লালপুরে এক ব্যাক্তিকে কুপিয়ে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা: আটক-১

0
117
Print Friendly, PDF & Email

নাটোর প্রতিবেদক,(১১ নভেম্বর) : নাটোরের লালপুরে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে রাকিবুল ইসলাম নামে এক যুবককেকে ধারাল অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। রোববার সকাল ১০টার দিকে  উপজেলার রামকৃষ্ণপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে পুলিশ একই গ্রামের শামসের আলীর ছেলে শফিকুল ইসলাম নামে একজনকে আটক করেছে। নিহত রাকিবুল ইসলাম রামকৃষ্ণপুর গ্রামের মঞ্জুরুল ইসলামের ছেলে।

 

এলাকাবাসী জানায়, উপজেলার রামকৃষ্ণপুর গ্রামের মঞ্জুরুল ইসলামের ছেলে রাকিবুল ইসলাম রাকিব ও পার্শ্ববর্তী বালিতিতা ইসলামপুর গ্রামের রায়নু সরদারের ছেলে আরিফের সমর্থকদের মধ্যে শনিবার রাতে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সংঘর্ষ বাধে। এতে রাকিবুলের চাচা নজরুল ইসলাম ও মানিক মন্ডল আহত হয়। আহতদের লালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপে­ক্সে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনার জের ধরে রোববার সকালে নর্থ বেঙ্গল সুগার মিলের গোবিন্দপুর কৃষি খামার এলাকায় রাকিবকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়।

 

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, একটি মোটর সাইকেলে রাকিবুল ইসলাম, শফিকুল ইসলাম ও সামসের আলীকে ওই মাঠে আসতে দেখা যায়। একই সময় মাঠে রায়নু সরদারের ছেলে আরিফ, হাসান, লালনের সাথে আবুলকে দেখা যায়। তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে ১০ মিনিটের মধ্যে সবাই পালিয়ে যায়। ধারালো হাসুয়ার কোপে রাকিবুলের ঘাড় কেটে চামড়ার সাথে ঝুলে থাকতে দেখা যায় । স্থানীয় লোকজন পুলিশে খবর দিলে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে।

 

নিহত রাকিবুল ইসলামের মা রিনা বেগম জানান, তার ছেলের সাথে কারো কোন শত্রুতা নেই। সকালে কালি পূজার মেলায় যাবার কথা বলে ছেলে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায়। ঘন্টাখানেক পর তিনি তার ছেলের মৃত্যুর খবর পান।

 

লালপুর থানার অফিসার আনচার্জ (ওসি) মতিয়ার রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, পূর্বশত্রুতার জের ধরেই রাকিবুলকে হত্যা করা হয়েছে।

 

হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত সন্দেহে পুলিশ শফিকুল ইসলাম নামে একজনকে আটক করেছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত থানায় মামলার প্রস্ত্ততি চলছিল।

 

 

 

সম্পাদনা আলীরাজ/ রাফি, নিউজরুম

 

শেয়ার করুন