নারায়ণগঞ্জে দুই ফটো সাংবাদিককে পেটালো পুলিশ

0
123
Print Friendly, PDF & Email

রুপসীবাংলা, নারায়ণগঞ্জ (১১ ডিসেম্বর) : নারায়ণগঞ্জে হরতাল চলাকালে পিটেকিংয়ের ছবি তোলার জন্য দুই ফটো সাংবাদিককে বেধড়ক পিটিয়েছে পুলিশ। এক পর্যায়ে পুলিশ তাদের টেনে-হেঁচড়ে পুলিশের গাড়িতে তুলে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় নিয়ে প্রায় দেড় ঘণ্টা আটকে রাখে। পরে অন্য সাংবাদিকরা থানায় গিয়ে তাদের ছাড়িয়ে আনেন।

এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ সাংবাদিকরা সিদ্ধিরগঞ্জ থানার সামনে অবস্থান নিয়ে ওই এসআইর অপসারণ দাবি ও ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন।

পুলিশের নির্যাতনের শিকার দুই ফটো সাংবাদিক হলেন- নিউ এইজের সৌরভ লস্কর ও ডেইলি স্টারের এমরান হোসেন।

এ দুই ফটো সাংবাদিক জানান, তারা বেলা সোয়া ১১টার দিকে ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কের নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার সিদ্ধিরগঞ্জের সানারপাড় এলাকায় যান। সেখানে কয়েকজন পিকেটার রাস্তায় টায়ারে আগুন দেওয়ার চেষ্টা করছিল। তারা দুইজন ওই ছবি তোলার সময় সিদ্ধিরগঞ্জ থানার এসআই মামুনসহ অন্য পুলিশ ঘটনাস্থলে আসে।

সৌরভ বলেন, “পুলিশের এসআই মামুন ঘটনাস্থলে এসেই আমাদের ছবি তুলতে বাধা দেয় এবং গালিগালাজ করতে থাকে। আমরা তার প্রতিবাদ জানালে আমাকে ও এমরানকে রাস্তায় ফেলে লাথি দেয়। পরে অন্য পুলিশ আমাদের টেনে হেঁচড়ে গাড়িতে উঠিয়ে থানায় নিয়ে যায়। পথিমধ্যেও আমাদের মারধর করেছে পুলিশ।

এমরান বলেন, “আমরা আমাদের প্রতিষ্ঠানের পরিচয় দেওয়ার পরও মারধর এবং গালাগাল করা হয়।”

পুলিশ আমাদের বলে, আমাদের আগে তোরা কিভাবে খবর পাইছস- এখানে আগুন ধরানো হবে? সেটা আগে বলতে হবে।

এ সময় দুই সাংবাদিককে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় প্রায় দেড় ঘণ্টা আটকে রাখে পুলিশ। পরে, অন্য সাংবাদিকরা ঘটনাস্থলে গিয়ে দুই সাংবাদিককে ছাড়িয়ে আনেন। তারা পুলিশের অপসারণ দাবী ও ঘটনার বিচারের দাবীতে থানার সামনেই বিক্ষোভ করেন।

দুপুর পৌনে ১টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত সেখানে বিক্ষোভ চলছিল।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি কামরুল আলম মোল্লা এ ঘটনার জন্য দু:খ প্রকাশ করে বলেন, “অভিযুক্ত পুলিশের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”

নিউজরুম

শেয়ার করুন