‘তত্ত্বাবধায়ক সরকার না দেওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে’

0
295
Print Friendly, PDF & Email

রুপসীবাংলা, সাভার (০৯ ডিসেম্বর) : বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব আমান উল্লাহ আমান বলেছেন, ‘তত্ত্বাবধায়ক সরকার না দেওয়া পর্যন্ত রাজপথে আন্দোলন চলবে’।

বিএনপির ডাকা রোববারের দেশব্যাপী অবরোধ চলাকালে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের আমিন বাজারে অবস্থান নিয়ে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, ‘বিএনপির মিছিলে আওয়ামিলীগের হামলা চালিয়েছে। আমরা এই হামলার নিন্দা জানিয়ে প্রশাসনকে নিরপেক্ষ থাকার আহ্বান জানাচ্ছি।’

এসময় তিনি মিছিল থেকে গ্রেপ্তারকৃত বিএনপি নেতাকমীদের মুক্তি দাবি করেন।
 
আমান উল্লাহ আমান বলেন, ‘আজকের অবরোধ কর্মসূচি নির্দলীয় নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধিনে নির্বাচনের দাবিতে দেওয়া হয়েছে। এ দাবি না মানা পর্যন্ত আমাদের আন্দোলন চলবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা শান্তিপূর্ণভাবে অবরোধ কর্মসূচি পালন করতে চাই। আশা করি, প্রশাসন নিরপেক্ষ থেকে আমাদের সহযোগিতা করবে।’
 
নেতাকর্মীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আপনারা পুলিশের সঙ্গে কোনো ঝামেলায় যাবেননা।’

উল্লেখ্য, রোববার সকাল থেকে সাভার ও আশুলিয়ায় পুলিশের সঙ্গে বিএনপির নেতাকর্মীদের বিক্ষিপ্ত সংঘর্ষে আহত হয়েছে কমপক্ষে শতাধিক ব্যক্তি।

অন্যদিকে, ভোর থেকেই সাভার উপজেলা বিএনপির সভাপতি মাহমুদুল হাসান আলালের নেতৃত্বে নেতাকর্মীরা রাজধানীর প্রবেশ পথ ঢাকা-আরিচা মহাড়কের আমিনবাজারে অবরোধ শুরু করলে পুলিশ ও আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের সঙ্গে তাদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এতে আলালসহ আহত হয় অর্ধশতাধিক।

এসময় বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা ভাঙচুর করে অর্ধশতাধিক যানবাহন। একপর্যায়ে তারা আন্না নামে এক জার্মান নাগরিককে ওই পথে চলাচলরত একটি প্রাইভেট কার থেকে নামিয়ে গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয়। এসময় অবরোধকারীদের হামলায় চালকসহ ওই জার্মান নাগরিক আহত হন।

এসময় অবরোধকারীদের লক্ষ করে বেশ কয়েকটি ককটেল ছোড়ে দুর্বৃত্তরা।

পরে অবরোধ কর্মসূচিতে যোগ দেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব আমান উল্লাহ আমান, বিএনপি নেতা নাজিম উদ্দিন আলম, সাবেক ছাত্রদল সভাপতি সুলতান সালাউদ্দিন বাবু এবং আমিন বাজার ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান কফিল উদ্দিন।

দুপুর ১টা পর্যন্ত মহাসড়কে অবস্থান করে অবরোধ কর্মসূচি অব্যাহত রেখেছে বিএনপি নেতাকর্মীরা।

এদিকে, অবরোধের মুখে ঢাকা-আরিচা, নবীনগর, কালিয়াকৈর ও বাইপাইল আবদুল্লাহপুর মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ রয়েছে।

শেয়ার করুন