দুই মামলায় ফখরুলের জামিন মঞ্জুর

0
94
Print Friendly, PDF & Email

ঢাকা (২জানুয়ারী) : পল্টন ও শেরেবাংলা নগর থানার পৃথক দুই মামলায় হাইকোর্ট থেকে ৬ মাসের অন্তবর্তীকালীন জামিন পেয়েছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বিচারপতি কামরুল ইসলাম সিদ্দিকী ও বিচারপতি শেখ মো. জাকির হোসেনের হাইকোর্ট বেঞ্চে বুধবার দুপুরে জামিন আবেদনের শুনানি শেষে এ জামিন মঞ্জুর করেন।

জামিন পাওয়ার খবর বাংলানিউজকে জানিয়েছেন মির্জা ফখরুলের আইনজীবী ব্যারিস্টার মাহবুবউদ্দিন খোকন।

বুধবার সকালে ওই দুই মামলায় মির্জা ফখরুলের জামিনের আবেদন করা হয়। আদালতে ফখরুলের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ এমপি। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল অ্যাডভোকেট মাহবুবে আলম।   

এর আগে গত ২৪ ডিসেম্বর ওই দুই মামলায় মির্জা ফখরুলের জামিন আবেদন না’মঞ্জুর হয় নিম্ন আদালতে। ওই দিন শুনানি শেষে জামিন আবেদন নাকচ করে মির্জা ফখরুলকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ ঢাকার অবকাশকালীন মহানগর দায়রা জজ মো. হেলাল উদ্দিন। মির্জা ফখরুলের আইনজীবী অ্যাডভোকেট ছানাউল্লাহ মিয়া গত ১৮ ডিসেম্বর মামলা দু’টিতে জামিনের আবেদন করেছিলেন।

১০ ডিসেম্বর মির্জা ফখরুলকে গ্রেফতারের পরদিন ১১ ডিসেম্বর এ দুই মামলায় জামিন ও রিমান্ড উভয় আবেদন না’মঞ্জুর করে ফখরুলকে জেলহাজতে পাঠান ঢাকার পৃথক দুই ম্যাজিস্ট্রেট আদালত।

পল্টন থানার মামলায় অভিযোগ করা হয়, মির্জা ফখরুল ৯ ডিসেম্বরের ১৮ দলীয় জোটের অবরোধের আগেই অবরোধের দিন রাস্তায় গাড়ি না বের করার নির্দেশ দেন। গাড়ি বের করা হলে তা ভাংচুর করা হবে বলেও হুমকি দেন তিনি।

৯ ডিসেম্বর ১৮ দলীয় জোটের অবরোধ চলাকালে মির্জা ফখরুল ও রুহুল কবীর রিজভীর নেতৃত্বে ২০০/২৫০ জনের একটি মিছিল বের হয়। মিছিলকারীরা সকাল ৭টার সময় ঢাকা সিটি করপোরেশনের ময়লা আবর্জনা ফেলার একটি গাড়ি ভাংচুর করেন এবং ওই গাড়ির ড্রাইভার এ মামলার বাদী আয়নাল ও হেলপারকে হত্যার উদ্দেশ্যে মারধর করেন। এ মামলায় ফখরুল এজাহারভুক্ত ১নম্বর আসামি।

শেরেবাংলানগর থানার মামলায় অভিযোগ করা হয়, ৯ ডিসেম্বর ১৮ দলীয় জোটের অবরোধ চলাকালে পূর্ব রাজাবাজার পান্থপথের রাস্তায় ভোর সাড়ে ৫টায় মির্জা ফখরুলের প্ররোচনায় অপর আসামিরা একটি সরকারি গাড়ি ভাংচুর করেন এবং পুলিশ সদস্যদের হত্যার উদ্দেশ্যে বোমা ছোড়েন। এ মামলায় ফখরুল এজাহারভুক্ত ৬নম্বর আসামি।

উল্লেখ্য, গত ১০ ডিসেম্বর সন্ধ্যা ছ’টায় নয়াপল্টনে বিএনপি কার্যালয়ের নিচ থেকে মির্জা ফখরুলকে গ্রেফতার করা হয়। বর্তমানে তিনি কারাগারে আছেন। 

নিউজরুম

শেয়ার করুন