মুখে নিকষ কালো অন্ধকার

0
141
Print Friendly, PDF & Email

স্পোর্টস ডেস্ক(৯ জানুয়ারী): জিয়াউর রহমান যেন ফিরে পেলেন নিজের বোলার সত্তা! শীতের সকালে বিসিবিউত্তরাঞ্চল তাতে আক্ষরিক অর্থেই জমে গেলফরহাদ, জহুরুল, নাঈমকে ফেরানোর পরনাসিরকেও এলবিডব্লিউ করে দেখালেন ড্রেসিংরুমের পথ৫২ রানে পঞ্চম উইকেটেরপতনমধ্যাহ্ন বিরতিটা তখনই দিয়ে দেওয়ায় নন স্ট্রাইকিং এন্ডে থাকাউত্তরাঞ্চলের অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমও নাসিরের পিছু পিছু মাঠ ছাড়লেনমুখেনিকষ কালো অন্ধকার
ড্রেসিংরুমের সামনে দাঁড়িয়ে দুই ব্যাটসম্যানেরফিরে আসা দেখছিলেন সাজেদুল ইসলামপেস বোলার, ব্যাটিং করেন ১০ নম্বরেব্যাটসম্যানেরা কেন এভাবে আউট হয়ে ফিরছেন, সেটার ব্যাখ্যা তিনি আর কীদেবেন! তার পরও এই অবস্থা কেনপ্রশ্নে অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যানের মতো বললেন, ‘বলে প্রচুর মুভমেন্ট হচ্ছেপ্রথম দুইটা ম্যাচই বগুড়ায় খেলেছি তো, ওখানেফ্ল্যাট উইকেটে খেলে এসে এখানে মুভমেন্টে সমস্যা হচ্ছে
ব্যাটসম্যানেরমতো কথাই বললেন না শুধু, মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে কাল সত্যি সত্যিইব্যাটসম্যান হয়ে গেলেন সাজেদুলউইকেট বা বোলিং কোনোটাই তখন খুব কঠিন মনেহলো না৫২ রানে নাসিরের আউটের পর অষ্টম উইকেট পর্যন্ত ব্যাটিং বিপর্যয়েরমধ্য দিয়েই এগোনো উত্তরের ইনিংস যেন নতুন করে শুরু হলো নবম উইকেট জুটিতেসানজামুল-সাজেদুলের ফিফটির সুবাদে এই জুটিতেই এল ১২৭ রান
চার ছক্কা আরনয় বাউন্ডারিতে ৭৫ বলে ৭৬, প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে নিজের সর্বোচ্চ ইনিংসটাসাজেদুল খেললেন পুরোই ওয়ানডে মেজাজেদুবার জীবন পেলেন, আউটের ধরনওওয়ানডেসুলভসেঞ্চুরির সম্ভাবনা যে উঁকি দিচ্ছে, সেটা দেখেও যেন দেখলেননাতাপস ঘোষকে বের হয়ে মারতে গিয়ে স্টাম্পড২০০৮ সালে জাতীয় লিগেখুলনার বিপক্ষে বরিশালের হয়ে ক্যারিয়ার-সর্বোচ্চ ৭৫ রানের ইনিংসটা মাত্রইপেরিয়েছেন তখন
শেষ উইকেটে সানজামুল-সাকলাইন সজীব যোগ করেছেন আরও ৩৯১৩৮ বলে ৭৩ রান (৮টি চার) করে শাফাক আল জাবেরের বলে কট বিহাইন্ড হয়েছেনসানজামুলদলের রানটা ৩০০-তে নিতে পারলে একটি বোনাস পয়েন্ট পাওয়া যেততবে ২৯১-যে হলো, সাজেদুল-সানজামুল জুটির আগে সেটাও সম্ভবত আশা করেনিউত্তরাঞ্চলওপেনার জহুরুলের ২৯ আর অধিনায়ক মুশফিকের ৩৬ ছাড়া টপ ও মিডলঅর্ডারে কেবলই ব্যর্থতার হাহাকারমূল ধাক্কাটা দিয়েছেন প্রাইম ব্যাংকদক্ষিণাঞ্চলের পেসার জিয়াপ্রথম পাঁচ উইকেটের চারটিই জিয়ারসাজেদুলেরব্যাটসম্যান হয়ে ওঠার মতো জিয়ার বোলার হয়ে ওঠাটাও এ ম্যাচের একটা বিশেষঘটনাকারণ জিয়া মূলত পেস বোলার হলেও ঘরোয়া ক্রিকেটের ব্যাটিংপারফরম্যান্সের জন্য সাম্প্রতিক সময়ে তাঁকে ব্যাটসম্যান হিসেবেই চিনতেশুরু করেছিল সবাইসেই জিয়ার এমন বোলিং দেখে প্রধান নির্বাচক আকরাম খানওরসিকতা করলেন, ‘জিয়া দেখি বোলার হয়ে গেছে!

 

নিউজরুম

 

শেয়ার করুন