মহেশপুর সীমান্তে ৩ বাংলাদেশিকে ধরে নিয়ে গেছে বিএসএফ

0
183
Print Friendly, PDF & Email

ঝিনাইদহ (৬জানুয়ারী) : ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার শ্রীনাথপুর ও শ্যামকুড় সীমান্ত থেকে রোববার সকালে ৩ বাংলাদেশি গরু ব্যবসায়ীকে ধরে নিয়ে গেছে ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনী (বিএসএফ)। এদের মধ্যে ২ জনের পরিচয় পাওয়া গেছে। এরা হলেন, মহেশপুর উপজেলার সরিষাঘাটা গ্রামের রবিউল ইসলামের ছেলে মতিয়ার রহমান (২৭) ও একই উপজেলার পিপুলবাড়িয়া গ্রারে শহিদুল ইসলাম(২৬)।

মহেশপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন জানান, রোববার ভোর ৫টার দিকে ভারতের ফতেপুর এলাকায় গরু নিয়ে আসার সময় বিএসএফের ফতেপুর ক্যাম্পের সদস্যরা মতিয়ার ও শহিদুলকে ধরে নিয়ে যায়।

বিজিবির শ্রীনাথপুর ক্যাম্প কমান্ডার নায়েক সুবেদার মো. শফিকুল ইসলাম জানান, দুই বাংলাদেশিকে ধরে নিয়ে যাওয়ার ঘটনাটি শুনে সত্যতা যাচাইয়ের জন্য লোক পাঠানো হয়েছে। বিএসএফের হাতে আটক সরিষাঘাটা গ্রামের মতিয়ার রহমানের বাড়িতে বিষয়টি জানতে গেলে তার স্বজনরাও কিছু বলতে পারেনি।

তিনি বিজিবির কুসুমপুর ক্যাম্পে খোঁজ নিতে সাংবাদিকদের পরামর্শ দেন।
 
এ ব্যাপারে বিজিবির কুসুমপুর ক্যাম্পের নায়েক সুবেদার মো. আব্দুল আজিজ জানান, শ্রীনাথপুর সীমান্ত থেকে দুই বাংলাদেশিকে ধরে নিয়ে গেছে বলে তিনি শুনেছেন। কিন্তু তাদের পরিচয় জানাতে পারেননি তিনি।
 
তিনি আরও জানান, রোববার ভোরে দুই বাংলাদেশিকে নিয়ে যাওয়ার পর সকাল সাড়ে ১০টার দিকে শ্যামকুড় সীমান্ত থেকে ভারতের শফিপুর বিএসএফ ক্যাম্পেরা সদস্যরা অজ্ঞাত আরও এক গরু ব্যবসায়ীকে ধরে নিয়ে গেছে।

রাতে গরু আনতে গিয়ে কাটাতারের বেড়ার কাছে অজ্ঞাত ওই ব্যক্তি তার মোবাইল ফোন ফেলে আসে। রোববার সকালে মোবাইল ফোন আনতে গেলে তাকে বিএসএফ আটক করে। লোকটির নাম পরিচয় নিশ্চিত হয়ে তাকে ফেরৎ চেয়ে ভারতের শফিপুর বিএসএফ ক্যাম্পে চিঠি দেওয়া হবে বলে কুসুমপুর ক্যাম্পের নায়েক সুবেদার মো. আব্দুল আজিজ জানান।

এ ব্যাপারে মহেশপুর উপজেলার শ্যামকুড় উইনিয়নের চেয়ারম্যান আল ইমরান জানান, তিনিও শ্যামকুড় সীমান্ত থেকে এক গরু ব্যাবাসীকে ধরে নিয়ে যাওয়ার খবর পেয়েছেন। কিন্তু তার নামপরিচয় পাওয়া যায়নি।

নিউজরুম

শেয়ার করুন