ছাত্রলীগ স্টাইলে নিউইয়র্কে বাংলাদেশি ছাত্রকে কুপিয়ে হত্যা

0
471
Print Friendly, PDF & Email

নিউইংল্যান্ড থেকে: নিউইয়র্কে রাফিজুল আলম (১৯) নামের  বাংলাদেশি এক কলেজ ছাত্রকে কুপিয়ে হত্যা করেছে ভারতীয় দুর্বৃত্তরা।

৭ ডিসেম্বর সন্ধ্যা ৭/৮টা দিকে জ্যামাইকার ১৭২ স্ট্রিটের হিলসাইড এভেন্যুর কর্নারে এ ঘটনা ঘটে।

ঢাকায় ১৮ দলের অবরোধ কর্মসূচিতে ছাত্রলীগ কর্মীরা যেভাবে বিশ্বজিতকে লাঠি ও লোহার রড দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে ঠিক একই স্টাইলে ভারতীয় দুর্বৃত্তরা জামাইকার কুইন্স কমিউনিটি কলেজের প্রথম বর্ষের ওই ছাত্রকে খুন করে।

এ দুটি হত্যাকাণ্ড প্রায় একই রকম। পার্থক্য হচ্ছে ঘটনাস্থল ভিন্ন। একটি থেকে আরেকটির দূরত্ব ১৪ হাজার মাইল। এদিন সন্ধ্যার দিকে স্থানীয় হিলসাইড এভেন্যুর কর্নারে রাফিজ তার এক বন্ধুকে সঙ্গে নিয়ে পিজা কিনতে যান। ওই বন্ধু তাকে পিজার অর্ডার দিতে বলে পার্শ্ববর্তী দোকানে ফ্রাইড চিকেন কিনতে যায়।

এসময় সাদা রঙের একটি গাড়িতে করে এসে ওই দোকানের ভেতরে যায় হামলাকারীরা। তাদের টার্গেট যুবককে না পেয়ে বাইরে দাঁড়িয়ে থাকা রাফিজের মাথায় বেইজ বলের স্টিক দিয়ে সজোরে আঘাত করে পালিয়ে যায়।   

এ ঘটনায় সঙ্গে সঙ্গে জ্ঞান হারিয়ে মাটিতে লুটিয়ে পরে রাফিজ। পরে পুলিশ অজ্ঞান অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে জ্যামাইকা হাসপাতালে নিয়ে যায়। জ্ঞান ফেরার পর পুলিশ ঘটনা জানতে চাইলে সঠিকভাবে কোনো উত্তর দিতে পারেননি তিনি।

চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টায় ইনটেনসিভ কেয়ারে মৃত্যু হয় তার। পরে খুনি ওই যুবককে গ্রেফতার করে পুলিশ।

শোক আর অশ্রুভরা চোখে এসব কথা জানালেন রাফিজের মা রোকশানা আলম। পুলিশের কাছ থেকে পাওয়া নানা তথ্য ও পুরো ঘটনার বর্ণনা করেন তার বড় দুই ছেলে রিমেল ও রিহাম।                                                   

আপলোড ১৬ ডিসেম্বর ২০১২

শেয়ার করুন