ময়মনসিংহে যুব ও ছাত্রদলের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ায় আহত ১০, আটক ৬

0
161
Print Friendly, PDF & Email

ময়মনসিংহ (৫জানুয়ারী) : হরতাল সমর্থনে ময়মনসিংহে ১৮ দলের মিছিল শেষে যুবদল ও ছাত্রদলের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ায় কেন্দ্রীয় যুবদল নেতা লিটন আকন্দসহ কমপক্ষে ১০ নেতাকর্মী আহত হয়েছেন।

শনিবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে শহরের নতুন বাজার মোড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পরে এ ঘটনায় শহর যুবদল নেতা সোহেল পাঠান, মোশাররফ, আনিছ, মনিরসহ ৬ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

এদিকে, কেন্দ্রীয় যুবদল নেতা লিটন আকন্দ আহত হওয়ার খবরে বিক্ষুব্ধ যুবদল নেতাকর্মীরা ময়মনসিংহ দক্ষিণ জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী এ.কে.এম.মোশাররফ হোসেনের বাসা ভাঙচুর করেছে। এ সময় সাবেক জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী ও ময়মনসিংহ দক্ষিণ জেলা বিএনপির সভাপতি এ.কে.এম.মোশাররফ হোসেন নিজ বাসাতেই অবরুদ্ধ ছিলেন।

এ সময় সাবেক প্রতিমন্ত্রীকে রক্ষা করতে গিয়ে তার এপিএস আসাদুল ইসলাম হীরা মারাত্মক আহত হয়েছেন। তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ সময় যুবদলের নেতাকর্মীরা সাবেক প্রতিমন্ত্রীর বাসায় স্থাপিত ময়মনসিংহ দক্ষিণ জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের কার্যালয়ও ব্যাপক ভাঙচুর করে।

দলীয় সূত্র জানায়, হরতালের সমর্থনে মিছিল থেকে পুলিশকে লক্ষ করে ককটেল নিক্ষেপের ঘটনায় দুই পক্ষের মধ্যে কথাকাটাকাটি হয়।

কোতোয়ালি ও শহর যুবদলের নেতাকর্মীরা ককটেল নিক্ষেপের ঘটনার প্রতিবাদ জানালে জেলা ছাত্রদলের এক পক্ষ তার বিরোধিতা করে। পরে দুই পক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়।

এ ব্যাপারে কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফজলুল করিম জানান, এখন সংঘর্ষ থেমে গেছে। পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। পুলিশ ৬ জনকে গ্রেফতার করেছে।

নিউজরুম

শেয়ার করুন