অগ্নিনির্বাপণ ব্যবস্থা নিশ্চিত না করা পর্যন্ত স্মার্ট গার্মেন্ট বন্ধের নির্দেশ

0
259
Print Friendly, PDF & Email

ঢাকা (৩০জানুয়ারী) : রাজধানীর মোহাম্মদপুরের বেড়িবাঁধ এলাকার স্মার্ট গার্মেন্টে পর্যাপ্ত অগ্নিনির্বাপণ ব্যবস্থা নিশ্চিত না করা পর্যন্ত কারখানা বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। এসময় শ্রমিকদের বেতন- ভাতাও পরিশোধ করতে হবে।

এছাড়াও অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় করা মামলায় আসামিদের বিরুদ্ধে ফৌজদারি কার্যবিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

এ সংক্রান্ত এক ফৌজদারি আবেদনের প্রাথমিক শুনানি শেষে বিচারপতি এএইচএম শামসুদ্দিন চৌধুরী ও বিচারপতি মাহমুদুল হকের বেঞ্চ এ আদেশ দেন। আদেশের পাশাপাশি রুলও জারি করেন আদালত।

আদালতে আবেদনের পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট ইউনুস আলী আকন্দ। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অমিত তালুকদার।

অমিত তালুকদার জানান, “অন্তর্বর্তীকালীন আদেশের পাশাপাশি আদালত রুল জারি করেছেন। দুই সপ্তাহের মধ্যে বিবাদীদের রুলের জবাবও দিতে বলেছেন আদালত।”

রিটের বিবাদীরা হচ্ছেন, শ্রম সচিব, পুলিশের আইজি, ঢাকা জেলার প্রশাসক, মোহাম্মদপুর ওসি, স্মার্ট গার্মেন্টের পরিচালক মো. শরিফ আহমেদ, জাকির আহমেদ ও সুভাষ। এছাড়া বিজিএমইএ-ও এ তালিকায় রয়েছে।  

এদিকে মঙ্গলবার রাতে ওই গামের্ন্টসের চেয়ারম্যান ও এমডিকে গ্রেফতার করেছে ডিবি পুলিশ।

স্মার্ট গার্মেন্ট কারখানায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় মালিকদের গ্রেফতারের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে এ আবেদনটি করা হয়।

প্রসঙ্গত, শনিবার দুপুর ৩টার দিকে রাজধানীর মোহাম্মদপুরের বেড়িবাঁধ এলাকার স্মার্ট গার্মেন্টে অগ্নিকাণ্ডে সাত পোশাককর্মী নিহত হন।

এ ঘটনায় নিহত রাজিয়ার বাবা আলতাফ হোসেন বাদী হয়ে  কারখানার তিন পরিচালক শরিফ আহমেদ, জাকির আহমেদ ও সুভাসসহ অজ্ঞাত আরো দু’জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন।  

অবহেলাজনিত কারণে এসব পোশাক শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে বলে মামলায় উল্লেখ করা হয়।

অগ্নিকাণ্ডে নিহতরা হলেন- ভোলার বোরহান উদ্দিন থানা এলাকার মো. কাওসার হোসেনের মেয়ে জোত্স্না (২০), ঝালকাঠির রাজাপুর থানার কালুদাস কাঠি গ্রামের আলফাজের মেয়ে রাজিয়া (১৫), অজ্ঞাতপরিচয় কিশোরী (১৫), বসিলা বস্তির জাবেদ হোসেনের মেয়ে কোহিনুর (১৫), ভোলার বোরহান উদ্দিন থানার চর গাজীপুর গ্রামের আজিজুল হকের মেয়ে নাসিমা (৩০) ও বোরহান উদ্দিন থানার দেউলা গ্রামের নয়া মিয়ার মেয়ে নাসিমা (১৭)।

এছাড়া বসিলা রোডের বাসায় প্রাথমিক চিকিত্সাধীন অবস্থায় লাইজু (১৬) নামে অপর এক নারী শ্রমিক মারা যান।

নিউজরুম

শেয়ার করুন