রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় হরতালে শিবির-পুলিশ ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া আটক ১৫ : ক্লাস-পরীক্ষা হয়নি

0
169
Print Friendly, PDF & Email

 

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাবি (০৪ ডিসেম্বর): বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর ডাকা সকাল-সন্ধা হরতালের সমর্থনে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রশিবির মিছিল বের করলে পুলিশের সাথে তাদের সংঘর্ষ ও ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এসময় বেশ কয়েকটি ককটেল বিস্ফোরণের শব্দ পাওয়া যায়। মঙ্গলবার সকাল ৭টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন বিনোদপুরে ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়কে এ ঘটনা ঘটে।

 মিছিল থেকে দুই শিবির কর্মীসহ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ১৫জনকে আটক করেছে পুলিশ। এদিকে হরতালের কারণে বিশ্ববিদ্যালয় পরিবহনের বাস বন্ধ ছিল। কোন বিভাগে ক্লাস-পরীক্ষা হয়নি।ছাত্রলীগকেও কোন হরতাল বিরোধী মিছিল সমাবেশ করতে দেখা যায়নি।

সকাল ৭টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন বিনোদপুর বাজার থেকে শিবির নেতাকর্মীরা হরতালের সমর্থনে মিছিল বের করে। মিছিলটি বিশ্ববিদ্যালয় প্রধান ফটকের সামনে গেলে সেখানে চলন্ত একটি গাড়ী ভাংচুরের চেষ্টা করে হরতাল সমর্থকরা।

পুলিশ তাদের বাধা দিলে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। এ সময় উভয় গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়লে তারা ছত্রভঙ্গ হয়ে পিছু হটে।

এসময় ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়ক প্রায় আধাঘন্টা ধরে অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে। ঘটনাস্থল থেকে শিবিরের ২ কর্মীকে আটক করে পুলিশ। এছাড়া সোমবার রাত থেকে গতকাল সন্ধ্যা পর্যমত্ম বিশ্ববিদ্যালয় পার্শ্ববর্তী বিভিন্ন মেসে অভিযান চালিয়ে ১৫জনকে আটক করে পুলিশ। আটককৃতদের থানায় রাখা হয়েছে।

জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাদের জেল হাজতে পাঠানো হবে বলে জানান, মতিহার থানার ডিউটিরত অফিসার কাজল রেখা।হরতালের কারণে ক্যাম্পাস ছাড়াও বিশ্বদিবদ্যালয় সংলগ্ন বিনোদপুর, কাজলা ও তালাইমারী এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ ও র‌্যাব মোতায়েন ছিল। 

মতিহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সানাউল হক জানান, সকালে শিবির কর্মীরা মিছিল বের করার চেষ্টা করলে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়া হয়। সেখান থেকে ২জনকে আটক করা হয়েছে। তিনি বলেন, হরতালে যেকোন অপ্রীতিকর ঘটনা মোকাবেলায় পুলিশ সতর্ক অবস্থানে ছিল।

প্রকতবেদক. এরশাদুল বারী কর্ণেল সম্পাদনা, আলীরাজ/ রাফি, নিউজরুম

শেয়ার করুন