বৃহস্পতিবার দেশব্যাপী জামায়াতের হরতালে ৫ জনের মৃত্যু

0
230
Print Friendly, PDF & Email

ঢাকা (১ফেব্রুয়ারী) : আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল বাতিল ও যুদ্ধাপরাধীদের বিচার বন্ধের দাবিতে জামায়াত-শিবিরের ডাকা বৃহস্পতিবারের (৩১ জানুয়ারি) দেশব্যাপী সকাল-সন্ধ্যা হরতাল সংঘর্ষ ও হতাহতের মধ্যদিয়ে শেষ হয়েছে।

হরতাল চলাকালে সংঘর্ষ ও গোলাগুলির ঘটনায় ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। নিহতদের মধ্যে বগুড়ায় ৩, যশোরে ১, ফেনীতে ১ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

দেশের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলায় ঢিলেঢালাভাবে হরতাল পালিত হলেও ফেনী, বগুড়া, যশোর, কুমিল্লাসহ কয়েকটি জায়গায় সংঘর্ষ ও হতাহতের ঘটনা ঘটে। বগুড়া: মাত্র এক ঘণ্টার তাণ্ডবে লণ্ডভণ্ড হয়ে গেছে বগুড়ার সাতমাথা। বৃহস্পতিবার সকাল-সন্ধ্যা হরতাল চলাকালে দুপুর পৌনে একটার দিকে বগুড়া সদর উপজেলার সাতগ্রামে জামায়াত কর্মী মিজান (৩২) ও ফুলবাড়িতে আজিজুল হক কলেজ পুরাতন ভবন শাখা শিবির সভাপতি লোহানীর (২০) এবং আব্দুল্লাহ (১৮) নামে শিবিরের এক সাথীর মৃত্যু হয়।উভয় স্থানে জামায়াত ও শিবির কর্মীদের ওপর ছাত্রলীগ হামলা চালালে এ মৃত্যুর ঘটনা ঘটে বলে অভিযোগ উঠেছে। এতে আরও অন্তত ৭ জন আহত হয়েছে বলেও দাবি করেছে শিবির-জামায়াত। শনিবার বগুড়ায় হরতাল পালনের কথা জানালেন শহর শিবিরের সভাপতি আলাউদ্দিন সোহেল।

যশোর: যশোরের মণিরামপুরে হরতালে জামায়াত-শিবির ও পুলিশ-ছাত্রলীগের দ্বি-মুখী সংঘর্ষে সাত পুলিশ সদস্যসহ ১৫ জন আহত হয়েছেন। এ সময় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে এক পুলিশ সদস্যের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল ৭টার দিকে উপজেলার গোহাটা মোড় ও গাংড়া মোড়ে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।সংঘর্ষ চলাকালে জামায়াত শিবির কর্মীরা ১৫ থেকে ২০টি ককটেলের বিস্ফোরণ ঘটায়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ৪ জনকে আটক করেছে।

সংঘর্ষ চলাকালে নিহত কনস্টেবলের নাম জহুরুল ইসলাম (৪০)। আহত পুলিশ সদস্যরা হলেন উপপরিদর্শক (এসআই) শংকর, এসআই জিয়ারুল, কনস্টেবল নওয়াব আলী ও মোসলেম উদ্দিনসহ আরো তিনজন।

আহত জামায়াত কর্মীরা হলেন শাহ মুরাদ (৩০), ইয়াসিন আলী (৩০), জালাল উদ্দিন (২৬), মনিরুজ্জামান ও অজ্ঞাত আরও ৩/৪ জন।

তবে কনস্টেবল জহুরুল সংঘর্ষ চলাকালে দায়িত্বরত অবস্থায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন বলে যশোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুভাষ চন্দ্র সাহা। যদিও জহুরুলের মাথায় ইটের আঘাত পাওয়া গেছে বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন।

ফেনী: সকাল-সন্ধ্যা হরতাল চলাকালে ফেনীতে জামায়াত-শিবির কর্মীদের হামলায় ইমাম উদ্দিন (২৫) নামে এক সিএনজি চালিত অটোরিকশা (সিএনজি) চালক নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে শহরের জামায়াত নিয়ন্ত্রিত ফালাহিয়া মাদ্রাসার শান্তি কোম্পানি রোডে এক হামলায় ওই চালক আহত হন। ফেনী সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুর ২টার দিকে মৃত্যু হয় তার। নিহত ইমাম উদ্দিন কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার শিলুড়ি গ্রামের জামাল উদ্দিনের ছেলে।

কুমিল্লা: কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে হরতাল চলাকালে জামায়াত-শিবির ও পুলিশের মধ্যে একাধিকবার ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এসময় পুলিশের ছোড়া রাবার বুলেট বিদ্ধ হয়ে মনসুর নামের এক শিবির সাথী আহত হয়েছেন।  

