‘অচিনপুর/অচেতন’

0
151
Print Friendly, PDF & Email

জানুয়ারী: ক্রাক ইন্টারন্যাশনাল আর্ট ক্যাম্প, ২০১২অনুষ্ঠিত হলো ২৫ থেকে ৩০ ডিসেম্বরকুষ্টিয়ার রহিমপুরে স্মরণ মস্য বীজ খামারেএশিয়ার পাঁচটি দেশের ২৮ জনশিল্পী এই ক্যাম্পে অংশ নিয়েছেনকিউরেটরের দায়িত্ব পালন করেন ভারতেরশতদ্রু শোভন ভাদুড়ি ও বাংলাদেশের শাওন আকন্দবাংলাদেশসহ ভারত, পাকিস্তান, নেপাল, শ্রীলঙ্কার শিল্পীরা এই ক্যাম্পে অংশ নেন
এবারের ক্যাম্পের মূলভাবনা বা কনসেপ্ট নোট ছিল অচিনপুর/অচেতনবাংলার সহজিয়া বাউল তরিকায়যেটাকে বলে অচিনপুরসেটা আসলে কী? কোথায় এই দেশ? কেমন সেই দেশের ঘরবসতি? ফ্রয়েডের তত্ত্বানুসারে যেটাকে বলে আনকনসাসতা কি অচিনপুরের অন্য নাম? তাই যদি হয় তবে সেই অচিনপুর/আনকনসাসের রূপ ও চেহারা কী ও কত প্রকারএই মূলভাবনাকে কেন্দ্র করে শিল্পীরা নিজস্ব ভঙ্গিতে বিভিন্ন মাধ্যমে শিল্পকর্মতৈরি করেছেনসাইট স্পেসিফিক ইনস্টলেশন/স্থাপনাশিল্প ছাড়াও ভিডিও আর্ট ওপারফরম্যান্স আর্টের মাধ্যমে অচিনপুর বা আনকনসাস সম্পর্কে নানা ধরনেরচিন্তার প্রকাশ ঘটিয়েছিলেন শিল্পীরা
এই আর্ট ক্যাম্পের একটা প্রধানবৈশিষ্ট্য এই যে এখানে শিল্পীদের আশপাশে ছড়িয়ে থাকা পরিবেশবান্ধব উপাদানদিয়ে শিল্পকর্ম তৈরিতে উসাহিত করা হয়যেমন, কলকাতার শিল্পী তপতী চৌধুরীবাঁশ-কাঠ-খড় আর আশপাশে ছড়িয়ে থাকা জিনিস সংগ্রহ করে তৈরি করেছিলেন একটাবড় নৌকাযেটা রাখা ছিল ডাঙ্গায়ক্যাম্পের শেষদিন এটা পানিতে না ভাসিয়েআগুনে পুড়িয়ে দেওয়া হলোতাঁর কাজের শিরোনাম ছিল মন পবনের নাওতারপাশেই বাংলাদেশের শিল্পী পলাশ চৌধুরী করেছিলেন সাইটস্পেসিফিক স্থাপনাশিল্পপুকুরের পানিতে ভাসিয়ে দেওয়া হয়েছিল সাগর জাহিদের শিল্পকর্মতিনিকলাগাছের বাকল, ধুন্দুল ফলের শুকনো অংশ, পাটকাঠি ইত্যাদি দিয়ে তৈরিকরেছিলেন অজস্র পানি পোকা’-সদৃশ অবয়বমনের গহিনে লুকিয়ে থাকা অসংখ্যইচ্ছা ও আকাঙ্ক্ষার প্রতীক হয়ে সেগুলো ভাসছিল পুকুরের সবুজ পানিতেনেপালের শিল্পী সাবিতা ডাঙ্গল পাটকাঠি দিয়ে গোলক ধাঁধা তৈরি করে তার ভেতরেস্থাপন করেছিলেন নিজের প্রতিকৃতিতার পাশেই ছিল ভারতের শিল্পী রাকেশপ্যাটেলের স্থাপনাশিল্পসেখানে দর্শকেরা নিজেদের অচেতন ইচ্ছাগুলো উড়িয়েদিচ্ছিলেন সাবানের বুদ্বুদের আদলেপানি আর মাটির সন্ধিস্থলে শুকনো ডালপালাদিয়ে বাংলাদেশের শিল্পী আফসানা শারমিন ঝুমা তৈরি করেছিলেন আরেকটিস্থাপনাযার কেন্দ্রে ছিল অন্তহীন শূন্যতার আভাসসেখানে যুক্ত করা হয়েছিলনীল রঙের ছোঁয়াপুকুরের পাড় দিয়ে আরেকটু এগোলেই পথের ওপর ঝুঁকে থাকাগাছে মাছ ধরা বাঁশের পলোআর মাকড়সার জালের আদলে করা সাদা