বিশ্ববাসী দেখেছে বিশ্বজ্যিৎ দাসকে কিভাবে ছাত্রলীগের কর্মীরা নিসংশভাবে খুন করেছে

0
196
Print Friendly, PDF & Email

ঢাকা (১৩ ডিসেম্বর) : বিএনপির চেয়ারপারসন ও বিরোধীদলীয় নেতা বেগম খালেদা জিয়া বলেছেন, সরকার পাগল হয়ে গেছে, আওয়ামী লীগ নিজেরা মানুষ খুন করে বিএনপির ওপর চাপায়। গত বুধবার রাত দশটায় বিএনপির চেয়ারপারসনের গুলশানস্থ রাজনৈতিক কার্যালয়ে মুক্তিযোদ্ধা গণপরিষদের ৯০ নেতাকর্মীর বিএনপিতে যোগদানকালে তাদের উদ্দেশ্যে এ কথা বলেন তিনি। তিনি বলেন, এ অপদার্থ, ব্যর্থ, লুটপাটকারী ও দুর্নীতিবাজ সরকারকে বিদায় করতে হবে। এজন্য জুলুমবাজের বিরুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধাসহ সকলকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবান জানান খালেদা জিয়া।

 বেগম খালেদা জিয়া বলেন, বিশ্ববাসী দেখেছে বিশ্বজ্যিৎ দাসকে কিভাবে ছাত্রলীগের কর্মীরা নিসংশভাবে খুন করেছে। সরকার খুনীদের গ্রেপ্তার করেনি বরং তাদের নেতারা আবোল তাবোল বকছেন। তিনি বলেন, সরকার শুধু দেশ পরিচালনায়ই ব্যর্থ হয়নি। নির্বাচন কমিশন, সশস্ত্র বাহিনী, সিভিল প্রশাসন ও পুলিশ বাহিনীকে দুর্বল ও ধ্বংস করে ফেলেছে। একটি জাতিকে ধ্বংস করতে যা যা করা দরকার এ সরকার তাই করছে। দুর্নীতি দমন কমিশনকে সরকারের অজ্ঞাবহ দালাল উল্লেখ করে বেগম খালেদা জিয়া বলেন, শেয়ারবাজার, ডেসটিনি, হলমার্ক, পদ্মাসেতুর দুর্নীতির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী ও তার পরিবার জড়িত। আর এদের সহযোগী হচ্ছেন আবুল হোসেন। সরকার দুর্নীতির সঙ্গে জড়িতদের বাঁচাতে আবুলকে ধরছে না। কারণ আবুলকে ধরলে সরকারের সব দুর্নীতির গোপন রহস্য ফাঁস হয়ে যাবে।

 খালেদা জিয়া বিএনপিকে মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের শক্তি উল্লেখ করে বলেন, আওয়ামী লীগ হচ্ছে ধ্বংসার্থক ও লুটপাটের দল। এরা যেমন গণতন্ত্র বোঝে না, মানুষকে ভালোবাসে না, তেমনি দেশকেও ভালোবাসে না। এদের কাজ হচ্ছে, দেশ ধ্বংস করা ও গণতন্ত্র হত্যা করা। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বিএনপির অন্তর্বর্তীকালীন দায়িত্বপ্রাপ্ত সমন্বয়ক ও স্থায়ী কমিটির সদস্য তরিকুল ইসলাম, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, মীর্জা আব্বাস, ভাইস চেয়ারম্যান হাফিজ উদ্দিন আহমেদ, সাদেক হোসেন খোকা ও যোগদানকারী কয়েকজন বক্তব্য রাখেন।
 
 নিউজরুম

শেয়ার করুন