ক্রন্দনরত বারাক ওবামা আমাদের হৃদয় ভেঙে গেছে

0
152
Print Friendly, PDF & Email

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা যুক্তরাষ্টের নিউ ইয়র্ক সিটি থেকে ৬০ মাইল উত্তর-পূর্বের শহর নিউ টাউনে স্যান্ডি হুক এলিমেন্টারি স্কুলে এক বন্দুকধারীর গুলিতে ২০ শিশুসহ ২৮ জন নিহত  হওয়ার ঘটনায় গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।

 

প্রেসিডেন্ট ওবামা আবেগাপ্লুত কণ্ঠে বলেন, “ আমাদের হৃদয় ভেঙে গেছে। এই শিশুদের বাবা-মা, বোন, স্বজন, সবার জন্য আমাদের মন আজ ব্যথিত।””

 

এটি প্রেসিডেন্ট হিসেবে নয়, অভিবাবক হিসেবেই তার অভিব্যক্তি হিসেবেও উল্লেখ করেন তিনি।

ওবামা হত্যাকাণ্ডে নিহত ও বেঁচে যাওয়াদের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন, যাদের নিষ্পাপ সন্তান এত দ্রুত এইভাবে তাদের কাছ থেকে চলে গেলো, কোনো কিছুতেই তাদের এ ক্ষত শুকাবে না।

শুক্রবার বিকেলে বন্দুকসহ বুলেটপ্রুফ জ্যাকেট পরে প্রায় একশ রাউন্ড গুলি ছোড়ে ওই বন্দুকধারী। এতে সর্বশেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ওই ঘটনায় ২৮ জন গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যান। এদের মধ্যে হামলাকারী ও তার মা রয়েছে বলে জানা গেছে।

আইন প্রয়োগকারী সংস্থা সিবিএস নিউজকে জানান, ২০ বছর বয়সী ওই হামলাকারীর নাম অ্যাডাম লানজা। তার মা ওই স্কুলের শিক্ষকতা করতেন।

এছাড়া একজন শিক্ষকসহ বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থী গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হয়েছেন।ঘটনার সময় স্কুলে মামনুন আহমেদ নামের একজন বাংলাদেশি শিক্ষার্থী থাকলেও নিরাপদ রয়েছে। ৬০০ শিক্ষার্থীর মধ্যে একমাত্র বাংলাদেশি মামনুন প্রথম গ্রেডের ছাত্র।

২০০৭ সালে ভার্জিনিয়ায় বন্দুকধারীর গুলিতে ৩২ জনের প্রাণহানির ঘটনা পর দেশটিতে এত বড় ঘটনা আর ঘটেনি। শুক্রবারের হামলা ২০১২ সালে দেশটির সবচেয়ে বড় বন্দুক হামলার ঘটনা।

এর আগে জুলাই মাসে কলোরাডোর অরোরায় ব্যাটম্যান সিনেমার প্রিমিয়ার শোতে বন্দুকধারীর হামলায় ১২ জন নিহত হয়েছিল। আগস্টে উইনকনসিনে শিখ মন্দিরে হামলায় ৬ জন নিহত হয়েছিল।

আপলোড, ১৬ ডিসেম্বর ২০১২

শেয়ার করুন