অবরোধ, ধাওয়া খেয়ে সিরাজগঞ্জে জামায়াতকর্মীর মৃত্যু

0
232
Print Friendly, PDF & Email

রুপসীবাংলা, সিরাজগঞ্জ (০৯ ডিসেম্বর) : বিএনপির নেতৃত্বাধীন ১৮দলীয় জোটের অবরোধ কর্মসূচি পালন করতে গিয়ে পুলিশ ও সরকার দলীয় আওয়ামী লীগ নেতাকমীদের ধাওয়ায় সিরাজগঞ্জের এনায়েতপুরে এক জামায়াতকর্মীর মৃত্যু হয়েছে।

তবে পুলিশের ভাষ্য, জামায়াতের নেতা-কর্মীরা মিছিল করতে গেলে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের সঙ্গে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। জামায়াতের বয়স্ক ওই কর্মী মাটিতে পড়ে গিয়ে আহত হন। পরে তার মৃত্যু হয়।

জামায়াত কর্মীর নাম ওয়ারেছ আলী(৫৫)। বাড়ি এনায়েতপুর থানার জালালপুর ইউনিয়নের সৈয়দপুর গ্রামে।

জানা যায়, অবরোধ কর্মসূচি পালন করতে জামায়াত মিছিল বের করে এনায়েতপুর থানা এলাকায় পৌঁছালে স্থানীয় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরাসহ পুলিশ মিছিলটিকে ধাওয়া দেয। এ অবস্থায় ওয়ারেছ আলী মাটিতে পড়ে যান। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে খাজা ইউনুছ আলী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

জামায়াতের পক্ষে পুলিশ ও ক্ষমতাসীন দল ইচ্ছে করে অতর্কিত হামলা চালিয়ে তাদের কর্মীকে হত্যা করা হয়েছে বলে দাবি করা হয়েছে। বেলকুচি জামায়াতের আমির রফিকুল ইসলাম সোহেল বলেন, যুবলীগ-ছাত্রলীগ ও পুলিশ ধাওয়া করে ওয়ারেশ আলীকে হত্যা করেছে।

তবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রাশেদুল হাসান সিরাজ এ ঘটনার সঙ্গে তাদের সম্পৃত্ততা নেই বলে দাবি করেন।

তবে এনায়েতপুর থানার ওসি মো: ওয়াহেদুজ্জামান বাংলানিউজকে পুলিশের ধাওয়ার কথা অস্বীকার করে বলেন, আওয়ামী লীগের লোকজনের সঙ্গে ধাওয়ায় জামায়াতকর্মী পড়ে গিয়ে আহত হয়েছেন। পরে শুনেছি মারা যাওয়ার কথা। তবে লাশ দেখিনি।

নিউজরুম

শেয়ার করুন