গণতন্ত্রের শহীদকে ফুলেল শ্রদ্ধা

0
195
Print Friendly, PDF & Email

রুপসীবাংলা (ঢাকা, ১০ নভেম্বর): স্বৈরাচার পতন আন্দোলনেরশহীদ নূর হোসেনকে ফুলেল শ্রদ্ধায় স্মরণ করেছে রাজনৈতিক দলগুলো১৯৮৭সালের এই দিনে স্বৈরাচার এরশাদবিরোধী আন্দোলনের সময় ঢাকা অবরোধ কর্মসূচিতেরাজধানীর জিরো পয়েন্টেপুলিশের গুলিতে নিহত হন আওয়ামী লীগের সহযোগীসংগঠন যুবলীগের কর্মী নূর হোসেন
সেদিন তার বুকে লেখা ছিল স্বৈরাচার নিপাত যাক, পিঠে লেখা ছিল গণতন্ত্র মুক্তি পাকশনিবার ভোরে রাজধানীর গুলিস্তানের জিরো পয়েন্টে নূর হোসেন স্কোয়ারে ভোরে ফুল দিয়ে তার প্রতি শ্রদ্ধা জানায় প্রধান বিরোধী দল বিএনপি

যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভীর নেতৃত্বে বিএনপির শীর্ষ নেতারা ছাড়াও সহযোগী সংঠন যুবদল ও ছাত্রদলের নেতারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন

 

নূরহোসেনের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে রিজভী সাংবাদিকদের বলেন, “নূর হোসেন একটিজীবন্ত পোস্টারতিনি যে কারণে জীবন দিয়ে গেছেন, তা আজও আমরা বাস্তবায়নকরতে পারিনিএরপর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীরসদস্য মহিউদ্দিন খান আলমগীরের নেতৃত্বে দলের নেতারা নূর হোসেনের প্রতিশ্রদ্ধা জানানঅন্যদের মধ্যে আওয়ামী লীগ নেতা আহম্মদ হোসেন, আ ফ মবাহাউদ্দিন নাসিম, আব্দুল মতিন খসরু, আফজাল হোসেন ও মৃণাল কান্তি দাস এসময় উপস্থিত ছিলেন

 

মহিউদ্দিন খান আলমগীর পরে সাংবাদিকদের বলেন, “স্বৈরশাসকের বিরুদ্ধে আমাদের অবস্থান সবসময় একইযুবলীগও স্বেচ্ছাসেবক লীগসহ আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠনগুলোর পক্ষ থেকে নূর হোসেনস্কোয়ারে ফুল দেয়ার পর জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের পক্ষ থেকেও ফুল দেওয়া হয়নূর হোসেন ছাড়াও সেই আন্দোলনে আরেক যুবলীগ নেতা নূরুল হুদা বাবুলএবং কিশোরগঞ্জের বাজিতপুরের ক্ষেতমজুর নেতা আমিনুল হুদা টিটো পুলিশেরগুলিতে নিহত হনতাদের সেই আত্মত্যাগের পর স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলন তীব্রতর হাতে থাকলে ১৯৯০ সালের ৬ ডিসেম্বর এরশাদ সরকারের পতন হয়এরপর থেকে প্রতি বছরের ১০ নভেম্বর পালিত হচ্ছে নূর হোসেন দিবস 

 

 

 

নিউজরুম

 

শেয়ার করুন