সারাদেশে আগুন, ভাংচুর, গুলি, ককটেল, ধর-পাকড়ের মধ্যে দিয়ে চলছে হরতাল

0
57
Print Friendly, PDF & Email

রুপসীবাংলা, ঢাকা (১১ ডিসেম্বর) : ১৮ দলীয় জোটের ডাকা দিনব্যাপী হরতালের শুরুতে মঙ্গলবার সকালে রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে যানবাহনে ভাঙচুর, আগুন ও ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে হরতাল সমর্থকরা। এছাড়া ফেনী, চাঁদপুর, সাতক্ষীরা, নারায়ণগঞ্জসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে বিক্ষিপ্ত সংঘর্ষ ও ভাঙচুরের খবর পাওয়া গেছে। বিভিন্ন স্থান থেকে আসছে ধর-পাকড়ের খবরও।

 

রাজধানীর ইত্তেফাক মোড়ে দুটি মিনিবাস ভাংচুর ও দুটি ককটেলের বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে স্বেচ্ছাসেবক দল। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সকাল সাড়ে ১০টার দিকে হরতালের সমর্থনে মঙ্গলবার স্বেচ্ছাসেবক দল একটি মিছিল বের করে। ওই মিছিল থেকে গাড়িতে ইট পাটকেল নিক্ষেপ করা হয়। এসময় মিছিলকারীরা দুটি ককটেলের বিস্ফোরণ ঘটায়। পরে পুলিশ দুই রাউন্ড টিয়ার সেল নিক্ষেপ করে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

 

মতিঝিল ইডেন মসজিদের সামনে হরতাল সমর্থকরা ৩টি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটান। এর মধ্যে ২টি বিস্ফোরিত হয় এবং বাকি একটি বিস্ফোরিত হয়নি। মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে মতিঝিলের ইডেন মসজিদের সামনে একটি মিছিল বের করেন হরতাল সমর্থনকারীরা। এ সময় পুলিশ তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। পরে পুলিশের ধাওয়া খেয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় তারা ৩টি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটান।

 

রাজধানীর উত্তর যাত্রাবাড়ীতে শহীদ ফারুক সড়কে বেলা সোয়া ১১টার দিকে হরতাল সমর্থকদের সঙ্গে যুবলীগ কর্মীদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়া ও ইট-পাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটেছে। পরে পুলিশ রাবার বুলেট ছুঁড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

 

হরতাল শুরুর সোয়া তিন ঘণ্টা পর নয়াপল্টনে হঠাৎ আতঙ্ক ছড়ায় এক ককটেল বিস্ফোরণের আওয়াজ। সকাল ৯টা ২০ মিনিটে জোনাকি সিনেমা হলের সামনে এ ককটেলটি বিস্ফোরিত হয়।

বিস্ফোরণের শব্দে সকচিত হয়ে ওঠেন নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা। দলীয় কার্যালয়ের ভেতরে অবরুদ্ধ থাকা নেতা-কর্মীদের মাঝেও ছড়িয়ে পড়ে আতঙ্ক।

 

রাজধানীর দনিয়ায় ককটেল বিস্ফোরণে আহত হয়েছেন রাসেল নামের পথচারী। দনিয়ার তাহফিজুল ইন্টারন্যাশনাল ক্যাডেট মাদরাসা সংলগ্ন ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে পার্শ্ববর্তী ভবনের ওপর থেকে কে বা কারা দু’টি ককটেল নিক্ষেপ করে। এতে আহত হন রাসেল। সকাল আটটার দিকে এ ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছেন প্রত্যক্ষদর্শীরা।

এদিকে সকাল নয়টার দিকে আরামবাগে হরতাল সমর্থকরা একটি মিছিল বের করলে তাতে ধাওয়া দেয় পুলিশ। এ সময় মিছিলকারীরা ছত্রভঙ্গ হয়ে আরামবাগের বিভিন্ন গলিতে ঢুকে পড়ে। সেখান থেকে কারও আহত বা আটক হওয়ার খবর পাওয়া যায়নি।

 

এর আগে সকাল সোয়া ৭টার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্জন হলের সামনে একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশা পুড়িয়ে দিয়েছে পিকেটাররা। কিছুক্ষণ পর শহীদ মিনার এলাকায়ও ৯-১০ টি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায় তারা। পুলিশ রাবার বুলেট ছুঁড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। সেখানকার পরিস্থিতি থমথমে।

গাবতলী মাজার রোডের আল্লারদান মসজিদের সামনে সকাল ৭টা ৪০ মিনিটে চার-পাঁচজন পিকেটার একটি আট নম্বর গাড়ি ভাঙচুর করে। এসময় তারা দুটি ককটেলও বিস্ফোরণ ঘটায়।দারুস সালাম থানার পুলিশ কর্মকর্তা দৈয়েবুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সকাল ৭টার আগে‍ই মিরপুর-১০ নম্বর গোল চক্করের কাছে বিআরটিসি বাসসহ দুটি যানবাহন ভাঙচুর ও আগুন দেওয়া হয়েছে। এছাড়া ধোলাইরপাড়ে একটি লেগুনা পুড়িয়ে দিয়েছে পিকেটাররা।