কক্সবাজার: সারাদেশে সকাল-সন্ধ্যা হলেও পর্যটন শহর কক্সবাজারে হরতাল হয়েছে সকাল ৬টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত। পর্যটকদের কথা চিন্তা করেই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।হরতাল চলাকালে সকাল থেকে কক্সবাজার জেলায় শিবির কর্মীরা কৌশলে পিকেটিং এ নামে। দুপুর ১২টা পর্যন্ত বিভিন্ন স্থানে অন্তত ১০ গাড়ি ভাঙচুর করে। পুলিশ আটক করেছে শিবিরের ৯ নেতাকর্মীকে। এসময় উখিয়ায় শিবিরের এক ক্যাডারের কাছ থেকে এলজি উদ্ধার করা হয়েছে।

দিনাজপুর: হরতাল সমর্থনকারীরা মূল সড়কে নামতে না পারলেও সকাল ৭টায় দিনাজপুর শহরের বালুবাড়ী এলাকায় পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে বিকল্প সড়কে মিছিল বের করে। হরতালে দিনাজপুরের চিরিরবন্দর উপজেলার রানীরবন্দর এলাকায় র্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র্যাব) ও পুলিশের উপস্থিতিতে লাঠি মিছিল ও সমাবেশ করেছে জামায়াত-শিবির।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টার এ লাঠি মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এসময় তারা রাস্তায় টায়ার জ্বালিয়ে সেখান থেকে পালিয়ে যায়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে অবস্থান নেয় ও আগুন নেভায়।

হিলি: হিলি স্থলবন্দরের কার্যক্রম স্বাভাবিক ছিল। বন্দর ও এর আশপাশে হরতাল সমর্থীত কাউকে মিছিল বা পিকেটিং করতে দেখা যায়নি। হাকিমপুর থানার ওসি এস এম আহসান হাবিব জানান, অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে সতর্ক অবস্থানে ছিল পুলিশ।

ঠাকুরগাঁও: জামায়াত-শিবিরের ডাকা বৃহস্পতিবারের সকাল-সন্ধ্যা হরতালে ঠাকুরগাঁওয়ে বিক্ষিপ্তভাবে চোরাগুপ্তা হামলা চালিয়েছে পিকেটাররা। সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত তারা ৫টি গাড়ি ভাঙচুর করেছে। এদিকে, গাড়ি ভাঙচুরের সময় একজনকে ও নাশকতার আশঙ্কায় রাতে আরও দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ।

এরা হলেন-শিবির কর্মী মাজেদুল ইসলাম (১৮), জামায়াত কর্মী আনারুল ইসলাম ও শিবির কর্মী আমিনুল ইসলাম।
 

কুড়িগ্রাম:  হরতাল  চলাকালে রাস্তায় জামায়াত-শিবিরের কোনো নেতাকর্মীকে পিকেটিং করতে দেখা যায়নি। শহরের কোথাও কোনো অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি।

নওগাঁ: জামায়াত-শিবিরের ডাকা বৃহস্পতিবারের দেশব্যাপী হরতাল। নওগাঁয় ঢিলেঢালাভাবে পালিত হয়েছে।

সকালে দূরপাল্লা ও অভ্যন্তরীণ রুটে কোনো বাস-ট্রাক বা ভারী কোনো যানবাহন চলাচল করতে দেখা যায়নি। দোকানপাটও বন্ধ ছিল।

বরগুনা: বরগুনায় হরতালের কোনো প্রভাব পড়েনি। সকাল থেকে শহরের সবকিছু স্বাভাবিক ছিল। হরতালের পক্ষে বা বিপক্ষে শহরে কোনো মিটিং মিছিল হয়নি।

এদিকে, নাশকতার আশঙ্কায় বরগুনা সদর উপজেলার ইটবাড়িয়া যুব উন্নয়ন প্রশিক্ষণ কেন্দ্র থেকে বুধবার রাতে ৩ শিবিরকর্মীকে আটক করে পুলিশ। এরা হলেন- আতাউর রহমান আতিক (১৮), মিজানুর রহমান (১৯), মামুন (১৯)।

জয়পুরহাট: জয়পুরহাটে হরতালে জামায়াত-শিবিরের কর্মীরা মাঠে ছিলনা। বৃহস্পতিবার সকালে শহরের কাছে দুই একটি জায়গায় চোরাগুপ্তা হামলা চালিয়ে তারা আতঙ্ক সৃষ্টির চেষ্টা করে।  

শহরের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, কোথাও জামায়াত-শিবিরের মিছিল বা পিকেটিং হয়নি। শহরের অদূরে পুরানাপুলে পুলিশের ওপর আকস্মিক হামলা চালানো ও দু’একটি গাড়ি ভাঙচুর ছাড়া তাদের তেমন কোনো তৎপরতা চোখে পড়েনি। এসব কর্মকাণ্ড আবার ঘটিয়েছে বৃহস্পতিবার সকালেই। বেলা বাড়ার পর তাদের মাঠে দেখা যায়নি।

নিউজরুম

শেয়ার করুন