রাজশাহীতে পাঁচ হাজার শিবির ক্যাডারের অবস্থান

0
112
Print Friendly, PDF & Email

রুপসীবাংলা, রাজশাহী (১৪ নভেম্বর):রাজশাহী মহানগরী ও এর আশপাশের অর্ধশতাধিকস্থানে অন্তত ৫ হাজার শিবির ক্যাডার অবস্থান করছেনেতাদের নির্দেশে দিনেরযে কোনো সময় বিভিন্ন গ্রুপে বিভিক্ত হয়ে তারা নগরীতে চোরাগোপ্তা হামলা করারজন্য প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছে বলে জানা গেছেতবে পুলিশ তাদের সঠিক অবস্থাননা জানার কারণে বড় ধরনের গ্রেফতার অভিযান চালাতে পারছে না

 

রাজশাহীমহানগর গোয়েন্দা পুলিশের এক কর্মকর্তা এর সত্যতা স্বীকারজানিয়েছেন, শিবিরকর্মীরা তাদের নির্ধারিত মেসগুলোতে থাকছে নাএর ফলে তাদেরদ্রুত গ্রেফতার করা সম্ভব হচ্ছে নাতবে তাদের থাকার নতুন জায়গাগুলোচিহ্নিত করার চেষ্টা চলছে

 

রাজশাহী মহানগর পুলিশ কমিশনার এস এমমনির-উজ-জামান জানিয়েছেন, শিবির সংগঠিত হয়ে মিছিল করার সুযোগপাচ্ছে নাকিন্তু, তারা বিভক্ত হয়ে ছোট ছোট দলে মিছিল করার চেষ্টা করছেতবে পুরো মহানগরীতে পুলিশ সজাগ রয়েছেপুলিশ ও শিবিরের বিভিন্নসূত্র থেকে প্রাপ্ত তথ্যে জানা যায়, রাজশাহী মহানগরী ছাড়াও এর আশে-পাশেঅর্ধশতাধিক স্থানে শিবিরের অন্তত ৫ হাজার কর্মী অবস্থান করছেএর মধ্যেবাইরের শিবিরকর্মীরাও রয়েছেএরা বিভিন্ন গ্রুপে বিভক্ত হয়ে মহানগরীরবিভিন্ন স্থানে অবস্থান নিয়ে রয়েছেশীর্ষ নেতাদের নির্দেশ আসা মাত্রইসেখানে ঝটিকা মিছিল করছে আর পুলিশ দেখামাত্র ইটপাটকেল ছুড়ে পালিয়ে যাচ্ছেশিবির ক্যাডারদের এ কৌশলের কারণে পুলিশ অনেকটাই হতবিহ্বল হয়ে পড়ছেকোথায় কখন শিবির মিছিল করবে, এ নিয়ে পুলিশ ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছে

 

শিবিরক্যাডারদের নিরাপদ আস্তানা: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন বিনোদপুর, মেহেরচণ্ডী, কাটাখালী, বুধপাড়া, নামো ভদ্রা, মহিষবাথান, হেতেমখাঁ, শিরোইল, শান্তিবাগ, নওদাপাড়া, তালাইমারি, বিলসিমলা, ছোট বনগ্রাম ও বিসিক এলাকায়নিরাপদ ঘাঁটি তৈরি করেছে শিবিরবাসাবাড়ি ভাড়া করে সেখানে তারা অবস্থানকরছেতবে বিনোদপুর, তালাইমারি মেহেরচণ্ডী এলাকার শিবিরের চিহ্নিতছাত্রবাসগুলোতে তারা এখন আর  থাকছে নারাজশাহী মহানগরী ছাড়া ও এর আশপাশেরএলাকাগুলোতে শিবির নতুন আস্তানা গড়েছেএর মধ্যে কাটাখালী, বানেশ্বর, পুঠিয়া উপজেলা সদর, পবার নওহাটা, গোদাগাড়ীর রাজাবাড়ি হাট রয়েছে

 

পাঁচহাজার শিবির ক্যাডারের অবস্থান: পুলিশের অভিযানে আটক শিবির ক্যাডারদেরজিজ্ঞাসাবাদে পাওয়া তথ্য ও শিবির নেতাদের কাছ থেকে পাওয়া তথ্যে নগরীসহ এরআশেপাশে প্রায় ৫ হাজার শিবিরকর্মীরা অবস্থান করছে বলে জানা গেছেএরা শীর্ষনেতাদের নির্দেশ মোতাবেক বিভিন্ন গ্রুপে বিভক্ত হয়ে কখন কোথায় মিছিল করতেহবে, তা জেনে সেই মোতাবেক অবস্থান নিচ্ছে, আর সুযোগ পাওয়া মাত্রই মিছিল বেরকরছেমঙ্গলবার বিকেলে নগরীর ভদ্রা ও তালাইমারিতে শিবির ঝটিকা মিছিল বেরকরেতবে পুলিশ যাওয়ার আগেই তারা মিছিল করে নিরাপদে চলে যায়মহানগরবোয়োলিয়া জোনের সহকারী কমিশনার রোকনুজ্জামান বলেন, “আটকদেরজিজ্ঞাসাবাদে তারা জানায়, রাজশাহী ও এর আশে-পাশের এলাকায় সবমিলিয়ে প্রায় ৫হাজার শিবির কর্মীরা থাকতে পারেতবে তাদের বক্তব্য কতটুকু যুক্তিযুক্ত, তাখতিয়ে দেখতে হবে

 

এদিকে, এ ব্যাপারে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়েরশিবিরের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক তোহা বলেন,  “রাজশাহীবিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সবমিলিয়ে প্রায় ৫ হাজারশিবিরকর্মী তাদের এখন প্রস্তুত রয়েছেএরা প্রতিদিন বিভিন্ন গ্রুপেউপগ্রুপে বিভিক্ত নগরীর বিভিন্ন মোড়ে থাকছেআর সুযোগ পাওয়া মাত্রই মিছিলকরছেতিনি বলেন, “প্রয়োজন হলে বিভিন্ন জেলা থেকে শিবিরের আরওকর্মীকে রাজশাহীতে আনা হবেআমরা আমাদের কেন্দ্রীয় কর্মসূচি যে কোনো মূল্যেবাস্তবায়ন করতে চাই

 

এদিকে, শিবিরকর্মীদের সঠিক অবস্থান না জানারকারণে পুলিশ সঠিকভাবে অভিযান চালাতে পারছে নাপুলিশের পাশাপাশি গোয়েন্দাসংস্থাগুলোও তাদের অবস্থান নির্নয় করতে পারছে নাতবে মহানহগরগোয়েন্দা পুলিশের ওসি আলমগীর হোসেন বলেন, “পুলিশের ওপর হামলারঘটনায় জড়িত শিবির কর্মীদের অবস্থান নির্নয়ের চেষ্টা করা হচ্ছেএছাড়া বেশকয়েকজনকে গ্রেফতারও করা হয়েছে

 

রাজশাহী পুলিশকমিশনার এসএম মনির-উজ-জামান বলেন,“নগরীতে পুলিশের টহল জোরদারকরার কারণে শিবিরকর্মীরা সংগঠিত হয়ে মিছিল করার সুযোগ পাচ্ছে না

 

তবেবিচ্ছিন্নভাবে করার চেষ্টা করছেতিনি বলেন, “এ কারণে পুলিশ তপর রয়েছেনাশকতা রোধ করতে পুলিশ সবকিছুই করবে

 

                                                                                                      

 

নিউজরুম

 

শেয়ার করুন