বয়নের সঙ্গেহাতুড়ি আর ক্যাকটাস যুক্ত করে ভারতের পুনার শিল্পী আর্তি কুশুওয়াহা তৈরিকরেছিলেন ড্রিম ক্যাচারবা স্বপ্ন ধরার খাঁচাবাংলাদেশের রাজীব আশরাফেরকাজ ছিল একটি সাদা জানালা এবং তার চারপাশে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা নানা রঙেরহাতের সমন্বয়ে, অধরাকে ধরার তীব্র আকুতি তাঁর কাজে স্পষ্ট প্রতীয়মানহয়েছেকারিশমা চৌধুরীর কাজ ছিল দুটি পুতুলকে কেন্দ্র করেহাত দিয়েছোঁয়া যায় এমন একটা গাছের ডালে ছোট ছোট ঘণ্টা আর পাখির পালক ঝুলিয়েদিয়ে মায়াবী পরিবেশ তৈরি করেছিলেন তিনিশিশুমনের কল্পনার রাজ্য কিংবাশৈশব স্মৃতি তাঁর কাজের প্রধান বিষয়বস্তুআমাদের মনোজগতের অনেকটা গড়েউঠে শিশুকালেসে কথাই যেন শিল্পী বলতে চেয়েছেন তাঁর কাজেভারতের শিল্পীশতদ্রু শোভন পুকুরের পাড়ে একটা মাচার ওপর পাটের আঁশ, বিভিন্ন ডিজিটালপ্রিন্ট, বিশেষ ধরনের আলো দিয়ে গড়ে ছিলেন তাঁর সাইটস্পেসিফিক স্থাপনাস্বপ্নের মায়াবী জগ তৈরি হয়েছিল তাঁর কাজেএর পাশেই একই শিল্পী বিভিন্নধরনের কাপড়ের টুকরো, কাপড়ের জালি ইত্যাদি দিয়ে তৈরি করেছিলেন আরেকটিস্থাপনাশিল্পশ্রীলঙ্কার শিল্পী আসমার আদমের কাজও ছিল আলোনির্ভরনেপালেরআরেক শিল্পী শংকর সান শ্রেষ্ঠা তাঁর দুটি কাজে সচেতন থেকে অচেতনে পৌঁছানোরদীর্ঘ যাত্রার অনুভূতি তুলে ধরেছেনতাঁর ব্যবহার্য উপাদান ছিল মটির সানকি, পাতা, ফুলের পাপড়ি ইত্যাদি
খুলনার শিল্পী রাজনের কাজ ছিল মাটির ছোটছোট অবয়বের সঙ্গে পাটকাঠির কাঠামো তৈরি করে সাদা কাপড়ের ওপর নানা রঙেরআলোর খেলাএর পাশে পলাশ চৌধুরী ও অনন্তকুমার দাস তৈরি করেছিলেন অচেতনেরপথপাকিস্তানের শিল্পী তাইয়্যাবা আনোয়ার আহমেদ মূলত লিখিয়েতিনি তৈরিকরেছিলেন একটি কবরস্থানযেখানে দর্শকেরা তাদের দুঃস্বপ্নগুলো কাগজে লিখেচিরদিনের জন্য কবর দিচ্ছিলতাইয়্যাবা চান সবাই যেন দুঃস্বপ্ন ভুলেশান্তিতে থাকেএমন কি দুঃস্বপ্নগুলোওকলকাতার শিল্পী তপতী আরেকটি কাজেবিভিন্ন দরজা তৈরি করেছিলেন প্রতীকী অর্থেযেন এই দরজাগুলো দিয়ে পৌঁছেযাওয়া যাবে অচিনপুরেপাকিস্তানের আরেক শিল্পী শিবলী মুনীর আদিগন্তবিস্তৃত সবুজের মাঝে স্থাপন করেছিলেন লাল কাপড়ের একটা বৃত্তআরেকটা কাজেতিনি লাল কাপড় লাইনের মতো ব্যবহার করে আটকাতে চেয়েছেন সীমানাভারতেরশিল্পী সুনীল শ্রী মাটি দিয়ে কাজ করেছেনযার মধ্যে তিনি স্থাপন করেছেননানা গাছের বীজ
এ ছাড়া এই আর্ট ক্যাম্পে একাধিক পারফরম্যান্স আর্টহয়েছেতৈরি করা হয়েছে বিভিন্ন ধরনের ভিডিও আর্টএর সবকিছুতেইবিভিন্নভাবে ধরার চেষ্টা করা হয়েছে অচিনপুরের/অচেতনের ঘরবাড়ি ও মানুষজন

 

নিউজরুম

 

শেয়ার করুন