ফারমগেটের খামারবাড়ি এলাকায় হরতাল সমর্থকরা একটি মিছিল বের করে সকাল সাড়ে ৭টার পরে। এসময় তারা কয়েকটি গাড়িও ভাঙচুর করে।

সকাল ৮টার দিকে কাকরাইলে সকালে অজ্ঞাত পরিচয়ধারীরা খাদ্য সচিবের গাড়িতেও ভাঙুচর করে। পরে রমনা এলাকায় ব্যাপক অভিযান চালায় পুলিশ।

এর আগে যাত্রাবাড়ীতে সিএনজি স্টেশনের কাছে পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে একটি লেগুনা। দমকল বাহিনী পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

শনিরআখড়ায় হাক্কানি মসজিদ মার্কেটের সামনে পিকেটাররা ঢাকা-চট্টগ্রাম রোডে টায়ায়র জ্বালিয়ে ব্যারিকেড করে। পরে পুলিশ এসে তাদের সরিয়ে দেয়।

অন্যদিকে, হরতালে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে জুরাইন রেলগেট এলাকায় পুলিশ ৬ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়েছে। এখানে জুরাইন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার (ওসি) আবুল কালাম ‍আজাদ রয়েছেন।

 

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার সিদ্ধিরগঞ্জে ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কে বিআরটিসির একটি বাসসহ ৭-৮টি যানবাহন ভাঙচুর করেছে হরতাল সমর্থক পিকেটাররা। এসময় পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ বেধে যায় হরতাল সমর্থকদের। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন অন্তত তিন জন।

 

এদিকে হরতালে চলছে ধর-পাকড়ও। বিএনপির নারায়ণগঞ্জ শহর সম্পাদক ও ছাত্রদলের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সম্পাদকসহ ১০ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৭টায় নারায়নগঞ্জের চাষাঢ়া বালুর মাঠ এলাকায় নূর মসজিদের সামনে থেকে তাকে বিএনপির জেলা সাধারণ সম্পাদক এটিএম কামালকে আটক করা হয়।

এদিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা থেকে ঢাবি ছাত্রদল সাধারণ সম্পাদক মাসুদ খান পারভেজকে আটক করেছে পুলিশ।

এছাড়া কাকরাইল ও শান্তিনগর এলাকাথেকে ছাত্রদল ও শিবিরের আটজনকে আটক করেছে পুলিশ।

 

সাভার

 

সাভার রেডিও কলোনির শিমুলতলা এলাকার ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে ১৮দলীয় নেতাকর্মীরা রাস্তায় গাছের গুড়ি ফেলে অবরোধের চেষ্টা করে। সকাল ৯টার পরে হরতাল সমর্থনকারী একটি বিক্ষোভ মিছিল সরকার বিরোধী নান‍া স্লোগান দিয়ে শিমুলতল‍া এলাকায় জড়ো হয়। এ সময় তারা রাস্তার উপর গুড়ি ফেলে বেশ কিছুক্ষণ রাস্তা অবরোধ করে রাখে। খবর পেয়ে পুলিশ এসে বিক্ষোভকারীদের ধাওয়া করে ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

 

গাজীপুর

 

গাজীপুরে ১৮ দলের ডাকা হরতাল শন্তিপূর্ণভাবে পালিত হচ্ছে। তবে টঙ্গিতে পেট্রোল বোমাসহ আটক হয়েছে ২ জন। এছাড়া সারা জেলায় নাশকতা সৃষ্টির চেষ্টার অভিযোগে ২০ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

টঙ্গি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইসমাইল হোসেন জানান, মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৭টায় গাজীপুর এলাকায় পেট্রোল বোমাসহ তামিরুল মিল্লাত কামিল মাদ্রাসার খালেদ সাইফুল্লাহ (২১) ও মো. হাসান মিয়া (২২) নামে ২ ছাত্রকে আটক করা হয়েছে।

 

চট্টগ্রাম

 

বন্দরনগরী চট্টগ্রামে বিচ্ছিন্ন অপ্রীতিকর ঘটনার মধ্য দিয়ে চলছে। হরতাল শুরুর পর মঙ্গলবার সকাল পৌনে ৮টার দিকে নগরীর পাহাড়তলী থানার সাগরিকা এলাকায় হরতাল সমর্থকরা মিছিল বের করে। পুলিশ তাদের ধাওয়া দিয়ে বায়েজিদ থানা বিএনপির এক নেতা এবং নগর ছাত্রদলের এক নেতা সহ দু`জনকে আটক করেছে।

 

খুলনা

 

খুলনায় হরতালে সমর্থনে দুই স্থানে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে পিকেটাররা। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৭টায় মহানগরীর পিটিআই মোড় এলাকা এবং সকাল সাড়ে ৮টায় শিববাড়ি মোড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। তবে এতে কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। খুলনা বিএনপি অফিস অবরুদ্ধ করে রেখেছে পুলিশ। কোনো নেতা-কর্মীকে অফিসের পাশে যেতে দিচ্ছে না তারা। 

 

চাঁদপুর

 

