শিশুপুত্র থিয়াগোকে নিয়ে মেসির স্বপ্ন

0
101
Print Friendly, PDF & Email

স্পোর্টস ডেস্ক(২২ জানুয়ারী): আগের বছরের সবচেয়ে বড় প্রাপ্তির কথা বললে কোনটা বেছে নেবেন লিওনেল মেসি? না, ব্যালন ডি অর নয়এক পঞ্জিকাবর্ষে জার্ড মুলারের সবচেয়ে বেশি গোলেররেকর্ড নিজের করে নেওয়াও নয়শিশুপুত্র থিয়াগো! ২০১২ সালেই মেসি-রোকুজ্জোরঘর আলো করে এসেছে ফুটফুটে সন্তান থিয়াগোদিন শেষে সেই অবোধ শিশুর হাসিই সবক্লান্তি ধুয়েমুছে দেয় বার্সেলোনা ফরোয়ার্ডের
কাতালান দৈনিক এলপিরিওডিকোকে দেওয়া সাক্ষাত্কারে মেসি বলেছেন, ‘আগে বাসায় গিয়েই মনে হতো আমিবুঝি এখনো বাইরেসবকিছু ঠিকঠাকও চলছে নাএখন আমার ছেলেকে দেখলে তেমন আরমনে হয় নাসব ব্যালন ডি অরের চেয়েও থিয়াগো আমাকে অনেক বেশি বদলে দিয়েছেএই মুহূর্তে তাই মেসির কাছে পুরো পৃথিবী একদিকে, থিয়াগো অন্যদিকে, ‘সেআমার জীবন বদলে দিয়েছেএই মুহূর্তে ও-ই আমার কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ
এইসন্তান যেন মাঠে আগের চেয়েও অপ্রতিরোধ্য করে তুলেছে মেসিকেমেসিরবৃহস্পতি এখন সত্যিই তুঙ্গেসর্বকালের সেরা ক্রীড়াবিদদের কাতারে তাঁর নামথাকবে কি না, সে আলোচনাই উঠেছেকিন্তু আর্জেন্টাইন তারকা বিনয়ের সঙ্গেইমোহাম্মদ আলী, মাইকেল জর্ডানদের মতো কিংবদন্তিদের সঙ্গে নিজের তুলনাটাঅপছন্দ করেন, ‘মাইকেল জর্ডান, উসাইন বোল্ট বা মোহাম্মদ আলীদের সঙ্গে আমারতুলনা করাটা পাগলামিআমি তুলনা পছন্দ করি নাকারও সঙ্গে নিজেকে তুলনাকরার আমি কে? আমি শুধু নিজের কাজটাই করছিযখন ক্যারিয়ার শেষ হবে, তখন দেখবআমি কেমন করেছি
শুধু খেলোয়াড়ি মানদণ্ডেই নয়, বরং কথার পরিমিতিবোধেওযে তিনি অনন্য, সেই প্রমাণও দিয়েছেন বার্সেলোনা ফরোয়ার্ড, ‘আমিই আমারসবচেয়ে বড় সমালোচককখন ঠিক করলাম বা কখন ভুল করলাম, সেটা আমি নিজেই সবচেয়েভালো জানি
এবারও মেসিই ব্যালন ডি অর জিতছেন, এমন সম্ভাবনাটা বলতেগেলে ছড়িয়ে পড়েছিল বাতাসেকিন্তু তাঁর কাছে নাকি এটা চমকই হয়ে এসেছিল, ‘আমার নাম যখন বলা হলো, আমি অবাকই হয়েছিলামআমি এটা আশা করিনিবার্সারহয়ে সম্ভাব্য সবকিছু জিতলেও এখনো যে অতৃপ্তিটা তাঁর মনে কাঁটার মতো বিঁধে, সেটি বিশ্বকাপঅধরা বিশ্বকাপটা জিততে চান আগামী বছরইসর্বকালের সেরাহওয়ার জন্য এই মণিহার যে তাঁর ভীষণ দরকার!

 

নিউজরুম

 

শেয়ার করুন