা হয়।

১৫০ হাত লম্বা দোতলা এ বাড়ির ছাউনিতে ২০০ বান্ডিল ঢেউটিন রয়েছে। ১০৮ কক্ষের প্রতিটিতেই তিনটি করে জানালা রয়েছে। সবকটি ঘর ব্যবহার করা না হলেও পুরো এলাকা পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখা হয়। বাড়িনির্মাতা দুই ভাইয়ের মধ্যে সমশের আলী অনেক দিন আগে মারা গেছেন। বাড়িটিতে বর্তমানে সমশের আলীর স্ত্রী বিউটি বেওয়া, ভাই তাহের আলী ও বোন মাজেদা খাতুন এবং তাদের ছেলে-মেয়ে, নাতি-নাতনি ও আত্দীয়স্বজনসহ ৩৫ জন বসবাস করছেন। বিউটি বেওয়া বলেন, স্বামীর মৃত্যুর পর এ বাড়ি এখন তার কাছে মূল্যবান স্মৃতি।

নিউজরুম

শেয়ার করুন