অত্যাচার ও গুমের জন্য গণতন্ত্র রক্তাক্ত: তরিকুল

0
81
Print Friendly, PDF & Email

ঢাকা (২৯ ডিসেম্বর) : সংবিধান কাঠগড়ায় দাঁড়িয়ে নিজেই বিচার প্রার্থী হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য তরিকুল ইসলাম।

তিনি বলেছেন, “ এম ইলিয়াস আলীসহ বিএনপির বহু নেতাকর্মীকে গুম করা হয়েছে। অনেককে হত্যা করা হয়েছে। অত্যাচার ও গুমের জন্য গণতন্ত্র আজ রক্তাক্ত। মানবাধিকার আজ শিকলে বাঁধা।  সংবিধান তছনছ করে দেওয়া হয়েছে। সংবিধান এখন কাঠগড়ায় দাঁড়িয়ে নিজেই বিচার প্রার্থী।”

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের মুক্তির দাবি ও দপ্তরের দায়িত্বপ্রাপ্ত বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদকে অবরুদ্ধ করে রাখার প্রতিবাদে আয়োজিত মিছিল পূর্ব সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন।

নয়াপল্টন দলীয় কার্যালয়ের সামনে শনিবার সকালে এ সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিলের আয়োজন করে  জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দল। এতে সভাপতিত্ব করেন স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি হাবিব উন নবী খান সোহেল।

তরিকুল বলেন, “কোনো রাজনৈতিক দল জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে গেলে সাধারণ মানুষের ওপর নির্যাতন শরু করে। আওয়ামী লীগও তেমনি জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে এখন বিরোধী দলসহ সাধারণ মানুষের ওপর অত্যাচার নির্যাতন চালাচ্ছে।”

তিনি বলেন, “ স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় ইয়াহিয়া খানও বাংলার মানুষের ওপর এমন অত্যাচার করেছে। আর এ অত্যাচারের কারণেই স্বাধীনতা ত্বরান্বিত হচ্ছে। বর্তমান সরকার দেশে যেভাবে অত্যাচার চালাচ্ছে তাতে তাদেরও পতন ত্বরান্বিত হবে।

এ সময় বিএনপির নেতাকর্মী ও দেশবাসীকে গণতন্ত্র রক্ষায় ঐক্যবদ্ধ হয়ে রাজপথে নেমে আসার আহ্বান জানান তরিকুল ইসলাম।

সমাবেশ শেষে তরিকুল ইসলামের নেতৃত্বে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয় নয়াপল্টন হয়ে কাকরাইল, শ‍ান্তিনগর, বিজয়নগর, মালিবাগ হয়ে মৌচাক গিয়ে শেষ হয়।

মিছিল পূর্ব সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খান, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা শামসুজ্জামান দুদু, বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ জয়নুল আবদীন ফারুক, মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব আব্দুছ সালাম, যুবদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম প্রমুখ। 

নিউজরুম

শেয়ার করুন