চাঁদপুরে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় নেতাকর্মীরা হরতাল সমর্থনে মিছিল বের করলে পুলিশের সঙ্গে তাদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে অন্তত ৩ জন আহত হয়েছেন। সকাল ৮টায় চাঁদপুর শহরের কালীবাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এদিকে, সকালে চাঁদপুরের বিভিন্ন স্থান থেকে ৭ জনকে আটক করেছে পুলিশ। এদের মধ্যে ফরিগঞ্জে ৩ জন, মতলব দক্ষিণে ২ জন ও সদর থানায় ২ জন আটক হয়েছেন।

 

ভোলা

 

পুলিশের সঙ্গে পিকেটারদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, টায়ারে আগুন ও যানবহন ভাঙচুরের মধ্য দিয়ে ভোলায় হরতাল চলছে। দিনের শুরুতে ভোর সাড়ে ৫টার দিকে শহরের চরনোয়াবাদ এলাকায় পিকেটাররা টায়ারে আগুন ধরিয়ে সড়ক অবরোধ করে রাখেন। পরে পুলিশ এসে পিকেটারদের ধাওয়া করলে পুলিশের সঙ্গে তাদের কয়েক দফা ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এতে ১০ পিকেটার আহত হন।

 

জামালপুর

 

জামালপুরে বিএনপিসহ ১৮ দলীয় জোটের ডাকা মঙ্গলবারের সকাল-সন্ধ্যা হরতাল চলাকালে যুবদলের ৩ নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। আটককৃতরা হল- রঞ্জু, শিবলী ও সাজু। এরআগে সকালে বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ওয়ারেছ আলী মামুনের নেতৃত্বে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়।

 

ময়মনসিংহ

 

ময়মনসিংহে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় জোটের ২ হাজার ৭৫ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ ও পুলিশি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে মামলা দায়ের করেছে পুলিশ।  মঙ্গলবার সকালে কোতোয়ালি মডেল থানার উপ পরিদর্শক (এসআই)  আমিনুল ইসলাম বাদী হয়ে সোমবার বিকেলে ছাত্রলীগের সঙ্গে বিএনপির ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার সময় ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ ও পুলিশি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে এ মামলা দায়ের করেন। ময়মনসিংহে দলীয় কার্যালয়ে বিএনপি নেতাকর্মীদের অবরুদ্ধ করে রেখেছে পুলিশ। পুলিশি বাঁধার মুখে বিএনপি নেতাকর্মীরা মিছিলও বের করতে পারছে না।

 

বগুড়া

 

মহাসড়ক অবরোধ আর গাড়ি ভাংচুরের মধ্য দিয়ে বগুড়ায় পালিত হচ্ছে ১৮ দল আহূত সকাল সন্ধ্যা হরতাল।
হরতালের শুরুতে সকাল সাড়ে ৭টায় বগুড়া সদর থানার সামনে পরপর দু’টি ককটেলের বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। পুলিশের এএসপি (সহকারী উপ-পরিদর্শক) রোজিনা এবং এসপি (উপ-পরিদর্শক) লাল মিয়া এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এদিকে সদর উপজেলার বাঘোপাড়া এলাকায় ঢাকা-রংপুর মহাসড়কে ছয় থেকে সাতটি গাড়ি ভ‍াংচুর করেছে পিকেটাররা।

 

নীলফামারী

 

ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার মধ্য দিয়ে নীলফামারীতে চলছে ১৮ দলীয় জোটের ডাকা মঙ্গলবারের সকাল-সন্ধ্যা হরতাল। কনকনে শীত উপেক্ষা করে সকাল সাড়ে ৭টার দিকে ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা শহরের বড় বাজার, মুরগীহাটি এলাকায় পিকেটিং শুরু করলে পুলিশ এসে বাধা দেয়। এসময় পুলিশের সঙ্গে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া শুরু হলে এক পর্যায়ে ছাত্রদল কর্মীরা পিছু হটে। তবে কাউকে আটক করা যায়নি বলে জানিয়েছে পুলিশ।

 

রংপুর

 

সারাদেশে ১৮ দলের ডাকা মঙ্গলবারের সকাল-সন্ধ্যা হরতাল রংপুরে ঢিলেঢালা ভাবে পালিত হচ্ছে। সকালে রংপুর মহানগরীর ধর্মদাস এলাকায় শিবির কর্মীরা পিকেটিং করার সময় ৫টি বাস ভাংচুর করলে স্থানীয়রা ২ শিবিরকর্মীকে আটক করে পুলিশে দেয়।

 

ঈশ্বরদী

মঙ্গলবার সকালে ঈশ্বরদীতে ট্রেন অবরোধ করে ভাঙচুর করেছে হরতাল সমর্থনকারী পিকেটাররা। এসময় খুলনা থেকে ঈশ্বরদীতে আসা অপর একটি তেলবাহী ট্রেনে পাথর নিক্ষেপ করলে ওই ট্রেনের ড্রাইভার বানাত আলী গুরুতর আহত হন। পরে তাকে উদ্ধার করে ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেক্সে ভর্তি করা হয়েছে

নিউজরুম

শেয়ার করুন