২৭০ বছরের পুরোনো ব্যাংক বন্ধ হয়ে যাচ্ছে

0
113
Print Friendly, PDF & Email

ব্যবসা ও অর্থনীতিডেস্ক(৬ জানুয়ারী):সুইজারল্যান্ডের সবচেয়ে প্রাচীন ব্যাংক ওয়েগেলিন স্থায়ীভাবে বন্ধ হয়ে যাচ্ছে।
যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকদের কর ফাঁকি দিতে সহায়তা দেওয়ার অভিযোগ স্বীকার করেছে ২৭০ বছরের পুরোনো এই সুইস ব্যাংক। নিউইয়র্কের একটি আদালতের কাছে অভিযোগ স্বীকার করে ব্যাংকটি মার্কিন কর্তৃপক্ষকে পাঁচ কোটি ৭৮ লাখ মার্কিন ডলার (চার কোটি ৪০ লাখ ইউরো) জরিমানা দিতেও রাজি হয়েছে।
আর জরিমানার অর্থ পরিশোধ হয়ে গেলে ওয়েগেলিন ব্যাংক হিসেবে তার কার্যক্রম গুটিয়ে ফেলারও ঘোষণা দিয়েছে।
সুইস ব্যাংকটি অভিযোগ স্বীকার করে জানিয়েছে, তারা ১০ বছরে ১০০ জন মার্কিন নাগরিককে মোট ১২০ কোটি ডলারের অভ্যন্তরীণ রাজস্ব ফাঁকি দেওয়ার ক্ষেত্রে সহযোগিতা করেছে।
আমেরিকার স্বাধীনতা ঘোষণারও ৩৫ বছর আগে সুইজারল্যান্ডের ছোট্ট শহর সেন্ট গ্যালেনে ১৭৪১ সালে ব্যবসায়িক কার্যক্রম শুরু করে ওয়েগেলিন।
ওয়েগেলিন হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রে নাগরিকদের কর ফাঁকি দিতে সহায়তা দেওয়ার অভিযোগ স্বীকার করা প্রথম বিদেশি ব্যাংক। অন্যান্য সুইস ব্যাংক অবশ্য সাম্প্রতিক বছরগুলোতে মার্কিন নাগরিকদের অফশোর অ্যাকাউন্ট খোলেনি।
মার্কিন অ্যাটর্নি প্রিট ভাহারা প্রসঙ্গে জানান, আমেরিকার আইনগত চাপের কারণে অন্যান্য সুইস ব্যাংক যখন তাঁদের নাগরিকদের অফশোর অ্যাকাউন্ট খোলার মাধ্যমে কর ফাঁকি দেওয়ার প্রবণতা ঠেকিয়েছে, তখন ওয়েগেলিন স্বেচ্ছায় সেই কাজটিই করে গেছে।
এদিকে আরেক সুইস ব্যাংক ক্রেডিট স্যুইসির বিরুদ্ধেও এখন মার্কিন কর্তৃপক্ষ তদন্ত পরিচালনা করছে। ছাড়া আরেক বড় ব্যাংক জুলিয়াস বায়েরসহ যুক্তরাষ্ট্রের ১১টি স্থানীয় ব্যাংকও একই ধরনের চাপে রয়েছে।

 

নিউজরুম

শেয়ার করুন