রোকেয়া দিবসে অবরোধকারীদের ধিক্কার দিন: প্রধানমন্ত্রী

0
104
Print Friendly, PDF & Email

রুপসীবাংলা, ঢাকা (১০ ডিসেম্বর) : রোকেয়া দিবসে বিরোধী দল বিএনপির অবরোধ কর্মসূচি দিয়ে উপমহাদেশের নারী জাগরণের অগ্রদূত বেগম রোকেয়ার প্রতি চরম অবজ্ঞা ও অশ্রদ্ধা দেখিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এজন্য তিনি নারী সমাজকে অবরোধকারীদের প্রতি ধিক্কার জানানোর আহ্বান জানিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “বিএনপি ও জামায়াত-শিবির যুদ্ধাপরাধীদের রক্ষা করতে রোকেয়া দিবসে সড়ক অবরোধ কর্মসূচি পালন করে নারী জাগরণের অগ্রদূতের প্রতি চরম অশ্রদ্ধা প্রদর্শন করেছে। এ জন্য আমি তাদের প্রতি ঘৃণা ও ধৃক্কার জানানোর জন্য নারী সমাজের প্রতি আহ্বান জানাই।”

রোববার ওসমানী মিলনায়তনে বেগম রোকেয়া পদক-২০১২ হস্তান্তরের সময় প্রধানমন্ত্রী এ সব কথা বলেন।

ক্রিকেটে পাঁচ দিনের সাহারা কাপ বাংলাদেশের জয়ের পরদিন অবরোধের সমালোচনা করেন প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, “বিজয়ের মাসে আমাদের ছেলেরা যে বিজয় বয়ে আনলো। তাতে আনন্দফূর্তি না করে গাড়ি পোড়াচ্ছে। বিজয়োৎসবের পরিবর্তে এই কর্মসূচি দিয়ে রাস্তায় ভাঙচুর ও গাড়ি জ্বালাও পোড়াও করা হচ্ছে আসলে। তারা বিজয়ের এই মাসে বাংলাদেশের জয় মেনে নিতে পারেনি।”

স্বাধীনতার পরাজিত শক্তির পৃষ্ঠপোষকতা ও যুদ্ধাপরাধীদের রক্ষার আন্দোলনের নামে তারা আসলে কি চায়। বিজয়ের মাসে তারা কর্মসূচি দিয়ে বিজয়ের মাসকে খাটো করেছে।

তিনি বলেন, “আমরা মানবতাবিরোধী হিংস্র অপরাধের জন্য যুদ্ধাপরাধীদের বিচার শুরু করেছি, আমরা অবশ্যই এই বিচার সম্পন্ন করবো।”

নারী ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ডা. শিরীন শারমিন চৌধুরীর। অনুষ্ঠানে নারী ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব তরিকুল ইসলাম স্বাগত বক্তব্য রাখেন।

অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী নারী অধিকার প্রতিষ্ঠা ও নারীদের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে অবদানের জন্য অধ্যাপক মাহফুজা খানম ও সৈয়দ জেবুন্নেসা হক এমপির হাতে বেগম রোকেয়া পদক তুলে দেন।

নিউজরুম

শেয়ার করুন