“দাবি মেনে নিন, নয়তো ইয়াহিয়া খান, আইয়ুব খান ও এরশাদের মতো পরিণতি হবে”

0
81
Print Friendly, PDF & Email

ঢাকা ( ৪জানুয়ারী) : বিএনপির দাবি মেনে না নিলে ক্ষমতাসীনদের এরশাদের মতো পরিণিতি ভোগ করতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্রিগেডিয়ার (অব.) আ স ম হান্নান শাহ।

শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে প্রতীকী অবস্থানে দেওয়া প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে তিনি এ কথা বলেন।

হান্নান শাহ বলেন, “বিএনপির পক্ষ থেকে যে সব দাবি তোলা হয়েছে সেগুলো মেনে নিন, নয়তো ইয়াহিয়া খান, আইয়ুব খান ও এরশাদের  মতো পরিণতি ভোগ করতে হবে।”

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের মুক্তি ও যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এবং আমার দেশ পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাহমুদুর রহমানের বিরুদ্ধে দায়ের করা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে বাংলাদেশ উন্মুক্ত গণতান্ত্রিক পরিষদ এ প্রতীকী অবস্থানের আয়োজন করে।  

প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন,  “খালেদা জিয়াকে আপনি বলেছেন সাপের ঝাঁপি মাথায় নিয়ে তিনি খেলছেন। কিন্তু না, ১৯৯৫ থেকে ৯৬ সাল পর্যন্ত জামায়াতকে মাথায় নিয়ে ঘুরলেন। গোলাম আজমের মগবাজারের বাড়িতে গেলেন। তসবি-জায়নামাজও দেওয়া হলো আপনাকে। এখন জামায়াত আপনাদের সঙ্গে নেই বলেই এসব কথা বলছেন। ৭১ সালে তো আপনি পাকিস্তান আর্মিদের রেশন খেতেন।”

তিনি আরো বলেন, “আওয়ামী দ্বৈতনীতি বলে শেষ করা যাবে না। দুই-তিনটি মহাবাক্য লিখলেও এসব শেষ করা যাবে না।”

যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনাল সম্পর্কে তিনি বলেন,  “ট্রাইব্যুনাল নিয়ে আমার দেশ পত্রিকার খবর যদি সত্যি না হতো তাহলে বিচারপতি কেন পদত্যাগ করলেন? প্রকৃতপক্ষে সরকারই যুদ্ধাপরাধীদের বাঁচানোর চেষ্টা করছে। সরকার উদ্দেশ্যমুলকভাবে ট্রাইব্যুনালকে একটি বিভ্রান্তিমুলক অবস্থায় ফেলে দিয়েছে।”

এ প্রসঙ্গে তিনি আরো বলেন, “বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী আমার কাছে একটি লিস্ট পাঠিয়েছেন, সে লিস্টে ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ থেকে ১৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত যারা পাক আর্মিকে সহায়তা করেছে তাদের নাম রয়েছে ওই লিস্টে। ওই লিস্টে আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ আশিকুর রহমানসহ অনেকের নাম রয়েছে।

প্রতীকী অবস্থানে বক্তব্য রাখেন বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, চিফ হুইপ জয়নুল আবদিন ফারুকসহ অন্যরা।

নিউজরুম

শেয়ার করুন