যুদ্ধাপরাধের বিচারে যুক্তরাষ্ট্রের সমর্থন, তবে ফাঁসির দণ্ডাদেশ নিয়ে আপত্তি

0
63
Print Friendly, PDF & Email

ঢাকা (২৩জানুয়ারী) : বাচ্চু রাজাকারের মতো মানবতাবিরোধী অপরাধীর বিচারে সমর্থন জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। তবে ফাঁসির দণ্ডাদেশ নিয়ে আপত্তি জানিয়েছে বিশ্বের এই প্রধান পরাশক্তি।

বাংলাদেশ সময় বুধবার সকালে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বিশ্বের অন্যতম এই পরাশক্তি এ সমর্থন জানায়। একই সঙ্গে বিচার প্রক্রিয়ায় স্বচ্ছতা ও নিরপেক্ষতা বজায় রাখার তাগিদও দেওয়া হয় বিবৃতিতে।
আন্তর্জাতিক মান বজায় রেখে বাংলাদেশের নিজস্ব আইনে এই বিচার হতে হবে বলেও বিবৃতিতে মন্তব্য করা হয়। আইনের শাসন নিশ্চিত করার আহবান জানানো হয় বাংলাদেশ সরকারের প্রতি। দেওয়া হয় আন্তর্জাতিক সনদ অনুসরণের পরামর্শ।

এতে বলা হয়, “এ ধরনের অপরাধ (মানবতাবিরোধী অপরাধ) যারা করে তাদের বিচার যুক্তরাষ্ট্র সমর্থন করে। একইসঙ্গে বিশ্বাস করে, এ বিচার অবশ্যই অবাধ, নিরপেক্ষ ও স্বচ্ছতার ভিত্তিতে হতে হবে।”

এর আগে মঙ্গলবার ব্রিটিশ সরকারও এক বিবৃতিতে ১৯৭১ সালের নৃশংস কর্মকাণ্ডের জন্য দায়ীদের বিচারে বাংলাদেশের প্রচেষ্টাকে সমর্থন জানায়। তবে যুক্তরাষ্ট্রের মতোই মৃত্যুদণ্ডের বিরুদ্ধে অবস্থান নেয় এই ইউরোপীয় সুপারপাওয়ার।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে গণহত্যা, খুন, ধর্ষণ, লুটপাট, অপহরণ ও নির্যাতনের দায়ে পলাতক আবুল কালাম আজাদ ওরফে বাচ্চু ‍রাজাকারের বিরুদ্ধে সোমবার ফাঁসির আদেশ দেন বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল।

নিউজরুম

শেয়ার করুন