রংপুরে ঘুষ নিয়ে অফিস সহকারী নিয়োগের পায়তারা

0
76
Print Friendly, PDF & Email

রংপুর (২৬জানুয়ারী) : রংপুর জেলা রেজিস্টার কার্যালয়ে মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে নিয়ম বহির্ভুতভাবে অফিস সহকারী কাম-কম্পিউটার অপারেটর পদে নিয়োগের পায়তারা চলছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

পছন্দের প্রার্থীকে নেওয়া হবে এ কারণে তড়িঘড়ি করে একই দিনে লিখিত, ভাইভা ও ব্যবহারিক পরীক্ষা নিয়েছে জেলা রেজিস্টার। গত শুক্রবার এ পরীক্ষা নেওয়া হয়েছে।

এদিকে, এ পরীক্ষা বাতিলের দাবিতে সাংবাদিকসহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন অন্য প্রার্থীরা।

অভিযোগে জানা গেছে, রংপুর জেলা রেজিস্টার কার্যালয়ে অফিস সহকারী কাম-কম্পিউটার অপারেটর পদে নিয়োগের জন্য আবেদনপত্র আহ্বান করা হয়। ১টি পদের বিপরীতে আবেদনপত্র করেন ২৫ জন প্রার্থী। এর মধ্যে গত শুক্রবার ১০ প্রার্থী উপস্থিত ছিল।

সকাল ১০টায় রংপুর জেলা রেজিস্টার কার্যালয়ের ৩য় তলা লিখিত পরীক্ষার অনুষ্ঠিত হবে বলে প্রার্থীদের জানানো হয়। সে অনুযায়ী পরীক্ষা নেওয়া হয়।

এদিকে, জেলা রেজিস্টার ইমদাদুল হক মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে তার অধিনস্ত চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারীর ছেলেকে আগেই লিখিত পরীক্ষার প্রশ্ন জানিয়ে দেন। প্রবেশপত্রে ওই দিন মৌখিক ও ব্যবহারিক পরীক্ষা নেওয়ার কোনো সিদ্ধান্ত না থাকলেও লিখিত পরীক্ষা শেষে মৌখিক ও ব্যবহারিক পরীক্ষা নেওয়া হয়।

অভিযোগ রয়েছে, জেলা রেজিস্টার ইমদাদুল হকের বিরুদ্ধে নানা অনিয়মে অর্থবিত্ত হওয়ায় তার বিরুদ্ধে দুদক মামলা করেছে। সেটি এখন বিচারাধীন।

এ বিষয়ে জেলা রেজিস্টার ইমদাদুল হক জানান, যথাযথ নিয়ম মেনেই পরীক্ষা নেওয়া হয়েছে। কোনো অনিয়ম হয়নি।

নিউজরুম

শেয়ার করুন