আ’লীগের নতুন কমিটিতে তেমন কোন পরিবর্তন নেই, তবে নির্বাহীতে স্থান পেয়েছেন পলক সহ ৫জন

0
115
Print Friendly, PDF & Email

ঢাকা (৩ জানুয়ারী): আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলী থেকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মহীউদ্দীন খান আলমগীর এবং শ্রম ও জনশক্তি-মন্ত্রী রাজিউদ্দিন আহমেদ বাদ পড়লেন। পদ্মা সেতু কেলেঙ্কারির ঘটনায় বহুল আলোচিত সাবেক যোগাযোগমন্ত্রী সৈয়দ আবুল হোসেনও দলের কেন্দ্রীয় কমিটি থেকে ছিটকে পড়েছেন।
নতুন কমিটিতে বড় রকমের কোনো পরিবর্তন নেই। আগের কমিটির বেশির ভাগ সদস্যই কমিটিতে বহাল রয়েছেন। সংস্কারপন্থী বলে পরিচিত নেতারা দলের কেন্দ্রীয় কমিটিতে স্থান পাননি। সৈয়দ আবুল হোসেন একদিকে কেন্দ্রীয় কমিটি থেকে বাদ পড়েছেন। অন্যদিকে তাঁর নির্বাচনী এলাকা থেকে তাঁরই প্রতিদ্বন্দ্বী আবদুস সোবহানকে (গোলাপ) কেন্দ্রীয় কমিটিতে নেওয়া হয়েছে।
গতকাল বুধবার রাতে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটি, উপদেষ্টামণ্ডলী, সংসদীয় বোর্ড ও কেন্দ্রীয় উপকমিটির সহ-সম্পাদকদের নাম ঘোষণা করা হয়েছে। দলের ধানমন্ডির কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম নতুন পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করেন। এর আগে তিনি গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দুই ঘণ্টাব্যাপী বৈঠক করেন। সেখান থেকে রাত সোয়া আটটায় বেরিয়ে ধানমন্ডির কার্যালয়ে গিয়ে তিনি কমিটির সদস্যদের নাম ঘোষণা করেন।
ঘোষিত কমিটিতে সভাপতিমণ্ডলীর দুটি পদ এবং বন ও পরিবেশবিষয়ক সম্পাদকের পদ খালি রাখা আছে। দ্রুততম সময়ের মধ্যে এসব পদ পূরণ করা হবে বলে জানিয়েছেন সৈয়দ আশরাফ।
সভাপতিমণ্ডলীতে প্রথমবারের মতো স্থান পেলেন সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম এবং নূহ-উল-আলম লেনিন। নাসিম আগের কমিটিতে কেন্দ্রীয় সদস্য এবং লেনিন প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ছিলেন। রাজিউদ্দিন আহমেদ, মহীউদ্দীন খান আলমগীর ও ইউসুফ হোসেন হুমায়ুনকে সভাপতিমণ্ডলী থেকে বাদ দিয়ে উপদেষ্টামণ্ডলীতে স্থান দেওয়া হয়েছে।
রাজিউদ্দিন নরসিংদীর পৌর মেয়র লোকমান হোসেন হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় বিতর্কিত হন। তাঁর ছোট ভাইয়ের বিরুদ্ধে লোকমান হত্যার অভিযোগে মামলা হয়েছে। এ ছাড়া ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী থাকাকালে তাঁর বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর কাছে নানা অভিযোগ দেওয়া হয়।
যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদক পদে কোনো পরিবর্তন হয়নি। আন্তর্জাতিক সম্পাদক পদে দায়িত্ব পেয়েছেন মহিলা ও শিশুবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী শিরীন শারমিন চৌধুরী। এ পদে আগে সৈয়দ আবুল হোসেন ছিলেন। পরিবেশ ও বনমন্ত্রী হাছান মাহমুদ প্রচার সম্পাদকের দায়িত্ব পেয়েছেন। তিনি আগে বন ও পরিবেশবিষয়ক সম্পাদক ছিলেন।
কেন্দ্রীয় সদস্য পদে প্রথমবারের মতো স্থান পেয়েছেন সাংসদ সিমিন হোসেন রিমি, রবিউল আলম মুক্তাদির চৌধুরী, নসরুল হামিদ ও এ্যাডভোকেট জুনাইদ আহমেদ পলক এবং আলাউদ্দিন নাছিম। সাবেক সাধারণ সম্পাদক আব্দুল জলিল আবারও সংসদীয় বোর্ডে স্থান পেয়েছেন। এ ছাড়া অন্য সব পদে আগের কমিটির সদস্যরাই বহাল রয়েছেন।

সম্পাদনা, আনোয়ার হোসেন আলীরাজ,হেড অব নিউজ  

শেয়ার করুন