বিলজুড়ে পাকা ধান

0
63
Print Friendly, PDF & Email

কৃষি ডেস্ক(২২ জানুয়ারী): ২২ বছর ধরে খালে বাঁধ দিয়ে মাছমারা বিলে চিংড়ি চাষ করছিলেন বাগেরহাটের মংলাবন্দর পৌরসভার সাবেক এক চেয়ারম্যানজমির মালিকদের নামমাত্র ইজারার টাকাদিয়ে, একরকম জোর করেই প্রায় ১২৫ একর জমিতে লবণপানি আটকে চিংড়ি চাষ করছিলেনতিনি
এলাকাবাসীর আন্দোলনের মুখে গত বছরের জানুয়ারিতে বাঁধটি অপসারণ করেউপজেলা প্রশাসনখালের বাঁধ উন্মুক্ত থাকায় এবং লবণপানি আটকে না থাকায়মাছমারা বিলের জমির মালিকেরা এবার ধানের ব্যাপক ফলন পেয়েছেন
১৮জানুয়ারি সরেজমিনে মংলা পৌর এলাকার ওই বিলে দেখা গেছে, বিলজুড়ে পাকা ধানমাছমারা গ্রামের পিটার বিধু দাশ বলেন, ‘বিলে মাছমারা, মাকড়ঢোন, পেড়িখালী, নারকেলতলা, চাঁদপাই ও কুমারখালী গ্রামের মানুষের প্রায় ১২৫ একর জমি রয়েছে২২ বছর ধরে আমরা জমির ফসল থেকে বঞ্চিত ছিলামএই এলাকা এমনিতেই লবণাক্ততাছাড়া যিনি ঘের করতেন, এই বিলের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত খালে তিনি বাঁধ দিয়েরেখেছিলেনফলে কোনো ফসল আমরা পাইনিগত বছর উপজেলা প্রশাসন বাঁধ উন্মুক্তকরে দেওয়ায় আমরা এবার ধানের ভালো ফলন পেয়েছি
মাছমারা বিলের ২৫ বিঘাজমির মালিক শহিদুল ইসলাম বলেন, ‘বাঁধ অপসারণের ফলে আমরা বিঘাপ্রতি ২০-২৫ মণধান পেয়েছিআমাদের জমিতে অন্যরা চিংড়ি চাষ করতআর আমাদের ফসলের অভাবেচাল কিনে খেতে হতোএ ছাড়া জমিতে সারা বছর লবণপানি আটকে না থাকায় আমাদেরগবাদিপশুগুলোর খাদ্যের অভাবও পূরণ হচ্ছে
মংলা উপজেলা নির্বাহীকর্মকর্তা (ইউএনও) মিজানুর রহমান বলেন, ‘শুধু মাছমারা খাল নয়, গত বছর আমরাআরও কিছু সরকারি খালের বাঁধ অপসারণ করেছিলামএসব জায়গায় ধানের ফলন ভালোহয়েছে

 

নিউজরুম

 

শেয়ার করুন