ইসরায়েলের নতুন বসতি নির্মাণের উদ্যোগে জাতিসংঘের নিন্দা

0
84
Print Friendly, PDF & Email

রুপসীবাংলা আন্তর্জাতিক ডেস্ক: পূর্ব জেরুজালেমের কাছে ফিলিস্তিনি ভূখণ্ডে ইসরায়েলের নতুন করে বসতি নির্মাণের উদ্যোগকে শান্তিচুক্তির প্রতি মারাত্মক আঘাত বলে মন্তব্য করেছেন জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি মুন। পশ্চিম তীরে ইসরায়েলের নতুন করে ৩ হাজার বসতি নির্মাণের উদ্যোগে রোববার দেয়া এক বিবৃতিতে বান কি মুন তার হতাশা ও উদ্বেগের কথা জানান।

বান কি মুন বলেন, এ সিদ্ধান্ত দু’দেশের শান্তি প্রক্রিয়ায় মারাত্মক ব্যাঘাত ঘটাবে। তিনি বলেন, এ বসতি নির্মাণের ফলে পূর্ব জেরুজালেমের কাছে পশ্চিম তীরের ফিলিস্তিনি অধিবাসীরা নিজ ভূখণ্ড থেকে সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়বে। তাদের স্বাভাবিক জীবন-যাপন অবরুদ্ধ হয়ে যাবে।

জাতিসংঘে ফিলিস্তিনের পর্যবেক্ষক রাষ্ট্রের মর্যাদা দেয়ার একদিন পর ইসরায়েল অতিরিক্ত ৩ হাজার নতুন বসতি স্থাপন করার কথা জানিয়েছে।

ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু বসতি স্থাপনের ব্যাপারে অনড় অবস্থানের কথা জানিয়ে বলেন, আমরা নতুন বসতি নির্মাণ অব্যাহত রাখবো। এবং ইসরায়েলের কৌশলগত মানচিত্রে এ বসতিগুলোও স্থান পাবে।
বৃহস্পতিবার ফিলিস্তিনি প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে ফিলিস্তিনকে পর্যবেক্ষক রাষ্ট্র হিসেবে মর্যাদা দেয়ার জন্য প্রস্তাব করেন। তার সে আহবানে সাড়া দেন জাতিসংঘভুক্ত দেশের অধিকাংশ সদস্যরাষ্ট্র।

এদিকে, নতুন বসতি নির্মাণ বন্ধ করতে এবং শান্তিচুক্তি ধরে রাখতে সমঝোতা বৈঠকের আহবান করেছেন ফিলিস্তিনি প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, ইসরায়েলের নতুন বসতি স্থাপনের ঘোষণায় জাতিসংঘের পর্যবেক্ষক রাষ্ট্রের মর্যাদা পাওয়ার আনন্দ উল্লাস বন্ধ হয়ে গেছে ফিলিস্তিনিদের।

উল্লেখ্য, আন্তর্জাতিক আইননানুযায়ী ভিন্ন রাষ্ট্রের ভূখণ্ডে বসতি স্থাপন অবৈধ ঘোষিত হলেও ইসরায়েল বরাবরই তা প্রত্যাখ্যান করেছে।

নিউজরুম

শেয়ার করুন