বোস্টনে নিউইংল্যান্ড বিএনপি’র বিজয় দিবস উদযাপন

0
193
Print Friendly, PDF & Email

প্রবাসের চিঠি: যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটস অঙ্গরাজ্যের বোস্টনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল নিউইংল্যান্ড শাখার উদ্যোগে মহান বিজয় দিবস উদযাপিত হয়েছে।

শনিবার ক্যামব্রিজের স্থানীয় রিঞ্জ এভ্যেন্যুর বলরুমে নিউইংল্যান্ড বিএনপির সভাপতি কাজী নুরুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বিজয় দিবসের আলোচনা সভায় অতিথি হিসেবে মঞ্চে উপবিষ্ট ছিলেন বিএনপির উপদেষ্টা ফরহাদ চৌধুরী ও সিনিয়র সহ-সভাপতি সৈয়দ বদরে আলম সাইফুল।

পবিত্র কোরান তেলাওয়াত ও জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনের মাধ্যমে অনুষ্ঠান শুরু করা হয়। এরপর মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের প্রতি, সাম্প্রতিক তাজরীন গার্মেন্টসে নিহত ও কানেকটিকাটের নিউটাউনে স্যান্ডিহুক স্কুলে দুর্বৃত্তদের গুলিতে নিহতদের স্মরণে ১ মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। সভায় বক্তারা বলেন, “বর্তমান সরকার বিরোধী দলের উপর নির্যাতন আর গ্রেফতার অভিযান চালিয়ে বিএনপিকে ধ্বংস করার পরিকল্পনা করছে। কিন্তু তাতে কোনই লাভ হবে না। প্রয়োজনে অসহযোগ আন্দোলনের চেয়েও কঠিন কর্মসূচির মাধ্যমে এই জুলুমবাজ সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করা হবে। অত্যাচার আর জুলুম করে কখনও ক্ষমতায় টিকে থাকা যায় না, অতীত ইতিহাসেও তা নেই।”

বক্তারা যথা সময়ে ক্ষমতা ছেড়ে দিয়ে নির্দলীয় ও নিরপেক্ষ তত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন দেয়ার দাবি জানান। বক্তারা দলের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের গ্রেফতারের তীব্র নিন্দাসহ অবিলম্বে তার মুক্তি দাবি করেন। সাম্প্রতিক তাজরীন গার্মেন্টেসে অগ্নিকান্ডের প্রকৃত কারণ উদঘাটন করে দোষী ব্যক্তিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তিরও দাবি করেন ‍তারা। এছাড়াও বক্তারা বিশ্বজিৎ  হত্যাকান্ডের সঙ্গে জড়িত ছাত্রলীগের সেই খুনীদের গ্রেফতার করে বিচারের কাঠগড়ায় আনার জোর দাবি জানান। তারা উল্লেখ করে বলেন, “স্বয়ং প্রধানমন্ত্রীর মদদপুষ্ট এই ছাত্রলীগ গোটা দেশটাকে জিম্মি করে রেখেছে, অথচ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বসে বসে তা দেখছেন আর আঙ্গুল চুষছেন। তিনি বিশ্বজিৎ হত্যা মামলা থেকে ছাত্রলীগকে বাঁচানোর জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছেন।” বক্তারা অবিলম্বে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করেন।

অনুষ্ঠানে পবিত্র কোরান থেকে তেলাওয়াত করেন অধ্যাপক আব্দুস সালাম, জাতীয় সঙ্গীতে অংশগ্রহণ করেন রোকেয়া জামান এলিজা ও তার দল। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সভাপতি কাজী নুরুজ্জামান, সিনিয়র সহ-সভাপতি সৈয়দ বদরে আলম সাইফুল,উপদেষ্টা বজলুল ওহাব শাহীন ও সাংগঠনিক সম্পাদক আলী হায়দার মনসুর প্রমুখ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন যুগ্ম সাধারন সম্পাদক আবুল বাশার। অনুষ্ঠানে দলের যুগ্ম মহাসচিব তারেক জিয়ার জন্মদিন উপলক্ষে একটি কেক কাটা হয়।

আলোচনা শেষে নৈশ ভোজের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়। 

শেয়ার করুন